চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেসক্রিপশন নিয়ে টানা-টানি

শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

এম আর আমিন,চট্টগ্রাম ;
চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে
সহযোগিতা করতে ছুটে আসে সে মানুষ রূপী অমানুষরা।রোগী ও স্বজনের বিপদে আর সরলতাকে পুঁজি করে তাদের কাছ থেকে হাতিয়ে নেয় মোটা অঙ্কের টাকা। এই মানুষ নামের দালালরা। চক্রের কাছে জিম্মি চমেক হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা রোগী ও স্বজনরা।

হাসপাতালের কিছু অসাধু কর্মচারী, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, রাজনৈতিক সংগঠনের মদদে চালচ্ছে। বিশেষ সৃত্রে জানা যায়, হাসপাতালের পূর্ব গেটের ফার্মেসি দোকান থেকে মাসোহারাও নিচ্ছেন এসব সংগঠন। এ সুযোগে সাধারণ রোগীদের পকেট কাটায় মাতোয়ারা প্রেসক্রিপশন বাণিজ্যয়ে জড়িত কয়েকশত দালাল।

সংঘবদ্ধ দালালরা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রতিদিন বহির্বিভাগে রোগী চিকিৎসা নিতে আসা। রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া প্রেসক্রিপশনে মধ্যে রোগীকে বিভিন্ন পরীক্ষা—নিরীক্ষা করার কথা বলা হয় সে সুযোগে।
সহযোগিতা করতে ছুটে আসে সে মানুষ রূপী দালাল চক্রের ফাঁদে পড়ে রোগীর স্বজনদের খোয়াতে হয় অর্থ।

রোগীদের হাসপাতালের বিপদের সময় সরলতাকে পুঁজি করে দালালের খপ্পড়ে পড়েছেন সাধারণ রোগীরা।

পরিচয় গোপন রাখার অনুরোধ দালালদের এক সদস্য বলেন, আমাদের কাজ হলো রোগীর স্বজনদের বুঝিয়ে আমাদের কন্ট্রাক্ট থাকা ফার্মেসিতে নিয়ে যাওয়া।

তিনি বলেন, পেটের দায়ে আমরা অসহায় মানুষদের সাথে প্রতারণা করে তাদের থেকে টাকা হাতিয়ে নিই। আমরা প্রতিটি প্রেসক্রিপশনে আমরা ৩০ শতাংশ কমিশন পাই। ২৩টি ফার্মেসির সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ।

চমেক হাসপাতালে একটি সংঘবদ্ধ সিন্ডিকেট এ অবৈধ বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নজরে থাকার পরও লাগাম টানার উদ্যোগ নেয়নি কতৃপক্ষ।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এস এম হুমায়ন কবির বলেন, কোন রোগী ও ভুক্তভোগী আমাদের লিখিত অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেবো।


শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share
  •  
    1
    Share
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.