1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
কুমিল্লায় ব্যবসায়ীকে থানায় এনে চেক লিখে নেয়ায় ওসির বিরুদ্ধে মামলা - দৈনিক শ্যামল বাংলা
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৬:২০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
Situs Slot Gacor Pragmatic Bet 200 Resmi mudah Menang dan Terpercaya ঈদগাঁওতে ৬ দিন পর নির্বাচনী সহিংসতায় কর্মী খুনের মামলা কয়েক শত মাছের ঘের প্লাবিত হয়ে একাকার রাঙ্গাবালীতে ঘূর্ণিঝড় রিমালের তান্ডবে ক্ষয়ক্ষতি ২০ গ্রাম প্লাবিত আইপিএল এ সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে ফাইনালে রীতিমতো বিধ্বস্ত করে শিরোপা জিতে নিল কলকাতা নাইট রাইডার্স তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে এনে সাজা দেওয়া হবে -প্রধানমন্ত্রী ইনাতগঞ্জ ডিগ্রী কলেজে অধ্যক্ষ ও শিক্ষকের অপসারণের দাবিতে শিক্ষার্থীদের অবস্থান কর্মসূচি পালন।। ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম ঠাকুরগাঁওয়ে শিশুর পুরুষাঙ্গে ইট বেঁধে ভিডিও, ৩ কিশোর আটক ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীতে মলম ও অজ্ঞান পার্টির ৩ সদস্য আটক মাগুরায় প্রতারণার বিচার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন এক প্রধান শিক্ষক!

কুমিল্লায় ব্যবসায়ীকে থানায় এনে চেক লিখে নেয়ায় ওসির বিরুদ্ধে মামলা

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ১৬১ বার

মো: সাইফুল ইসলাম,কুমিল্লা :
থানায় ডেকে নিয়ে দেড় কোটি টাকার চেক নেয়ার অভিযোগে কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) মো. সালাহউদ্দিনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা হয়েছে। রোববার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে নগরীর মনোহরপুর এলাকার মৃত আবদুল হামিদের ছেলে মো. মহিউদ্দিন বাদী হয়ে কুমিল্লার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এ মামলা করেন।

মামলায় নগরীর মনোহরপুর এলাকার মৃত রতন মিয়ার ছেলে মো. মাহাবুব আলমকে ২নং আসামি করা হয়। আদালতের বিচারক জালাল উদ্দিন অভিযোগটি আমলে নিয়ে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে তদন্তের নির্দেশ দেন। সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেন মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী সালাউদ্দিন মাহমুদ।

মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ব্যবসায়িক প্রয়োজনে মহিউদ্দিনের জমি বন্ধক রেখে তার চাচাতো ভাই মামলার ২নং আসামি মাহাবুব আলম ইউসিবিএল ব্যাংক থেকে ঋণ গ্রহণ করে। ওই ঋণ সময়মতো পরিশোধ করতে না পারায় মাহাবুবের বিরুদ্ধে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ অর্থ ঋণ আদালতে মামলা করে। এ নিয়ে মাহাবুব ও মহিউদ্দিনের মধ্যে বিরোধের সৃষ্টি হয়।

অভিযোগে বলা হয়, পরে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) মো. সালাহউদ্দিন এবং আসামি মাহাবুব আলম যোগসাজশে টাকা আদায়ের উদ্দেশ্যে গত ৩ আগস্ট রাতে পুলিশ পাঠিয়ে মহিউদ্দিনকে থানায় তুলে নিয়ে যায়। এরপর পুলিশ পরিদর্শক সালাহউদ্দিনের রুমে মহিউদ্দিনকে আটকে রাখে এবং তার ভাইয়ের মাধ্যমে বাড়ি থেকে চেকবই নিয়ে ১ কোটি ৫০ লাখ টাকার চেক লিখিয়ে নেন।

মামলার বাদী মহিউদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, থানায় তুলে নিয়ে দেড় কোটি টাকার চেক মাহাবুবের (২নং আসামি) জন্য আদায় করতে পুলিশ পরিদর্শক সালাহউদ্দিন আমাকে হুমকি দিয়েছিলেন, তাই আমি বাধ্য হয়ে চেক লিখে দিয়েছিলাম। এখন আদালতে মামলা করেছি।

অভিযোগের বিষয়ে পুলিশ পরিদর্শক মো. সালাহউদ্দিন জানান, ব্যাংক ঋণ, টাকা লেনদেন ও চেক দেয়া-নেয়ার বিষয়টি মহিউদ্দিন ও তার চাচাতো ভাই মাহাবুবের মধ্যে হয়েছে। থানায় অভিযোগের প্রেক্ষিতে উভয়পক্ষকে থানায় ডেকে এনে সমঝোতা করা হয়েছিল। পরে তাদের মধ্যে কি হয়েছে জানি না। আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সঠিক নয়। এছাড়া আমি এখনও আদালত থেকে মামলার কোনো কাগজপত্র পাইনি।

বাদীপক্ষের আইনজীবী সালাউদ্দিন মাহমুদ জানান, আদালতের বিচারক জালাল উদ্দিন অভিযোগটি আমলে নিয়ে তা তদন্তের জন্য পিবিআই-কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে নির্দেশ দিয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম