1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
শামীম ওসমান অবৈধ অস্ত্র জমা দিয়েছেন মমিনউল্লাহ পাটোয়ারির কাছে! - দৈনিক শ্যামল বাংলা
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৩:২৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
শ্রীপুরে মহাসড়ক অবরোধ করে শ্রমিকদের বিক্ষোভ সৈয়দপুরে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ বদলে গেছে লালমনিরহাটের তিন বিঘা করিডোর ও দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা ছিটমহল চৌদ্দগ্রাম প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ৩ দিন ব্যাপী বার্ষিক আনন্দ ভ্রমণ সম্পন্ন চৌদ্দগ্রামে শুভ সংঘের উদ্যোগে অস্বচ্ছল নারীদের সেলাই প্রশিক্ষণের উদ্বোধন ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চললে কেউ অপরাধ করতে পারে না নবীগঞ্জে ঠাকু অনুকূল চন্দ্রের জন্মোৎসবে এসপিআর কালী চরন মন্ডল Pilot video game in Kenya ঠাকুরগাঁওয়ের বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ বীর মুক্তিযোদ্ধা তৈমুর রহমানের ইন্তেকাল ! সুবর্ণজয়ন্তী রোভার মুটে কুবি রোভার স্কাউটদের অংশগ্রহণ ঠাকুরগাঁওয়ে ২৫০কোটি টাকা ঋণের বোঝা ও শতকোটি লোকসান নিয়ে দীর্ঘদিন চালু ছিল চিনিকল

শামীম ওসমান অবৈধ অস্ত্র জমা দিয়েছেন মমিনউল্লাহ পাটোয়ারির কাছে!

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৪ মার্চ, ২০২০
  • ১১৮ বার

মাহামুদুল হাসান হৃদয় (নারায়নগঞ্জ): নতুন উপলব্ধির কথা জানাতে গিয়ে ডয়চে ভেলেকে তিনি বলেন, ‘‘আগে মনে করতাম অস্ত্রই শক্তিশালী, কিন্তু এখন বিশ্বাস করি পৃথিবীতে একমাত্র আল্লাহ শক্তিশালী৷’’

নিজের কাছে এক সময় জেলা পুলিশের চেয়েও বেশি অস্ত্র থাকার কথা বলে আবার আলোচনায় এসেছেন শামীম ওসমান ৷ তবে একদিন পরই ডয়চে ভেলের কাছে নারায়ণগঞ্জের এই আওয়ামী লীগ নেতা ও সাংসদের দাবি, আর কোনো অবৈধ অস্ত্র নেই তার কাছে ৷

রোববার নারায়ণগঞ্জ পুলিশ লাইন মাঠে পুলিশ মেমোরিয়াল ডে আলোচনা সভা ও সম্মাননা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন শামীম ওসমান সেখানে তিনি বলেন, ‘‘২০০১ সালের আগে জেলা পুলিশ ফোর্সের কাছে যত অস্ত্র না ছিল, তার থেকে বেশি অস্ত্র একা আমার নিজের কাছেই ছিল৷” অনুষ্ঠানে জেলা পুলিশ সুপার ও জেলার ডেপুটি কমিশারও উপস্থিত ছিলেন৷

ওই বক্তব্য নিয়ে সোমবার ডয়চে ভেলেকে তিনি বলেন, ‘‘আমি যা বলেছি ঠিকই বলেছি৷ তবে সময়টি হবে ১৯৯১ সাল৷ তখন আমার বয়স ছিল ২২ বছর৷ আমি ভুলে ২০০১ সাল বলে ফেলেছি৷ আমার কাছে তো অস্ত্র ছিল৷ আমরা গোলগুলি, ফাটাফাটি তো করেছি৷ এটা অস্বীকার করবো কিভাবে?’’

তিনি আরো বলেন, ‘‘আমার লাইসেন্স করা অস্ত্র আছে৷ তবে তা ২০০১ সাল থেকে আমার সাথে নাই৷’’

শামীম ওসমান সেইঅবৈধ অস্ত্র রাখার পক্ষেও যুক্তি তুলে ধরে বলেন, ‘‘১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের পর থেকে ১৯৯১ সাল পর্যন্ত আমরা অস্ত্র ব্যবহার করতে বাধ্য হয়েছি৷ কারণ, ওই সময়ে স্বাধীনতাবিরোধী, যুদ্ধাপরাধীরা এবং বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীরা সক্রিয়ভাবে রাজনীতিতে অংশ নিয়েছে৷ মিথ্যা কথা বলবো না, তখন আমরা অস্ত্র জোগাড় করতে বাধ্য হয়েছি৷ বঙ্গন্ধুকে মেরে ফেলার পর আমরা মনে করেছিলাম প্রতিশোধটা আমরা হত্যার মাধ্যমে নেবো৷ কিন্তু আমাদের এই ধারণা পরিবর্তন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা৷ তিনি বলেছেন, হত্যার মাধ্যমে প্রতিশোধ নয়, আইনের শাসনের মাধ্যমে প্রতিশোধ৷’’

১৯৯১ সালে দেশে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা ফিরে আসার পর তার আর অস্ত্রের প্রয়োজন হয়নি ৷ তাই জমা দিয়ে দেন ৷ শামীম ওসমানে এমন দাবি করে জানান, ওই সময় নারায়ণগঞ্জের এসপি ছিলেন মমিন উল্লাহ পাটোয়ারি৷ তখন তিনি ও তার সহযোগীরা পুলিশের কাছে লাইন ধরে, প্যাকেট ভরে সব অবৈধ অস্ত্র জমা দিয়েছেন৷

তিনি বলেন, ‘‘নারায়ণগঞ্জে ওই সময়ে সবচেয়ে বেশি অস্ত্র জমা পড়েছে ৷ তবে আমাদের অস্ত্র জমা দেয়ার সিদ্ধান্ত সঠিক ছলো কিনা জানি না৷ কারণ, এরপর আমাদের ওপর জুলুম হয়েছে ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত ৷’’

তিনি বলেন, ‘‘যখন অস্ত্র ছিল, তখন বয়স কম ছিল৷ তখন আমি অস্ত্রের ওপর নির্ভর করতাম৷ মনে করতাম অস্ত্রই শক্তিশাী ৷ কিন্তু এখন আমি বিশ্বাস করি অস্ত্র শক্তিশালী না, একজনই শক্তিশালী, তিনি হচ্ছেন আল্লাহ ৷’’

নারায়ণগঞ্জে অস্ত্রের রাজনীতির এখনকার পরিস্থিতি জানতে চাইলে শামীম ওসমান দাবি করেন, ‘‘নারায়ণগঞ্জে এখন আর কোনো অস্ত্রের রাজনীতি নেই৷ এখানে সবচেয়ে বেশি শান্তি বিরাজ করছে৷ বিভিন্ন সময়ে আমাদের ৫০ জন নেতা-কর্মীকে হত্যা করা হয়েছে ৷ জবাবে আমরা একটা ফুলের টোকাও দেইনি৷ আমার ওপরে বোমা হামলা হয়েছে, আল্লাহ বাঁচিয়েছে ৷ আর কোনো দলের রাজনীতি করতে কোনো বাধা নেই৷ নারায়ণগঞ্জের মানুষ সন্ত্রাসী নয়৷ যারা সন্ত্রাস করে, তারা বহিরাগত৷’’

শামীম ওসমানকে আজকাল বিভিন্ন ওয়াজ মাহফিলে যেতে দেখা যায়৷ হেফাজতের সাথেও তার ঘনিষ্ঠতার কথা শোনা যায় ৷ এ নিয়ে তিনি বলেন, ‘‘ধর্মের যাতে অপব্যাখ্যা না দেয়া হয় সে কারণে আমি ওয়াজ মাহফিলে যাই৷’’

তিনি আরো বলেন, ‘‘আমি খারাপ কিছু খাই না৷ খারাপ কিছু করি না৷ আমি ফেরেস্তা নই, তবে মানুষ হিসেবে যে কাজ করায় নিষেধ আছে তা আমি করি না৷’’

শামীম ওসমান নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক৷ বর্তমানে নগর আওয়ামী লীগের সদস্য তিনি৷ নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান এর আগেও দু’বার সংসদ সদস্য ছিলেন৷

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম