1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : naga5000 : naga5000 naga5000
নবীগঞ্জে সাংবাদিকদের উপর হামলার ঘটনায় ২৫জনের উপর মামলা মুলহোতা চেয়ারম্যানকে গ্রেফতার করতে বিভিন্ন স্থানে চিরুনী অভিযান গ্রেফতার ১ - দৈনিক শ্যামল বাংলা
মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ১০:৪৭ পূর্বাহ্ন

নবীগঞ্জে সাংবাদিকদের উপর হামলার ঘটনায় ২৫জনের উপর মামলা মুলহোতা চেয়ারম্যানকে গ্রেফতার করতে বিভিন্ন স্থানে চিরুনী অভিযান গ্রেফতার ১

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৩ এপ্রিল, ২০২০
  • ১৬১ বার

নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ মোঃ হাবিবুর রহমান চৌধুরী শামীম :
নবীগঞ্জে তিন সাংবাদিককে মারধরের ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান মহিবুর রহমান হারুনকে প্রধান আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে সাংবাদিক এম মুজিবুর রহমান বাদি হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। মামলার দায়ের পর পরই পুলিশ চেয়ারম্যান কে গ্রেফতার করতে মিনাজপুর গ্রামসহ বিভিন্ন স্থানে চিরুনী অভিযান চালায়। চেয়ারম্যান ছাড়াও মামলায় আরও ১০ জনের নাম উল্লেখ করে ২০/২৫জনকে আসামি করে মামলা করা হয়েছে। এরই প্রেক্ষিতে রাতেই অভিযান চালিয়ে পুলিশ মামলার আসামী অরবিট হসপিটালের ম্যানাজার খালেদ আহমেদ নামের এক হামলাকারীকে গ্রেফতার করেছে । এর আগে একাধিক স্থানে অভিযান চালিয়েও প্রধান আসামী মহিবুর রহমান হারুনকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।
উল্লেখ্য, আউশকান্দি ইউনিয়নে নিম্ন আয়ের মানুষদের ১০ কেজি করে চাল দেওয়ার কথা থাকলেও ইউপি চেয়ারম্যান তাদের দেন ৫ কেজি করে। এ নিয়ে গত ৩০ মার্চ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ‘আসুন অসহায় দিন মজুরদের মনের কথা শুনি’ শিরোনামে এক লাইভে সাধারণ মানুষের বক্তব্যসহ অনিয়মের বিষয়টি তুলে ধরেন সাংবাদিক শাহ সুলতান আহমদ। স্থানীয়রা বলেন, এতে ক্ষিপ্ত হয়ে গত বুধবার বিকেলে ২০/২৫ জন সন্ত্রাসী নিয়ে দেশীয় অস্ত্র সহকারে আউশকান্দি বাজাওে সাংবাদিক শাহ সুলতান আহমেদের ওপর সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়। এসময় ইউপি চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান হারুন নিজেই ক্রিকেট খেলার ব্যাট দিয়ে পিটিয়ে আহত করেন সুলতানকে। এ খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করতে গেলে সাংবাদিক এম মুজিবুর রহমান ও বুলবুল আহমেদকেও মারধর করে সন্ত্রাসীরা। পরে স্থানীয় লোকজন শাহ সুলতানকে উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সে নিয়ে যান। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। এ ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে সাংবাদিক মুজিবুর রহমান বাদী হয়ে ইউপি চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান হারুনকে প্রধান আসামি করে ১০ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। এ নিয়ে থানার ওসি মোঃ আজিজুর রহমান বলেন, হামলাকারীদের গ্রেতারের চেষ্টা চলছে। ইতিমধ্যে একজন আসামী গ্রেফতার হয়েছে। এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ সরওয়ার শিকদার বলেন, সাংবাদিকদের ওপর হামলার ঘটনায় দ্রæত প্রধান আসামী চেয়ারম্যান হারুনসহ অপর আসামিদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশের কাছে দাবি জানিয়েছি। এ দিকে নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে প্রদত্ত এক বিবৃতিতে এই ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন এবং দ্রুত সময়ের মধ্যে চেয়ারম্যান হারুনসহ সকল আসামীকে গ্রেফতারের জোর দাবী জানানো হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম