1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
গাইবান্ধায় শীতের তীব্রতা বৃদ্ধি গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি জনজীবন কাহিল - দৈনিক শ্যামল বাংলা
বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১০:৫৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
পথশিশুদের নিয়ে বিশ্বকাপ ফুটবল উৎসবে ঢাকা ইয়ুথ ক্লাব ইন্টারন্যাশনাল রাউজানে ধর্মীয় অনুষ্ঠানে কিলোমিটার জুড়ে আলোকসজ্জা ও মাইকের শব্দ দুষণ জনজীবন অতিষ্ট এক ঘন্টা পর ঢাকা-ময়মনসিংহ সড়কে ট্রেন চলাচল শুরু মীরসরাইয়ে বন বিভাগের উচ্ছেদ অভিযানে ১ একর জায়গা উদ্ধার শ্রীপুরে হযবরলের মাধ্যমে চলছে ভুমি জরিপ!ষুষে মেলে মুক্তি। সৈয়দপুর ট্রেনে কাটা পড়ে যুবকের শরীর তিন খন্ড বাঞ্ছারামপুর বার্তার সম্পাদককে হুমকীর প্রতিবাদে মানববন্ধন দরিদ্র মানুষের মাঝে সৈয়দপুরে জামায়াতে ইসলামী শীতবস্ত্র বির্তরণ রাউজান দলিল লিখক সমিতির সভাপতি অজিত কুমার দে- সম্পাদক মিজানুর রহমান বিএনপি না এলেও নির্বাচন হয়ে যাবে- নজিবুল বশর এমপি

গাইবান্ধায় শীতের তীব্রতা বৃদ্ধি গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি জনজীবন কাহিল

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৯ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৮৬ বার

আনোয়ার হোসেন শামীম, গাইবান্ধা :
আবারও হিমেল হাওয়াসহ ঘন কুয়াশা সেই সাথে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি পড়ায় গাইবান্ধা জেলার জনজীবন কাহিল হয়ে পড়েছে। আজ কোথাও গাইবান্ধা জেলার সূর্যের মুখ দেখা মেলেনি। আকাশ মেঘাচ্ছন্ন ও ঘন কুয়াশায় আচ্ছন্ন হয়ে থাকে গোটা গাইবান্ধা জেলা। সেইসাথে হিমেল হাওয়া বইতে থাকে। হঠাৎ করে আবারো শীত শুরু হওয়ায় এবং গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি পড়ায় এ জেলার মানুষরা চরম বিপাকে পড়ে। শীতে জেলার সুন্দরগঞ্জ, ফুলছড়ি, সাঘাটা ও সদর উপজেলার ছিন্নমুলসহ চরাঞ্চলের মানুষরা বেশী দুর্ভোগের কবলে পড়ে। শীতে সাধারণ মানুষ বিশেষ করে শিশু এবং বয়স্করা এতে কষ্ট পাচ্ছে বেশি।
এদিকে ঘন কুয়াশার কারণে ব্রহ্মপুত্র-যমুনাসহ অন্য নদ-নদীতে নৌ চলাচল বিঘ্নিত হচ্ছে। ফলে মূল ভূমির সাথে চরাঞ্চলের যোগাযোগ ব্যাহত হচ্ছে। আসন্ন ইরি-বোরো বীজতলা নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। এছাড়া ঘন কুয়াশা অব্যাহত থাকায় আলু কোল্ড ইনজুরিতে আক্রান্ত হচ্ছে।

পুলিশের উপর হামলা ঃ হাতকড়াসহ আসামীর পলায়ন ঃ ৩ পুলিশ আহত ঃ আটক ৫
গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলায় প্রতারনাসহ একাধিক মামলার আসামি ফরহাদকে ধরার সময় পুলিশের উপর হামলা করেছে টাকশাল বাহিনী। এতে এক এসআই সহ ৩ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এই ঘটনায় পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ। আহত পুলিশ সদস্যদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রোববার সকাল দশটার দিকে উপজেলার মনোহরপুর গ্রামের টাকশালপাড়ায় এই ঘটনা ঘটে।
পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, টাকশাল পাড়ার মৃত খয়বর হোসেনের ছেলে টাকশাল ফরহাদ হোসেন প্রতারনাসহ একাধিক মামলার আসামী। তাকে ঢাকার একটি মামলায় ধরতে ডিএমপির দুই পুলিশসহ উপজেলার হরিনাবাড়ী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের কয়েকজন পুলিশ সদস্য ফরহাদের বাড়ীতে হানা দেয়। এসময় টাকশাল বাহিনী পুলিশের উপর অতর্কিতভাবে হামলা করলে হাতকড়াসহ পালিয়ে যায় ফরহাদ। এতে এসআই কৃষ্ণ, কনষ্টেবল শফি ও ডিএমপির একজনসহ তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়। আহত পুলিশ সদস্যদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এরপর ঘটনাটি পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের জানানো হলে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে অভিযান চালিয়ে হাতকড়াসহ ফরহাদকে ওই গ্রাম থেকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। এসময় আরো তিনজনকে আটক করে পুলিশ।
আটককৃতরা হলো- সাহেব আলীর ছেলে আফসার আলী, সাইফুল ইসলামের ছেলে আউয়াল, ছাত্তারের ছেলে গনি মিয়া ও রফিক। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত রফিকের পিতার নাম জানা যায়নি। হরিনাবাড়ী পুলিশ তর্দন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক রাকিব হোসেন জানান, এই ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। পুলিশের উপর হামলাকারিদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম