1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
এবার রাঙ্গাবালীতে মুগ ডালের বাম্পার ফলন হয়েছে - দৈনিক শ্যামল বাংলা
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:০৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
নবীনগরে ফসল কর্তন উৎসব ও কৃষক সমাবেশ অনুষ্ঠিত Mostbet Partners Mostbet Sports Betting & & Online Casino Associate Program Reviews বাঁশখালীতে মধ্যরাতে অগ্নিকান্ডে পুড়েছে চার দোকান ফাঁসিয়াখালী-মেদাকচ্ছপিয়া পিপলস ফোরাম (পিএফ) সাধারণ কমিটির সভা সম্পন্ন চৌদ্দগ্রামে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উদযাপন চৌদ্দগ্রামে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা ফের ৩দিন ক্লাস বর্জনের ঘোষণা কুবি শিক্ষক সমিতির নবীনগরে পৃথক মোবাইল কোর্ট অভিযানে সাড়ে ৪ লাখ টাকা জরিমানা দৈনিক আমাদের চট্টগ্রামের সম্পাদক মিজানুর রহমান চৌধুরী উপর হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী ঠাকুরগাঁওয়ে রানীশংকৈলে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মাঠে নেমেছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা

এবার রাঙ্গাবালীতে মুগ ডালের বাম্পার ফলন হয়েছে

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৬ জুন, ২০২০
  • ৮৭ বার

মাহমুদুল হাসান, রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী)প্রতিনিধি :
পটুয়াখালী জেলার রাঙ্গাবালীতে এবার মুগ ডালের বাম্পার ফলন হয়েছে। যা গতবছরের তুলনায় অনেক বেশি। ঘূর্ণিঝড় আম্পানের আগেই কৃষক শতকরা ৮০% মুগ ডাল ঘরে তুলে নিয়েছে আম্ফানে ডালের তেমন একটা ক্ষতি হয়নি।

এবং আম্ফানের পরে যে কোন মুহূর্তে বর্ষা আসতে পারে, সে আশঙ্কাতেও কৃষক কড়া রোদের কারণে ঐ ২০% মুগ ডাল ঘরে উঠাতে অনেকে দ্রুত ক্ষেত থেকে ডাল তোলায় ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। তাই মুগ ডালের ক্ষেতগুলোতে তখন কৃষক, কৃষাণী ও শিশু বাচ্চাদের ভিড় যেন উপচে পড়ছে। যেখানে চোখ যায়, সেখানেই দেখেছি নারীরা মুগ ডাল তোলায় ব্যস্ত সময় পার করেছে।

তবে রাঙ্গাবালী উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নে গত কয়েক বছরের তুলনায় এ বছর মুগ ডাল চাষের জমির পরিমাণ দিন দিন বাড়তেছে,গত বছরের তুলনায় বাজারে মুগ ডালের দাম কমেনাই বরংচ এবছর দুই থেকে তিনশ টাকা দাম বেশি আছে ।

রাঙ্গাবালী উপজেলার বড়বাইসদিয়া ইউনিয়নের সামচাঁদ গ্রামের কৃষক শাকিল সিকদার জানান, মুগ ডাল আবাদে খরচ কম, দাম পাওয়া যায় ভাল। এ বছর তিনি ২ একর জমিতে মুগ ডাল আবাদ করেছেন। খরচ হয়েছে মোট ৯,৫০০ হাজার টাকা। এখান থেকে তিনি ১০ মণ ডাল পাবেন। বিক্রি হবে ৩২ থেকে ৩৫ হাজার টাকা।

মৌডুবী ইউনিয়নের কাজিকান্দা গ্রামের কৃষক মনির মোল্লা জানান, বন্যার আগেই ক্ষেত থেকে ৮০% ডাল ঘরে তুলেছি। আম্পানের প্রভাব আমাদের মুগ ডাল ক্ষেতের উপর পরেনাই তাই বাকি সব ডালগুলো বৃষ্টি হওয়ার আগেই ক্ষেতে বাড়তি লোক নামিয়ে উঠাইছি। আমি ৭ একর জমিতে মুগ ডাল দিয়েছি আমার খরচ হয়েছে প্রায় ৪০ হাজার টাকা আমার ডাল হয়েছে প্রায় ৫০ মনের বেশি গত বছরের তুলনায় এ বছর দুই থেকে তিনশ টাকা মন প্রতিবেশী এতে আমার দিকে নামতে পারে ১ লক্ষ ৫০ হাজার থেকে ১লক্ষ ৭০ হাজারের মতো এবছর মুগ ডাল দিয়ে আমি লাব মানে আছি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম