1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের মতো নেতা মিলেনা : চকরিয়ায় স্মরণ সভায় এমপি জাফর - দৈনিক শ্যামল বাংলা
শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১২:০৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
মানিকছড়ি উপজেলা বিএনপি কাউন্সিল-২০২২অনুষ্ঠিত সৈয়দপুরে থানা ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠিত রাউজানে কৃষক-কৃষাণি’র মুখে হাসি ফোটাতে ধান কেটে দিলো কৃষক লীগ আনোয়ারায় তোষামোদকারী সাংবাদিকতা ছেড়ে আপোষহীন সাংবাদিকতার আহবান ঠাকুরগাঁওয়ে বিনামূল্যে চক্ষু শিবির । ঠাকুরগাঁওয়ে রাণীশংকৈল ও বালিয়াডাঙ্গী ৪৭ টি ভাটাতে ইট পোড়ানো প্রস্তুতি সম্পন্ন হলেও আগুন জ্বালানো অনিশ্চিত ! নোয়াখালীতে ৯ টি শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম হচ্ছে- যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বাঁশখালীতে মধ্যরাতের অগ্নিকান্ডে পুড়ল ২ দোকান ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি ক্ষমতায় আসতে চায় : আসাদুজ্জামান খান কামাল। সমমনা পরিষদ বনশ্রীর বার্ষিক বনভোজন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের মতো নেতা মিলেনা : চকরিয়ায় স্মরণ সভায় এমপি জাফর

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৪ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৮৬ বার

শাহজালাল শাহেদ, চকরিয়া:: চকরিয়া-পেকুয়া আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব জাফর আলম বলেছেন, একাধিক ব্যক্তি সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম হতে পারেনা। সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম হন কেবল এক্জনই। যিনি নেতৃত্বের সবধরনের গুণাবলীর যোগ্যতা রাখতেন। এ রকম নেতার প্রয়োজনে সৈয়দ আশরাফুলের জীবনকর্মকে ধারণ করতে হবে। তিনি বলেন, মরহুম সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের মতো নেতা দেশে অন্য আরেকজন নেই। তাঁর মতো নেতা হয়না অন্য কেউ। তিনিই ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন অন্যতম কান্ডারী।
তিনি শুক্রবার ৩জানুয়ারি চকরিয়ায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ১ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। এমপি জাফর আলম বক্তব্যের শেষপ্রান্তে মরহুম আশরাফের রুহের মাগফেরাত কামনা করেন।
এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন চকরিয়া পৌর মেয়র আলমগীর চৌধুরী, সাহারবিল ইউপি চেয়ারম্যান মহসিন বাবুল, চকরিয়া পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহেদুল ইসলাম লিটু, সাধারণ সম্পাদক আতিক উদ্দিন চৌধুরী প্রমুখ ব্যক্তিবর্গ।
উল্লেখ্য, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ১৯৫২ সালের ১ জানুয়ারিতে ময়মনসিংহ শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর বাবা সৈয়দ নজরুল ইসলাম ছিলেন মুক্তিযুদ্ধকালীন মুজিবনগর সরকারের অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি ও মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক। সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম এমএ ডিগ্রি লাভ করেন। পারিবারিক ঐতিহ্যের সূত্র ধরে তিনি ছাত্রজীবন থেকেই রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন। স্বাধীনতার পর তিনি বৃহত্তর ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-প্রচার সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন।
১৯৭৫ সালের ৩ নভেম্বর কারাগারে বাবা সৈয়দ নজরুল ইসলামসহ জাতীয় চার নেতার হত্যাকাণ্ডের পর তিনি লন্ডনে চলে যান। আশরাফুল ইসলাম ১৯৯৬ সালে দেশে ফিরে আসেন এবং কিশোরগঞ্জ সদর আসন থেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়ে প্রথমবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এসময় তিনি বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম