1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
টাকা আত্নসাতের মামলায় বাগেরহাটে সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপক কারাগারে - দৈনিক শ্যামল বাংলা
রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ০৩:১১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
ঘূর্ণিঝড় রেমাল: ঝুঁকি এড়াতে প্রস্তুত বাঁশখালী উপজেলা প্রশাসন মাগুরায় নবনির্বাচিত শ্রীপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রাজনকে গণসংবর্ধনা প্রদান হোমনায় পরিবারতন্ত্র ভাঙতে চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়ে মাঠে নেমেছি-সিদ্দিকুর রহমান আবুল হাটহাজারীতে বাসচাপায় প্রাণ গেলো দুইজনের : চালক আটক আনোয়ারায় আনারস মার্কায় নিজে এবং আত্মীয়দের ভোট দিতে ও ভোট কেন্দ্র পাহারা দিতে বললেন কাজী মোজাম্মেল চন্দনাইশে এসে পৌঁছেছে নির্বাচনী সরঞ্জাম শিক্ষকদের দাবিতে দায়সারা প্রতিবেদনের অভিযোগ; অনাস্থা কুবি শিক্ষক সমিতির চন্দনাইশে অনুমোদনহীন মাছ বাজারে প্রশাসনের অভিযান ৬ মাছ ব্যবসায়ীকে ৯০ হাজার টাকা জরিমানা ঠাকুরগাঁওয়ে পুলিশের অভিযানে ৩ মাদক ব্যবসায়ি গ্রেফতার , মাদক উদ্ধার মিশ্র ফলের বাগান ও মৎস্য প্রকল্প করে সফল রাউজান পৌর কাউন্সিলর আজাদ  

টাকা আত্নসাতের মামলায় বাগেরহাটে সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপক কারাগারে

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৩ মার্চ, ২০২০
  • ১২৭ বার

নইন আবু নাঈম বাগেরহাট ঃ
গ্রাহকদের এক কোটি এক লাখ টাকা আত্নসাতের অভিযোগের দুদকের করা মামলায় বাগেরহাট সোনালী ব্যাংকের প্রধান শাখার সাবেক ব্যবস্থাপক শেখ মুজিবর রহমানকে (৫৮) কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে বাগেরহাট জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক গাজী রহমানের আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে বিচারক তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানো নির্দেশ দেন। ব্যাংক কর্মকর্তা শেখ মুজিবর রহমান জেলার রামপাল উপজেলার বাইনতলা ইউনিয়নের চাকশ্রী গ্রামের প্রয়াত শেখ হাসান আলীর ছেলে।
দূর্নীতি দমন কমিশনের জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের (বাগেরহাট-খুলনা-সাতক্ষীরা) নিয়োগপ্রাপ্ত আইনজীবী মিলন কুমার ব্যানার্জী এই জানান, ২০১২ সাল থেকে ১৫ সাল পর্যন্ত বাগেরহাট সোনালী ব্যাংকের প্রধান শাখার ব্যবস্থাপকের দায়িত্বে থাকা অবস্থায় শেখ মুজিবর রহমান ও জেষ্ঠ্য কর্মকর্তা শেখ মাহফিজুর রহমান বাবু পরষ্পর যোগসাজসে ওই ব্যাংকের সাধারণ গ্রাহকদের রাখা এক কোটি এক লাখ ৪৫ হাজার ৬৭৯ টাকা আত্নসাত করেন। দূর্নীতি দমন কমিশন তদন্তে নেমে প্রাথমিক অনুসন্ধানে তাদের বিরুদ্ধে অর্থ আত্নসাতের সত্যতা পায়। এই ঘটনায় ২০১৯ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর দুদকের জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের উপপরিচালক মো. নাজমুল হাসান বাদী হয়ে ব্যাংক ব্যবস্থাপক শেখ মুজিবর রহমান ও জেষ্ঠ্য কর্মকর্তা শেখ মাহফিজুর রহমান বাবুর বিরুদ্ধে ১৯৪৭ সালের ২ নং দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫ (২) ধারায় মামলা করেন। এই মামলার প্রধান আসামী সাবেক ব্যবস্থাপক শেখ মুজিবর রহমান উচ্চ আদালতের জামিনে ছিলেন। মঙ্গলবার দুপুরে তিনি আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে বিচারক তার জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। অপর আসামী শেখ মাহফিজুর রহমান বাবু (৩৭) বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন।
প্রসঙ্গত, এই দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে এরআগে ২০১৫ সালের ৩ সেপ্টেম্বর বাগেরহাট সোনালী ব্যাংকের প্রধান শাখার অভ্যন্তরীণ অডিট নিরিক্ষাকালে প্রায় সাড়ে চার কোটি টাকা অর্থ আত্নসাতের তথ্য ফাঁস হয়। এরপর ঘটনা তদন্তে ব্যাংক কতর্ৃপক্ষ পৃথক দুটি কমিটি গঠন করে। অভ্যন্তরীণ অডিটে অর্থ আত্নসাতের সত্যতা মেলায় তৎকালীন শাখা ব্যবস্থাপক শেখ মুজিবর রহমান ও জেষ্ঠ্য কর্মকর্তা শেখ মাহফিজুর রহমান বাবুকে ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে ব্যাংক কতর্ৃপক্ষ সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে। এর মধ্যে ব্যাংকের জেষ্ঠ্য কর্মকর্তা শেখ মাহফিজুর রহমান বাবু আত্নসাত করা ৩৫ লাখ টাকা ফেরতও দিয়েছেন। ব্যাংকের ওই চার কোটি ৪৯ লাখ টাকা আত্নসাতের অভিযোগে ২০১৫ সালের ১ অক্টোবর সোনালী ব্যাংকের নতুন যোগদান করা ব্যবস্থাপক খান বাবলুর রহমান বাদী হয়ে ব্যাংকের জেষ্ঠ্য কর্মকর্তা শেখ মাহফিজুর রহমানের নাম উল্লেখ করে বাগেরহাট মডেল থানায় অর্থ আত্নসাত ও প্রতারণার অভিযোগে একটি মামলা করেন। ওই মামলাটিও বর্তমানে দুদক তদন্ত করছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম