1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
হাজীগঞ্জ, রামগঞ্জ ও লক্ষ্মীপুর সড়ক সংস্কার কাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ ঠিকাদার কাউসারের বিরুদ্ধে - দৈনিক শ্যামল বাংলা
বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৬:১৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে মসজিদের ছাদ ঢালাই কাজের উদ্বোধন ও শীতবস্ত্র বিতরণ বইমেলায় আসছে আছিফ রহমান শাহীনের ‘শিশু-কিশোরদের বঙ্গবন্ধু’ সড়কে কেড়ে নিল প্রাণ, বিদেশ যাওয়া হলো না আজগরের নোয়াখালীতে ৬ দাবিতে ডিপ্লোমা মেডিকেল শিক্ষার্থীদের সম্মেলন নবীগঞ্জে হামলা ও লুটপাঠের ঘটনায় কনর মিয়া ও কবির মিয়ার ২ বছরের সাজা, ৫ হাজার টাকা জরিমানা নবীনগরে ইব্রাহিমপুর ফাজিল মাদ্রাসায় সবক প্রদান অনুষ্ঠিত চাটখিল সোমপাড়া কলেজের নবীর বরন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান চৌদ্দগ্রামে ক্ল্যু-লেস অটোচালক রাসেদ হত্যার রহস্য উদঘাটন, খুনি আটক সমাজের অসহায় ও দরিদ্র মানুষেরা আমাদের আপনজন- ড. হেলাল রাজস্থলীতে অতিরিক্ত বাঁশ বোঝাই ট্রাক উল্টে প্রাণ বেঁচে গেলো চালক ও হেলপার

হাজীগঞ্জ, রামগঞ্জ ও লক্ষ্মীপুর সড়ক সংস্কার কাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ ঠিকাদার কাউসারের বিরুদ্ধে

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ৯৪ বার

আলমগীর হোসেন, লক্ষ্মীপুর :২২ কোটি টাকার বরাদ্ধের নয় ছয়। ১৯ কিলোমিটার সড়ক সংস্কার কাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ ওঠেছে। কাজের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা এমন অনিয়মের সহযোগীতা করছেন বলে পথচারীদের অভিযোগ। এতে সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে বলে দাবি করেন তারা।

জানা গেছে, সড়ক ও জনপথ বিভাগের প্রায় ১৯ কিঃমিঃ সড়ক মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণ কাজের আওতায় ২২ কোটি টাকা ব্যয়ে লক্ষ্মীপুর,হাজীগঞ্জ ও রামগঞ্জ পযর্ন্ত সড়ক মেরামতের দায়িত্ব নেয় মেসার্স ওকে এন্টারপ্রাইজ নামের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। শুরুতেই নিয়ম-নীতিকে উপক্ষার না করে সড়কটির কাজ করে আসছেন এমন অভিযোগ স্থানীয় এলাকাবাসীর।

নিয়ম অনুযায়ী প্রাইম কোট দিয়ে কার্পেটিং করার কথা থাকলেও তা না দিয়ে সামান্য বিটু মিন ব্যবহার করে কার্পেটিং এর কাজ করতে থাকে। ২৪ ঘন্টা আগে প্রাইম কোর্ট দেওয়ার নিয়ম থাকলেও তা মানা হচ্ছে না। ওই প্রকল্পের ১৮ ফুট চড়া ৮ কিলোমিটার সড়কে বেস্ট অব ওয়ান পাথর ৮০%এবং বালু মিক্স ২০% ব্যবহার করার কথা থাকলেও পাথরের পরিমান ২০% এবং বালুর পরিমাণ ৮০% দিয়ে সংস্কারে কাজ করছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানটি।
এ প্রকল্পের ব্যয় বাবত ধরা হয়েছে ৫ কোটি টাকা। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় থেকে ৬০-৭০ গ্রেডের বিটু মিন ব্যবহারের বাধ্যবাধকতা থাকলেও তা মানা হচ্ছে না। এ ছাড়া দরপত্রের শর্ত অনুযায়ী পুরুত্ব কম এবং নি¤œমানের বিটু মিন ব্যবহার করা হচ্ছে।

ব্ল্যাকটপ উল্টিয়ে পূর্ণরায় সড়কে ভেঙ্গে দেয়ার কথা থাকলেও তা না করে অন্যস্থানে নিয়ে পূর্নরায় বালু মিশ্রিত করে রাস্তায় ব্যবহারের অভিযোগ করেন স্থানীয়রা। সড়কের দু-পাশে নতুন ইট দিয়ে এজেন্ট করার নিয়ম থাকলেও রাস্তার দুই পাশের ব্যবহৃত ইট তুলে নিচের অংশ উপরে তুলে পুর্ণরায় এজিং করা হচ্ছে ওই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানটি। এদিকে কাজ চলাকালে সড়ক ও জনপথ বিভাগের দায়িত্বশীল কর্মকর্তা থাকার কথা থাকলেও কোনো কর্তব্যরত কোনো ব্যক্তি সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়নি।

গত মঙ্গলবার ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের সমন্বয়ক কাউসার হোসেনের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল করেও সাড়া পাওয়া যায়নি।
অনিয়মের বিষয়ে জানতে চাইলে লক্ষ্মীপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগের নিবার্হী প্রকৌশলী সুব্রত দত্ত বলেন,অনিয়েমরে অভিযোগে স্থানীদের কাছ থেকে অভিযোগ আসছে। এ নিয়ে ঠিকাদারের সঙ্গে আমি কথা বলেছি। সড়কের কাজ ঠিকভাবে বুঝে নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম