1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
মাগুরার মহম্মদপুরে ১৫ কিলোমিটার রাস্তার বেহাল দশা, জনদূর্ভোগ চরমে - দৈনিক শ্যামল বাংলা
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৪:৩৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
এখনো প্রত্যন্ত চর অঞ্চলে মহিষের পাল ছাড়িয়ে রাঁখাল ওকি গাড়িয়াল ভাই এর গানের সুর তুলেন তার বাঁশিতে!!! চৌদ্দগ্রামে দৈনিক দেশ রূপান্তর এর ৫ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত শ্রীপুরে মহাসড়ক অবরোধ করে শ্রমিকদের বিক্ষোভ সৈয়দপুরে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ বদলে গেছে লালমনিরহাটের তিন বিঘা করিডোর ও দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা ছিটমহল চৌদ্দগ্রাম প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ৩ দিন ব্যাপী বার্ষিক আনন্দ ভ্রমণ সম্পন্ন চৌদ্দগ্রামে শুভ সংঘের উদ্যোগে অস্বচ্ছল নারীদের সেলাই প্রশিক্ষণের উদ্বোধন ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চললে কেউ অপরাধ করতে পারে না নবীগঞ্জে ঠাকু অনুকূল চন্দ্রের জন্মোৎসবে এসপিআর কালী চরন মন্ডল Pilot video game in Kenya ঠাকুরগাঁওয়ের বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ বীর মুক্তিযোদ্ধা তৈমুর রহমানের ইন্তেকাল !

মাগুরার মহম্মদপুরে ১৫ কিলোমিটার রাস্তার বেহাল দশা, জনদূর্ভোগ চরমে

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০১৯
  • ১৭১ বার

মাগুরা থেকে মোঃ সাইফুল্লাহ : মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার চর গয়েশপুর গ্রাম থেকে পাল্লা গ্রামের ১৫ কিলোমিটার রাস্তার জন্য প্রায় ৬০ হাজার মানুষের চরম দুর্ভোগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এ রাস্তা দিয়ে প্রতিদিনই হাজার হাজার পথচারী, স্কুল, কলেজের শিক্ষার্থীরা চলাচল করে। দীর্ঘ পনের বছর চলাচলের কারণে একেবারই অনুপযোগী হয়ে পড়েছে রয়েছে রাস্তাটি।
রাস্তাটির কারণে এলাকাবাসীর জনদূর্ভোগ চরম আকার ধারণ করেছে। প্রায় ৮০ ভাগ যায়গারই ইট উঠে গেছে। দেড়যুগ ধরে রাস্তাটিতে কোন সংস্কারের কাজ হয় নাই। দীর্ঘদিন ধরে রাস্তাটি সংস্কার করণের দাবি এলাকাবাসীর থাকলেও তাদের ডাকে সাড়া দেননি কোন প্রতিনিধিসহ সংশ্লিষ্ট কেউ। যুগের পর যুগ ধরে শুধু মেপেইে আসছে, সংস্কারের বালাই নেই বলে রাস্তাটি এখন গ্রামবাসীর গলার কাঁটায় পরিণত হয়েছে।সরেজমিন গিয়ে জানা যায়, পাল্লা, কোমরপুর, দাতিয়াদহ, হরিনাডাঙ্গা, রায়পুর, মাধবপুর, আকসার চর, চুড়ালগাতি, চর-পুকুরিয়া, চরসেলামতপুর, রঘুনাথপুর, বাবুখালী, গয়েশপুর, চর-গয়েশপুরসহ প্রায় ১৫-২০ গ্রামের লোকজনের যাতায়াতের একমাত্র রাস্তা এটি।

এছাড়া পার্শ্ববর্তী উপজেলার লোকজন এ রাস্তাটি দিয়ে যাতায়াত করে। সাইকেল, মোটরসাইকেল বা ভ্যান তো দূরের কথা পায়ে হেঁটেও চলাচল করার অনুপযোগী হয়ে গেছে। গ্রামের কোন কন্যার বিয়ে হলে অনেক দূরে গাড়ি রেখে পায়ে হেঁটে বরযাত্রীদের আসা যাওয়া করতে হয় এমনকি বাড়িঘর ফেলে রেখে অন্যত্র বিয়ের কার্যক্রম সম্পন্ন করতে হয়।

এছাড়া আবার কারো কারো বিয়ে ভেঙ্গেও গেছে বলে জানায় স্থানীয়রা। এসব এলাকার ছেলে-মেয়েরা ঠিকমত লেখা-পড়া করতে পারে না কারণ অনেক দূরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, আবার অনেকেরই পড়া-লেখা বন্ধ হয়ে গেছে।

পাল্লা গ্রামের তৃষ্ণা রানীসহ বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী স্থানীয় পাল্লা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে পড়ালেখা করে, তারা জানায়, রাস্তার যে অবস্থা হয়েছে তাতে স্কুলে ও প্রাইভেট পড়তে যেতে মন চায় না। কারণ রাস্তা দিয়ে কোন যানবাহনই চলাচল না করায় পায়ে হেঁটে প্রতিদিনই স্কুল ও প্রাইভেট পড়তে যেতে হয়। মাঝে-মাঝে পড়ালেখা ছেড়ে দিতে মন চায়।

একই গ্রামের ওয়াজেদ আলি শেখ বলেন, রাস্তা দেখলে মনে হয় এলাকা ছেড়ে অন্যত্র ঘড়-বাড়ি বানায়। তিনি বলেন, প্রায় ১৫-২০ বার দেখেছি লোকজন এসে রাস্তা মেপে যাচ্ছে। কিন্তু সংস্কারের কোন কাজ হতে দেখলাম না এ যাবত। আমাদের দুঃখ কেউ বুঝলো না।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম হিরু মিয়া জানান, রাস্তাটার অবস্থা দীর্ঘদিন যাবত খারাপ। একেবারেই চলাচলের অনুপযোগী হয়ে গেছে রাস্তাটি। উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার অফিসকে কয়েকবার বিষয়টি জানানো হয়েছে।

উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলী বিকাশ চন্দ্র নন্দি বলেন, রাস্তাটি সংস্কারের বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। অচিরেই সংস্কারের কাজ শুরু হতে পারে বলে তিনি জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম