1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
বাঁশখালীতে মধ্যরাতে অগ্নিকান্ডে পুড়েছে চার দোকান - দৈনিক শ্যামল বাংলা
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৬:৩২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের শেষ মুহূর্তে জমে উঠেছে প্রচার যুদ্ধ, চেয়ার দখলে দ্বিমুখী লড়াই ! Situs Slot Gacor Pragmatic Bet 200 Resmi mudah Menang dan Terpercaya ঈদগাঁওতে ৬ দিন পর নির্বাচনী সহিংসতায় কর্মী খুনের মামলা কয়েক শত মাছের ঘের প্লাবিত হয়ে একাকার রাঙ্গাবালীতে ঘূর্ণিঝড় রিমালের তান্ডবে ক্ষয়ক্ষতি ২০ গ্রাম প্লাবিত আইপিএল এ সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে ফাইনালে রীতিমতো বিধ্বস্ত করে শিরোপা জিতে নিল কলকাতা নাইট রাইডার্স তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে এনে সাজা দেওয়া হবে -প্রধানমন্ত্রী ইনাতগঞ্জ ডিগ্রী কলেজে অধ্যক্ষ ও শিক্ষকের অপসারণের দাবিতে শিক্ষার্থীদের অবস্থান কর্মসূচি পালন।। ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম ঠাকুরগাঁওয়ে শিশুর পুরুষাঙ্গে ইট বেঁধে ভিডিও, ৩ কিশোর আটক ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীতে মলম ও অজ্ঞান পার্টির ৩ সদস্য আটক

বাঁশখালীতে মধ্যরাতে অগ্নিকান্ডে পুড়েছে চার দোকান

শিব্বির আহমদ রানা, বাঁশখালী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২৪
  • ৩০ বার

চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার শেখেরখীল ইউনিয়নের শেখেরখীল মাহমুদুল্লাহর দোকান স্টেশনে বিদ্যুতের শকর্ট সার্কিটের আগুনে পুড়েছে চারটি দোকানের সর্বস্ব। এ ঘটনায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমান ১৫ লক্ষের মতো বলে জানান ক্ষতিগ্রস্থ দোকান মালিকরা।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) রাত ১২টার দিকে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার খবর পেয়ে বাঁশখালী ফায়ার সার্ভিস টিম ঘটনাস্থলে পৌছে সম্পূর্ণ আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হলেও মুহূর্তের আগুণে চার দোকানের সবকিছুই পুড়ে যায় বলে জানান স্থানীয় রমিজ টেলিকমের স্বত্বাধিকারী মো. রমিজ উদ্দিন।

এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থরা হলেন- মুদির দোকানদার রিদোয়ান সাওদাগর, চা দোকানদার মান্নান সাওদাগর, ফলের (ফ্রুটের) দোকানদার নুরুল আমিন সাওদাগর ও অর্পণ দাশের সেলুনের দোকান। রিদোয়ান সাওদাগরের মুদির দোকানে বিদ্যুতের শর্কট সার্কিট থেকে এ অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

বাঁশখালী ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের টিম লিডার নুরুল বাশার জানান, ‘আমরা সরকারী জরুরী সেবা ‘৯৯৯’-এ ফোন পেয়ে দ্রুতই ঘটনাস্থলে পৌছি। এ ঘটনায় মুদির দোকানসহ চারটি দোকান পুড়েছে। আমরা পরবর্তীতে কমসময়ে সম্পূর্ণ আগুন নিয়ন্ত্রণে এনেছি।

তিনি আরো বলেন, আমরা বারবার প্রচার করার স্বত্বেও লোকজন ফায়ার সার্ভিসের নাম্বারটি সংগ্রহে রাখেনি। অনেকের কাছে ফোন নম্বর না থাকায় ঘটনা ঘটার পর পরই আমাদের কে জানানো হয় না। অনুরুধ করবো বাঁশখালীর লোকজন যেন ফায়ার সার্ভিসের জরুরী ফোন নম্বর সংগ্রহ করে রাখেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম