1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
নবীগঞ্জ শহরে ভয়াবহ সংঘর্ষের ঘটনায় ৩০ জনের নাম উল্লেখ করে ২০০/২৫০জনকে অজ্ঞাত করে পুলিশ এসল্ট মামলা দায়ের - দৈনিক শ্যামল বাংলা
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০১:৩৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
ফাঁসিয়াখালী-মেদাকচ্ছপিয়া পিপলস ফোরাম (পিএফ) সাধারণ কমিটির সভা সম্পন্ন চৌদ্দগ্রামে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উদযাপন চৌদ্দগ্রামে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা ফের ৩দিন ক্লাস বর্জনের ঘোষণা কুবি শিক্ষক সমিতির নবীনগরে পৃথক মোবাইল কোর্ট অভিযানে সাড়ে ৪ লাখ টাকা জরিমানা দৈনিক আমাদের চট্টগ্রামের সম্পাদক মিজানুর রহমান চৌধুরী উপর হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী ঠাকুরগাঁওয়ে রানীশংকৈলে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মাঠে নেমেছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা তিতাসে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা শেরপুরে আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত ঘুমন্ত স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে নিয়ে স্ত্রীর পলায়ন

নবীগঞ্জ শহরে ভয়াবহ সংঘর্ষের ঘটনায় ৩০ জনের নাম উল্লেখ করে ২০০/২৫০জনকে অজ্ঞাত করে পুলিশ এসল্ট মামলা দায়ের

মোঃ হাবিবুর রহমান চৌধুরী শামীম নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) 
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১ মার্চ, ২০২৪
  • ২৯ বার

নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ)থেকে।।

নবীগঞ্জ শহরে ভয়াবহ সংঘর্ষের ঘটনায় ৩০ জনের নাম উল্লেখ করে ও ২০০/২৫০ জনকে অজ্ঞাত করে পুলিশ এসল্ট মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে মামলা দায়ের ও গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নবীগঞ্জ থানার ওসি মোঃ মাসুক আলী। এর আগে থানার এসআই বিজয় দেবনাথ বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় ১৪ জনকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করেছে পুলিশ। এদিকে ১৪ জনকে গ্রেফতারের খবরে এলাকা ছড়িয়ে পরলে গাঢাকা দিয়ে পালিয়েছে হামলাকারীরা।
গ্রেফতারকৃত আসামীরা হলো ইনাতাবাদ গ্রামের মোঃ আশফাক আলীর পুত্র নাসির মিয়া (২৫), একই গ্রামের ছাদিক মিয়ার পুত্র আবু জাহেদ (৩৪), মৃত সমাই উল্লাহর পুত্র ফজল মিয়া (৩৮), মৃত খাফল উল্লার পুত্র ছুনু মিয়া (৩৪), সাজ্জাদ আলীর পুত্র জুবেদ মিয়া (২৪), মৃত ইস্কন্দর মিয়ার পুত্র বিল্লাল মিয়া (২৩), রুঘু মিয়ার পুত্র রাজু মিয়া (২৪), অনু মিয়ার পুত্র দিলদার (২৬), মালিক মিয়ার পুত্র খালেদ মিয়া (২৮), মৃত আব্দুল মন্নাফের পুত্র সোলেমান (৩৫), মৃত ফারাজ মিয়ার পুত্র মইন উদ্দিন (২১), মোঃ ফাহাদের পুত্র মোঃ মাফিন উদ্দিন (২০) ও আনমুনু গ্রামের হিযবু মিয়ার পুত্র তৌহিদ মিয়া (৩৫), মৃত এলাইছ মিয়ার পুত্র অন্তর মিয়া (২৬)।উল্লেখ্য, গত বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৫টা থেকে রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত নবীগঞ্জ শহরে ভয়াবহ দুই পক্ষে সংঘর্ষের এ গঠনা ঘটে।
নবীগঞ্জ উপজেলার কুর্শি ইউনিয়নের এনাতাবাদ গ্রামের লোক জন চেয়ারম্যান সৈয়দ খালেদুর রহমান পক্ষে ও পৌর কাউন্সিলর নানু মিয়া পক্ষে তার আনমুনু গ্রামের লোকজনের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। এসময় ৩টি ব্যাংক ও মার্কেটসহ অর্ধশতাধিক দোকানপাঠ ভাংচুর করা হয়। সংঘর্ষে নবীগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) সহ ৮ জন পুলিশ সদস্য এবং সাংবাদিকসহ অর্ধশতাধিক লোকজন আহত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ৪৫ রাউন্ড টিয়ারসেল ও ১৫ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে পুলিশ।নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুক আলী পুলিশ সংঘর্ষের ঘটনায় থানায় পুলিশ এসল্ট মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামী গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান অব্যাহত আছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম