1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
নোয়াখালীর সুবর্ণচরে গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ, বসত ঘর ভাঙচুর, লুট - দৈনিক শ্যামল বাংলা
রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৬:১২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
দরিদ্র মানুষের মাঝে সৈয়দপুরে জামায়াতে ইসলামী শীতবস্ত্র বির্তরণ রাউজান দলিল লিখক সমিতির সভাপতি অজিত কুমার দে- সম্পাদক মিজানুর রহমান বিএনপি না এলেও নির্বাচন হয়ে যাবে- নজিবুল বশর এমপি মানিকছড়ি উপজেলা বিএনপি কাউন্সিল-২০২২অনুষ্ঠিত সৈয়দপুরে থানা ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠিত রাউজানে কৃষক-কৃষাণি’র মুখে হাসি ফোটাতে ধান কেটে দিলো কৃষক লীগ আনোয়ারায় তোষামোদকারী সাংবাদিকতা ছেড়ে আপোষহীন সাংবাদিকতার আহবান ঠাকুরগাঁওয়ে বিনামূল্যে চক্ষু শিবির । ঠাকুরগাঁওয়ে রাণীশংকৈল ও বালিয়াডাঙ্গী ৪৭ টি ভাটাতে ইট পোড়ানো প্রস্তুতি সম্পন্ন হলেও আগুন জ্বালানো অনিশ্চিত ! নোয়াখালীতে ৯ টি শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম হচ্ছে- যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ, বসত ঘর ভাঙচুর, লুট

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৩০ নভেম্বর, ২০১৯
  • ৯৫ বার

মাহবুবুর রহমান :নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার দক্ষিণ চর মজিদ আশ্রয়ন কেন্দ্রে স্থানীয় সন্ত্রাসীদের সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয় ২৮ বছর বয়সি এক গৃহবধূ। শুক্রবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় সন্ত্রাসীরা ওই নারীর বসত ঘরে হামলা চালিয়ে লুটপাট করে সব নিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে এবং আজ শনিবার বিকালে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করান।

আজ রাতে হাসপাতালে নির্যাতিতা ওই নারীর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য আলামত সংগ্রহ করেন চিকিৎসক।

হাসপাতালে নির্যাতিতা নারী জানান, তার দাদি শাশুড়ির মৃত্যুার কারণে স্বামী বাড়ি ছিল না। তিনি ঘরে একা ছিল। রাত প্রায় দেড়টার দিকে ৯জন তার দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে। তাদের হাতে দেশীয় বেশ কিছু অস্ত্রও ছিল। এসময় তিনি চিৎকার দিলে অস্ত্র দেখিয়ে একজন মুখ চেপে ধরে। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে পাঁচজন পালাক্রমে তাকে ধর্ষণ করে এবং তার গলায় ও কানে থাকা স্বর্ণালঙ্কার ছিনিয়ে নেয়। এ সময় তাকে মারধরও করে তারা। তিনি ধর্ষণকারী ও হামলাকারিদের সকলকে চেনেন। তারা এলাকার সন্ত্রাসী।
তিনি জানান, আগামীকাল রোববার তার দেবরের জামিন চাওয়ার জন্য ঘরে ২০ হাজার টাকা রাখা ছিল। ধর্ষকরা টাকাগুলোও নিয়ে যায়। এ সময় তারা ঘরের সমস্ত আসবাবপত্র তছনছ করে এবং ঘরের বেড়া কুপিয়ে ও পিটিয়ে ভাঙচুর করে। ঘরের বাহিরে থাকা দুটি বৈদ্যুতিক লাইট খুলে অন্ধকার করে চরে যায়। ধর্ষকদের তান্ডবের আওয়াজে আশপাশের লোকজন আসলেও ভয়ে কেউ তাকে রক্ষা করতে এগিয়ে আসেনি। এক পর্যায়ে তিনি জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন।

নির্যাতিতাকে উদ্ধারকারী প্রতিবেশি এক নারী জানান, সন্ত্রাসীরা চলে যাওয়ার পর নির্যাতিতাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে তারা। পরে আজ বিকালে তাকে প্রথমে থানায় নিয়ে যায়। থানা পুলিশের পরামর্শে বিকারে তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করান।
তিনি আরো জানান, পুরো আশ্রয়ণ কেন্দ্রের আতংক স্থানীয় চেয়ারম্যানের বাহিনী হিসেবে খ্যাত এই চক্র। তারা আশ্রয়ণের মানুষকে জিম্মি করে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে। তাদের দ্বারা ওই আশ্রয়ণ কেন্দ্রের একাধিক নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। প্রায় এ ঘটনা ঘটনানো হয়।

এ বিষয়ে চরজব্বার থানার ওসি সাহিদ উদ্দিন ভাঙচুরের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নির্যাতিতাকে থানায় লিখিত অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলেও জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম