1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
মনোহরগঞ্জ ভুয়া জন্ম নিবন্ধন নিয়ে সাত যুবক ভোটার হওয়ার চেষ্টায় আটক - দৈনিক শ্যামল বাংলা
রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৩৩ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
পিরোজপুরের নেছারাবাদে বিধবা নারীকে জুতা পিটার অভিযোগ ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা, লালমনিরহাটে তিস্তার পানি কমেছে কুবিতে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় ‘খ’ ইউনিটে উপস্থিতি ৯৫.৪৪ শতাংশ জনপ্রিয় অভিনেতা ওয়ালিউল হক রুমির জন্মদিন আজ রংপুরে ধর্মপ্রাণ ও পরোপকারী নারী মরহুমা অজুবা বেগমের স্মরণে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল নেককার সন্তান আল্লাহর কাছে চেয়ে নিতে হয় সোনারগাঁয়ের ৮ ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হলেন যারা কোরআন জিম্মি করে দেশে সাম্প্রদায়িক অস্থিরতা সৃষ্টির অপপ্রয়াসে উদ্বেগ লালমনিরহাটে খুচরা মাছ ব্যবসায়ীর ছেলে নব্যকোটিপতি বিজিবি’র গরুর লাইনম্যানীর অন্তরালে হুন্ডী ও মাদক পাচার পায়রা সেতুর উদ্বোধন

মনোহরগঞ্জ ভুয়া জন্ম নিবন্ধন নিয়ে সাত যুবক ভোটার হওয়ার চেষ্টায় আটক

এম,এ মান্নান, কুমিল্লা বিশেষ প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৫ অক্টোবর, ২০২১
  • ২৪ বার

কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে ভুয়া ঠিকানা ও জাল স্বাক্ষর জন্ম নিবন্ধন দিয়ে ভোটার তালিকাভুক্ত হওয়ার চেষ্টাকালে ৭ যুবককে আটক করা হয়েছে। সোমবার (৪ অক্টোবর) বিকালে উপজেলা নির্বাচন অফিস সনদপত্র জমা দিতে এসে কর্মকর্তাদের হাতে আটক হয় তারা।
খবর পেয়ে মনোহরগঞ্জ থানা পুলিশ তাদেরকে আটক করে।
উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা নাজির হোসেন বাদী হয়ে সোমবার রাতে ভুয়া জন্ম নিবন্ধন ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মনোহরগঞ্জ থানায় মামলা করেন।
আটক ব্যক্তিরা হলেন,চান্দিনা একই উপজেলার মহিচাইল গ্রামের আবদুল রশিদের ছেলে
সাব্বির হোসেন (২১), বসন্তপুর গ্রামের সাদেক হোসেনের ছেলে ইমান হোসেন (২০),মোহনপুর
গ্রামের শহিদুল ইসলাম ছেলে সাকিব হাসান (২০),মহিচাইল গ্রামের দিদার হোসেনের ছেলে সোহাগ (১৯), বসন্তপুর গ্রামের জামাল মিয়া ছেলে সামিম হোসেন (২০), মোহনপুর গ্রামের আলমগীর হোসেন ছেলে বায়েজিদ হোসেন (২০) ও কংগাই এর আল আমিন (২৪)।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়,
চান্দিনায় উপজেলা থেকে ৭ জনকে এনআইডি কার্ড করার জন্য একই উপজেলার সোহেল নামে এক ব্যক্তির তাদেরকে মনোহরগঞ্জ উপজেলা পরিষদের নিয়ে আসেন। ভুয়া জন্ম নিবন্ধন সনদ তৈরী ও ঠিকানা ব্যবহার করে তারা নির্বাচন অফিসে ভোটার হতে আসে। এরা মনোহরগঞ্জ উপজেলা সদরের খিলা ইউনিয়ন পরিষদের জন্ম নিবন্ধন সনদ ও ইউপি চেয়ারম্যানের স্বাক্ষর হুবহু নকল করে। বর্তমান ঠিকানা হিসেবে উপজেলা সদরের দিশাবন্দ ও স্থায়ী ঠিকানা চান্দিনা উপজেলার বিভিন্ন স্থান উল্লেখ করে।উপজেলা নির্বাচন অফিসে ফাইল জমা দেয়ার পর কাগজপত্র যাচাইকালে মূল কাগজপত্র দেখাতে না পারায় কর্মকর্তাদের সন্দেহ হয়। তখন তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা সনদসহ কাগজপত্র জালিয়াতি ও ভুয়া ঠিকানা ব্যবহারের কথা স্বীকার করে।
উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা নাজির হোসেন মিয়া জানান, তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এ বিষয়ে খিলা ইউপি চেয়ারম্যানের, সচিব ও কম্পিউটার অপারেটর
সম্পৃক্ততা রয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এতে ইউনিয়ন পরিষদ ও চেয়ারম্যানের সম্পৃক্ততার কোন প্রমাণ পাওয়া যায়নি।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোহেল রানা জানান, সনদ জালিয়াতি ও ভূয়া ঠিকানা ব্যবহার করে ভোটার তালিকাভূক্তির জন্য চেষ্টা গুরুতর অপরাধ।
সোমবার রাতে মনোহরগঞ্জ থানার পরিদর্শক মাহাবুল কবির জানান, এ ঘটনায় জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন আইন ২০১০ এর ১৪ ধারায় মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে আসামীদের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম