1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
শ্রীনগরে ক্লিনিকে ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় প্রসূতি মাসহ অনাগত সন্তানের মৃত্যু,গ্রেফতার ৩ - দৈনিক শ্যামল বাংলা
রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ০৩:১৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
Mengenal Lebih Dekat Slot Fortune Dragon তীব্র গরম উপেক্ষা করে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন প্রার্থীরা “যোগ্য ব্যক্তিদের বেছে নিন”পছন্দমত প্রতিকে ভোট দিন! ঠাকুরগাঁওয়ের গড়েয়ায় জিংক সমৃদ্ধ চালের উপকারিতা বিষয়ে সচেতনতামূলক অনুষ্ঠান । ঠাকুরগাঁওয়ে টেকসই নদী ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত মতবিনিময় সভা । সাংবাদিকদের সাথে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী কাজী মোজাম্মেল হক এর মতবিনিময় চন্দনাইশে তুচ্ছ ঘটনায় সংঘর্ষে মহিলা ও শিশুসহ আহত-৫ চন্দনাইশ হাশিমপুরে চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু আহমেদ জুনুর গণ-সংযোগ ৭২ লক্ষ টাকা ব্যয়ে সেতু নির্মাণ কার স্বার্থে চন্দনাইশ বরুমতি খালের উপর ৩ সেতু আছে সংযোগ সড়ক নেই ৬৫ জন নারী কর্মী পেল ৬৭ লক্ষ ২০ হাজার টাকা  চন্দনাইশে এলজিইডি’র নারী কর্মীদের সঞ্চয় ও সনদ বিতরণ  পশ্চিম সুলতানপুর স্কুলে সর্বজনীন পেনশন স্কিম উদ্বুদ্ধকরণ সভা অনুষ্ঠিত

শ্রীনগরে ক্লিনিকে ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় প্রসূতি মাসহ অনাগত সন্তানের মৃত্যু,গ্রেফতার ৩

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
  • ১৫০ বার

আব্দুর রকিব,শ্রীনগর(মুন্সীগঞ্জ)সংবাদদাতাঃ শ্রীনগরে ক্লিনিকে ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় প্রসূতি মাসহ অনাগত সন্তানের মৃত্যুর ঘটনায় পুলিশ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। বুধবার রাতে উপজেলার ঝুমুর হল সংলগ্ন বিক্রমপুর হাসপাতাল ও ডায়াগনোষ্টিক সেন্টারে এই মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। এঘটনায় প্রসূতি লাবনী আক্তারের স্বামী মোঃ মুহিন বাদী হয়ে ক্লিনিকের মালিক স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক প্রদীপ কুমার মন্ডলকে প্রধান আসামী করে ৪ জনের বিরুদ্ধে শ্রীনগর থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ওই দিন বিকালে লৌহজং উপজেলার কনকসার এলাকার বেঁদে সম্প্রদায়ের লাবনী আক্তারকে (২৬) দ্বিতীয় সন্তান প্রসবের জন্য ক্লিনিকটিতে ভর্তি করা হয়। সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে লাবনী আক্তারকে ওটি রুমে নিয়ে যাওয়া হয়। এর এক ঘন্টা পরে ডাক্তাররা কৌশলে এম্বুল্যান্স ডেকে এনে লাবনীকে ঢাকায় পাঠানোর প্রস্তুতি শুরু করে। এসময় স্বজনরা লক্ষ করেণ লাবনী আক্তার মারা গেছেন। তারা বিষয়টি নিয়ে কথা তোললে হাসপাতালের মালিক ও ডাক্তার প্রদীপ কুমার মন্ডল সহ ৩ থেকে ৪ জন পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ এসে ওটি সহকারী সঞ্জয় রায়, নার্স রিতা আক্তার ও সুমনাকে আটক করে। লাবনী আক্তারের ৮ বছর বয়সী সন্তান রয়েছে। লাবনীর স্বজনরা জানান, সিজারের জন্য ক্লিনিকটির সাথে তাদের ১৩ হাজার টাকায় চুক্তি হয়। পরে লাবনীকে ওটি রুমে নেওয়ার আগেই বিভিন্ন অজুহাতে ক্লিনিক কতৃপক্ষ তাদের কাছ থেকে ১৭ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়। স্বজনরা আরো বলেন, ডাক্তারের ভুল চিকিৎসার কারণে লাবনীর সাথে অনাগত সন্তানটিও মারা গেল। স্থানীয়রা জানায়, কয়েক বছর ধরে দুই ভাই ডাঃ প্রদীপ কুমার মন্ডল ও দিলিপ কুমার মন্ডল মিলে ক্লিনিক খুলে বসে। ক্লিনিকটিতে প্রদীপ মন্ডল একাই এনেসথেসিয়া দেন ও অপারেশন করেন।
শ্রীনগর থানার ওসি (তদন্ত) হেলাল উদ্দিন জানান, অভিযোগের প্রেক্ষিতে মামলা গ্রহন করে ৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মামলার প্রধান আসামীকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম