1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
বাংলাদেশ রেশম গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট ১৫ তুঁতজাত উদ্ভাবন করেছে - দৈনিক শ্যামল বাংলা
বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ০৭:৫৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
গাজীপুর টঙ্গীতে ইয়াবা ট্যাবলেট ও গাঁজা সহ গ্রেপ্তার ২ আরএমপি’র উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করলেন পুলিশ কমিশনার ঠাকুরগাঁওয়ে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা । বাড়ির আঙ্গিনায় মাল্টা চাষ করে সফলতার মুখ দেখছেন ইউপি সচিব কাজী কামাল উদ্দিন বহুমুখী ব্যবহার ঠাকুরগাঁওয়ে পাটখড়ির কদর বেড়েছে ! চৌদ্দগ্রামে ৫ কেজি গাঁজাসহ আটক ১ অধ্যক্ষ ইসমাঈল এর স্মরণ সভা আয়োজন করলো ফতেয়াবাদ কলেজ নবীনগরে বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রের উদ‍্যোগে সাংস্কৃতিক কার্যক্রম অনুষ্ঠিত শ্রীপুরে পিকআপের ধাক্কায়৷ বেকারি কারখানার পরিবেশক নিহত নবীনগরে ধারাবাহিক মূল‍্যায়ন অভ‍্যন্তরীন প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠিত

বাংলাদেশ রেশম গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট ১৫ তুঁতজাত উদ্ভাবন করেছে

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ১২০ বার

মঈন উদ্দীন: বাংলাদেশ রেশম গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট (বিএসআরটিআই) গত ১১ বছরে একটি প্রকল্প ও একটি কর্মসূচি বাস্তবায়ন করেছে। আর একটি প্রকল্প চলমান রয়েছে। এই সময়ে প্রতিষ্ঠানটি চারটি তুঁতের গাছ সংগৃহিত এবং ১৫টি তুঁতজাত (বিএম-১ হতে বিএম-১৫) উদ্ভাবনের ফলে জার্মপ্লাজম ব্যাংকে তুঁতগাছের সংখ্যা ৬৪ থেকে ৮২টিতে উন্নীত করতে পেরেছে। এটিকে কর্তৃপক্ষ তাদের বড় সাফল্য হিসেবে দেখছে।
বিএসআরটিআই সূত্র জানায়, ২০১০ সালের ১ জুলাই থেকে ২০১৫ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত মেয়াদকালে ‘ডেভেলপমেণ্ট এণ্ড ট্রান্সফার অব সাসটেইনেবল সেরিকালচার টেকনোলজিস থ্রো আপগ্রেডিং দি রিসার্স এণ্ড ট্রেনিং ক্যাপাবিলিটি অব বিএসআরটিআই’ শীর্ষক প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে এই প্রতিষ্ঠানটি।এছাড়া ২০১৪ সালের ১ জুলাই থেকে ২০১৭ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত মেয়াদকালে ‘গবেষণা ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে রেশম প্রযুক্তি উদ্ভাবন, দক্ষ জনশক্তি সৃষ্টি এবং প্রযুক্তি হস্তান্তর’ শীর্ষক কর্মসূচি বাস্তবায়ন করেছে।আর ২০১৬ সালের ১ জুলাই থেকে ২০২১ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত মেয়াদে ‘রেশম প্রযুক্তি উন্নয়ন, বিস্তার ও দক্ষ জনশক্তি সৃষ্টির মাধ্যমে উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধিকরণ (১ম সংশোধিত)’ শীর্ষক উন্নয়ন প্রকল্প চলমান রয়েছে।
বিএসআরটিআই জানায়, বছরে হেক্টর প্রতি তুঁতপাতার উৎপাদন ৩৭-৪০ মেট্রিক টন এর স্থলে ৪০-৪৭ মেট্রিক টনে উন্নীত করা হয়। এই সময়ে আরো২৭টি রেশমকীটের জাত উদ্ভাবনের ফলে জার্মপ্লাজম ব্যাংকে রেশমকীট জাতের সংখ্যা ৮৫টি থেকে ১১২টিতে উন্নীত করা হয়। রেশম সেক্টরে দক্ষ জনশক্তি সৃষ্টি ও উদ্ভাবিত প্রযুক্তি মাঠ পর্যায়ে হস্তান্তরের লক্ষ্যে একই সময়ে তিন হাজার ৪৭৯ জনকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়।
বিএসআরটিআই’র ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মোহা: মুনসুর আলী জানান, লাগসই প্রযুক্তি উদ্ভাবনের মাধ্যমে কাঁচা রেশমের উৎপাদন বৃদ্ধি ও স্বল্প ব্যয়ে উদ্ভাবিত প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে উৎপাদনশীলতার উন্নয়নে কাজ অব্যাহত রয়েছে। এছাড়া দক্ষ কারিগরী জনশক্তি সৃষ্টি এবং সম্প্রসারণের মাধ্যমে দেশে কাঁচা রেশম উৎপাদন প্রক্রিয়াকে পদ্ধতিগতভাবে সুসংগঠিত করতে কারিগরী সহায়তাও প্রদান করাহচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম