1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
অসহায় নিরন্ন, ক্ষুধার্ত শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ান : আ ন ম শামসুল ইসলাম - দৈনিক শ্যামল বাংলা
সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:০৮ অপরাহ্ন

অসহায় নিরন্ন, ক্ষুধার্ত শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ান : আ ন ম শামসুল ইসলাম

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৪ মে, ২০২০
  • ১২৬ বার

নিজস্ব প্রতিনিধি :
বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাবেক এমপি আ ন ম শামসুল ইসলাম এক বিবৃতিতে শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের সকল শাখা ও শিল্পাঞ্চলকে করোনাভাইরাস সংক্রমন পরিস্থিতিতে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় ও কর্মহীন হয়ে পড়া নিম্নআয়ের মানুষের প্রতি এবং নিরন্ন, ক্ষুধার্ত শ্রমিকদের পাশে দাড়ানোর মাধ্যমে শ্রমজীবী মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠায় ১ লা মে আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস পালন করার জন্য আহবান জানিয়েছেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার দেয়া বিবৃতিতে তিনি ফেডারেশনের সকল শাখাসহ সর্বস্তরের শ্রমজীবী, পেশাজীবী ও ট্রেড ইউনিয়ন সংগঠন সমূহের প্রতি ১মে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করার জন্য আহবান জানিয়ে বলেন, ঐতিহাসিক ১মে আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস। বিশেষ করে শ্রমজীবী মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলন সংগ্রামের প্রতীকি দিবস। বাংলাদেশসহ দুনিয়ার সকল অধিকার বঞ্চিত মানুষের লড়াইয়ে মে দিবস এক অনন্য প্রেরণা। কিন্তু এবারের মহান মে দিবস এক ভিন্ন প্রেক্ষাপটে উদযাপিত হচ্ছে। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে গোটা বিশ্ব এখন বিপর্যস্ত। ধনী বা দরিদ্র, উন্নত বা উন্নয়নশীল, ছোট বা বড় সব দেশই আজ কমবেশি নভেল করোনা নামক এক ভয়ঙ্কর ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত। আমাদের প্রাণপ্রিয় বাংলাদেশও এ সংক্রমণ থেকে মুক্ত নয়। এ পরিপ্রেক্ষিতে জনস্বাস্থ্যের কথা বিবেচনা করে জনসমাগম হয় এমন সব ধরনের অনুষ্ঠানের আয়োজন থেকে সরকার সবাইকে বিরত থাকার অনুরোধ জানিয়েছে।আর এই মুহূর্তে আমাদের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার শ্রমিকদের এই প্রাণঘাতী ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে রক্ষার্থে বিগত বছরগুলোর মত এবারের মহান মে দিবসের কর্মসূচি পালন থেকে বিরত থেকে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় ও কর্মহীন হয়ে পড়া নিম্নআয়ের মানুষের প্রতি এবং নিরন্ন, ক্ষুধার্ত শ্রমিকদের পাশে দাড়ানোর মাধ্যমে ১ লা মে আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস পালন করার সিন্ধান্ত নিয়েছি।
তিনি আরো বলেন, শিকাগোর সংগ্রামের ১৩৩ বছর পেরিয়ে গেলেও আজও শ্রমিক তার মজুরি, কর্মঘণ্টা ও কর্মের জন্য আন্দোলন-সংগ্রাম করতে হচ্ছে। আমাদের দেশের শ্রমজীবী মানুষের রাষ্ট্রীয়, সামাজিক, অর্থনৈতিক কোনো ক্ষেত্রেই তাদের মর্যাদা বা অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়নি। হয়নি জীবনযাত্রার মানের উন্নতি। শ্রমিক-কর্মচারীরা এখনো তাদের শ্রমের ন্যায্য মজুরি ও ন্যূনতম মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত।

তিনি আরো বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে বুঝা যায় শ্রমিকরা কতটা অসহায়। তাদের স্বাস্থ্য অধিকার কতটুকু প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। করোনাভাইরাস এর মধ্যে মানুষের নিজের জীবন বাঁচানোর তাগিদে সহায়-সম্পত্তির মায়া ত্যাগ করে সরকারি সিদ্ধান্ত মেনে নিয়ে ঘরে থাকার চেষ্টা করছে তখন মালিকরা নিজেদের ব্যবসায়িক মুনাফা বহুগুণ বৃদ্ধি করার সুযোগের সর্বোচ্চ ব্যবহারের স্বার্থে শ্রমিকদেরকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করার ও বকেয়া বেতন পরিশোধ না করার ভয় দেখিয়ে ভীতি প্রদর্শন করে গ্রাম থেকে ফ্যাক্টরিতে এসে কাজ করার জন্য নির্দেশ জারি করছে। যা একপ্রকার কাজে যোগদানের জন্য বাধ্য করা। কাজেই বলা যায়,আমাদের দেশে শ্রমিকদের অধিকার আজও সুপ্রতিষ্ঠিত নয়।

জনাব শামসুল ইসলাম বলেন, তাই আজ আমাদের ভাবতে হবে শিকাগোর অধিকার আদায়ের সংগ্রামের ১৩৩ বছর পেরিয়ে গেলেও শ্রমিক কেনো তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত। কেনো আজও সেই আন্দোলন করতে হচ্ছে তাদের। প্রকৃতপক্ষে পৃথিবীর যেখানেই শ্রমিকদের জন্য আইন তৈরি হয়েছে সেখানেই শাসক গোষ্ঠী তাদের স্বার্থ রক্ষা করেই আইন তৈরি করার চেষ্টা করেছেন। ফলে আইনের পোশাক পরে তারা বারবার কেবল ধোঁকাই দিয়ে যাচ্ছেন শ্রমিকদেরকে।

শুধুমাত্র, শ্রমিকের অধিকারের ব্যাপারে ইসলাম যে রূপ রেখা দিয়েছে তা কিয়ামাত পর্যন্ত শ্রেষ্ঠত্বের আসনে থাকবে। কারন রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, তোমরা শ্রমিকের শরীরের ঘাম শুকাবার আগেই তার মজুরী দিয়ে দেবে। এর থেকে আর সুন্দর নীতি পৃথীবির মানুষের পক্ষে তৈরি করা সম্ভব নয়। যা শুধু দিতে পারে ইসলামী শ্রমনীতি। যে শ্রমনীতিই মূলত শ্রমিক ও মেহনতি মানুষকে দেখিয়েছিলো প্রকৃত মুক্তির পথ। শ্রমিক ও মালিকের সম্পর্ক এবং দুপক্ষের কর্তব্য ও অধিকার ন্যায়নীতি ও সমতার মাপকাঠি।

তাই তিনি অসহায় খেটে খাওয়া শ্রমজীবী মানুষদের উদ্ধারে ১মে আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের মধ্য দিয়ে শ্রমজীবী মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ইসলামী শ্রমনীতি বাস্তবায়নের শপথ নিতে শ্রমজীবী মানুষের প্রতি উদ্দাত্ত আহবান জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম