1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
নাঙ্গলকোটে করোনা উপসর্গে নিহত -৪, সুস্থ হয়েছেন করোনা আক্রান্ত ৩ স্বাস্থ্যকর্মীসহ ৬ জন - দৈনিক শ্যামল বাংলা
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৫:৩৭ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
এখনো প্রত্যন্ত চর অঞ্চলে মহিষের পাল ছাড়িয়ে রাঁখাল ওকি গাড়িয়াল ভাই এর গানের সুর তুলেন তার বাঁশিতে!!! চৌদ্দগ্রামে দৈনিক দেশ রূপান্তর এর ৫ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত শ্রীপুরে মহাসড়ক অবরোধ করে শ্রমিকদের বিক্ষোভ সৈয়দপুরে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ বদলে গেছে লালমনিরহাটের তিন বিঘা করিডোর ও দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা ছিটমহল চৌদ্দগ্রাম প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ৩ দিন ব্যাপী বার্ষিক আনন্দ ভ্রমণ সম্পন্ন চৌদ্দগ্রামে শুভ সংঘের উদ্যোগে অস্বচ্ছল নারীদের সেলাই প্রশিক্ষণের উদ্বোধন ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চললে কেউ অপরাধ করতে পারে না নবীগঞ্জে ঠাকু অনুকূল চন্দ্রের জন্মোৎসবে এসপিআর কালী চরন মন্ডল Pilot video game in Kenya ঠাকুরগাঁওয়ের বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ বীর মুক্তিযোদ্ধা তৈমুর রহমানের ইন্তেকাল !

নাঙ্গলকোটে করোনা উপসর্গে নিহত -৪, সুস্থ হয়েছেন করোনা আক্রান্ত ৩ স্বাস্থ্যকর্মীসহ ৬ জন

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৭ জুন, ২০২০
  • ১১৮ বার

নিজস্ব প্রতিবেদক :
নাঙ্গলকোটে দুই দিনের ব্যবধানে করোনা উপসর্গ জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে চারজন নিহত হয়েছে। শুক্রবার ও শনিবার রাতে তাদের মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। রবিবার ও শনিবার বিকেলে নমুনা সংগ্রহ ছাড়া বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইড লাইন অনুযায়ী করোনাসহ বিভিন্ন অসুস্থতায় দাফনে নিয়োজিত মানবিক সংগঠন পেড়িয়া ইউনিয়ন ওলামা পরিষদ স্বাস্থ্যবিধি মেনে নিহতদের দাফন সম্পন্ন করেন।

করোনা উপসর্গ জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে শুক্রবার রাতে নিহতেরা হলেন, উপজেলার পেড়িয়া ইউনিয়নের উত্তর শাকতলী গ্রামের সর্দার বাড়ির মৃত আসলাম হোসেনের ছেলে আলমগীর ড্রাইভার (৩৫), পৌরসভার বাতুপাড়া গ্রামের আবুল হাশেমের স্ত্রী রহিমা বেগম (৬৫)। রহিমা বেগম ঢাকার মিরপুর মারা যায়। পরে গ্রামের বাড়িতে এনে লাশ দাফন করা হয়।

শনিবার রাতে নিহতরা হলেন, উপজেলার আদ্রা দক্ষিণ ইউনিয়নের পদুয়া গ্রামের মীর হোসেনের ছেলে অটোচালক জাহাঙ্গীর আলম (৩৫) এবং মক্রবপুর ইউনিয়নের বাননগর দক্ষিণপাড়া গ্রামের সাগর হোসেনের ছেলে আলমগীর হোসেন (২৫)।

আদ্রা দক্ষিণ ইউনিয়নের ইউপি সদস্য আবুল বশর বলেন, জাহাঙ্গীর আলমের জ্বর হয়ে ভালো হওয়ার পর সে অটো চালানোসহ স্বাভাবিক কাজকর্ম করে আসছিল। শনিবার সন্ধ্যায় বুকে ব্যাথা ও শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে লাকসাম হাসপাতালে নেয়ার পথে সে মারা যায়। মক্রবপুর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য ছোয়াব মিয়া বলেন, আলমগীর হোসেন শনিবার সন্ধ্যায় চট্রগ্রাম থেকে বাড়ি আসার পর রাতে হঠাৎ বুকে ব্যাথা দেখা দিলে নাঙ্গলকোট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে সে মারা যায়।

এদিকে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ ঢাকা আইইডিসিআরের নির্দেশনা অনুযায়ী করোনা পজিটিভ শনাক্ত ৬ জনের ১৪ দিনের হোম আইসোলেশন শেষে দ্বিতীয় ও তৃতীয়বার নমুনা সংগ্রহ করে নেগেটিভ ফলাফল পাওয়ার পর ৬ জনকে সুস্থ ঘোষণা করেন। তারা হলেন, উপজেলার রায়কোট দক্ষিণ ইউনিয়নের পূর্ববামপাড়া গ্রামের মৃত আবদুল করিমের স্ত্রী রশিদা আক্তার ও পুত্রবধু সুমি আক্তার, ঢালুয়া ইউনিয়নের চিওড়া গ্রামের ও নাঙ্গলকোট বেসরকারি নিউ এ্যাপোলো হাসপাতালের মার্কেটিং কর্মকর্তা এনায়েত উল্ল্যা। অন্য তিন জন হলেন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সেনিটারী ইন্সপেক্টর এবায়দুল হক, সিনিয়র স্টাফ নার্স নাছরিন আক্তার ও উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ দেব দাস দেবের গাড়ি চালক আজহারুল ইসলাম।

করোনা আক্রান্তদের লাশ দাফনে নিয়োজিত মানবিক সংগঠন পেড়িয়া ইউনিয়ন ওলামা পরিষদের হাফেজ মাওলানা জাকির হোসাইন বেলালী বলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশ পেয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে আমরা লাশগুলো দাফন করি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার লামইয়া সাইফুল বলেন, স্থানীয়রা নিহতদের ব্যাপারে বলেছেন, কিডনি, হার্ট, লিভারের সমস্যা ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে তারা মারা গেছেন। পরীক্ষা ছাড়াতো করোনায় মারা গেছেন বলা যাবে না। তারপরও আমরা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইড লাইন অনুযায়ী আমাদের লাশ দাফনে নিয়োজিত টিম পাঠিয়ে তাদের দাফন সম্পন্ন করেছি। কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাব মেশিন বন্ধ থাকায় তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়নি। তাদের পরিবারের সদস্যদের নমুনা সংগ্রহ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম