1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
শ্রীনগরে হত দরিদ্রের মাঝে চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ - দৈনিক শ্যামল বাংলা
রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ০২:৩৩ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
Mengenal Lebih Dekat Slot Fortune Dragon তীব্র গরম উপেক্ষা করে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন প্রার্থীরা “যোগ্য ব্যক্তিদের বেছে নিন”পছন্দমত প্রতিকে ভোট দিন! ঠাকুরগাঁওয়ের গড়েয়ায় জিংক সমৃদ্ধ চালের উপকারিতা বিষয়ে সচেতনতামূলক অনুষ্ঠান । ঠাকুরগাঁওয়ে টেকসই নদী ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত মতবিনিময় সভা । সাংবাদিকদের সাথে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী কাজী মোজাম্মেল হক এর মতবিনিময় চন্দনাইশে তুচ্ছ ঘটনায় সংঘর্ষে মহিলা ও শিশুসহ আহত-৫ চন্দনাইশ হাশিমপুরে চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু আহমেদ জুনুর গণ-সংযোগ ৭২ লক্ষ টাকা ব্যয়ে সেতু নির্মাণ কার স্বার্থে চন্দনাইশ বরুমতি খালের উপর ৩ সেতু আছে সংযোগ সড়ক নেই ৬৫ জন নারী কর্মী পেল ৬৭ লক্ষ ২০ হাজার টাকা  চন্দনাইশে এলজিইডি’র নারী কর্মীদের সঞ্চয় ও সনদ বিতরণ  পশ্চিম সুলতানপুর স্কুলে সর্বজনীন পেনশন স্কিম উদ্বুদ্ধকরণ সভা অনুষ্ঠিত

শ্রীনগরে হত দরিদ্রের মাঝে চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৬ মার্চ, ২০২০
  • ১৪৪ বার

আব্দুর রকিব,শ্রীনগর (ম্সুীগঞ্জ) সংবদদাতা ঃ মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে হত দরিদ্রের মাঝে চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ২৭ মার্চ বৃহস্পতিবার উপজেলার বাঘড়া বাজারে ন্যাশনালব্যাংক সংলগ্ন ইউপি চেয়ারম্যান নূরুল ইসলামের মার্কেটে সরেজমিনে এ চাল বিতরণের অনিয়ম চোখে পরে। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সরকার সারাদেশে লকডাউন করায় দিনমজুর থেকে শুরু করে নানা শ্রেনি পেশার মানুষ কর্মহীন হয়ে পরেছেন। তাই সরকার হত দরিদ্রদের মাঝে চাল বিতরণের সিদ্ধান্ত নেন। এরই অংশ হিসেবে বাঘড়ায় হতদরিদ্রদের মাঝে চাল বিতরণের জন্য ৫৪০ টি কার্ড দেওয়া হয়। দেশের চরম দুর্যোগ মুহুর্তে বাঘড়া ইউপি চেয়ারম্যান ঢাকায় অবস্থান করায়, তার ছোট ভাই মুক্তি হোসেন ও ডিলার হোসেন আলীর যোগসাজশে ট্যাগ অফিসারকে অনুপস্থিত রেখে হতদরিদ্রের কাছ থেকে কার্ড প্রতি নেওয়া হয়েছে ৫০ টাকা। প্রতি কার্ড হোল্ডারের কাছ থেকে ৩০ কেজির দাম নিয়ে তাদেরকে ২ কেজি করে চাল কম দেওয়া হয়েছে বলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ভূক্তভোগীর অভিযোগ থেকে জানাযায় এসব কথা। এছারা স্বচ্ছল পরিবারের মধ্যে দেওয়া হয়েছে একাধিক কার্ড। অনিয়ম বিষয়ে ডিলার মোঃ হোসেন আলী বলেন, আমি এইবার নতুন ডিলার। ট্যাগ অফিসার কি? তা জানিনা। এ বিষয়ে বাঘড়া ইউপি চেয়ারম্যান নূরুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি ঢাকায় আছি। চাল বিতরণের বিষয়টি প্রথমে তিনি অস্বিকার করলেও পরে বলেন, হত দরিদ্রদের চাল বিতরণে অনিয়ম হয়ে থাকলে, ইউএনও সাব আছে, ট্যাগ অফিসার আছে তারা দেখবে।
এ ব্যপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসাম্মৎ রহিমা আক্তার বলেন, কেউ অনিয়ম করে থাকলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। উল্লেখ্য যে, গত ২০১৯ সালে নভেম্বর মাসেও বাঘরা ইউপি চেয়ারম্যানের যোগসাজশে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর ২৪০ বস্তা চাল কালোবাজারে বিক্রি করে দেয় সংশ্লিস্ট ডিলার।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম