অনিক শুভ'র সাড়া জাগানো বই - শ্যামল বাংলা ডট নেট

অনিক শুভ’র সাড়া জাগানো বই

শ্যামল বাংলা ডেক্স

শেয়ার করুন
  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    4
    Shares

১। রাক্ষসের কবলে রাজকন্যা:
রাজকন্যা ‘পূ’ দক্ষিণের এক বিশাল বনে ভ্রমণে বের হয়েছে। সুন্দর ঐ বনে হঠাৎ দেখতে পেল এক সাতরঙের খরগোশ। ‘পূ’ খরগোশটাকে ধরার জন্য পিছু পিছু ছুটল। ছুটতে ছুটতে খরগোশ লুকালো এক ঝোপের আড়ালে। ‘পূ’ ধীর পায়ে যেই খরগোশকে ধরতে যাবে ঠিক তখনই সাতরঙের খরগোশ এক ভয়ংকর রাক্ষসের রূপ ধারণ করলো । সে তার অপেক্ষার ফল ১০১তম রাজকন্যা ‘পূ’ কে বলি দিয়ে ধরণীর সবচেয়ে ভয়ংকর রাক্ষস হতে চায়।

এইদিকে রাজকন্যা ‘পূ’ কে রাক্ষসের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য অনেক সাহসী রাজপুত্র এক এক করে গেল দক্ষিণের বনের রাক্ষসপুরীতে। কিন্তু কেউ আর ফিরে এল না।

মজাদার এই গল্পের বইটি এখনি অর্ডার করুন => https://www.rokomari.com/book/153166/rakkhoser-kobole-rajkonna
.
২। বিজ্ঞানী রুদ্র ও টিকটিকির লেজ:

শুধু টিকটিকি নয়, এই রকম আরো কিছু প্রাণীর লেজের অংশে ‘প্যারেনকাইয়া’ নামে এক জাতীয় কোষের অস্তিত্ব থাকে। এ কোষ গুলো সুষংঘবদ্ধ ভাবে থাকে না। এরা পরস্পরের সাথে আলতোভাবে লেগে থাকে। এছাড়া ও থাকে এক পুনর্ঘটন কোষ। এরা প্যারেনকাইয়া’র ফাঁক দিয়ে অনায়াসে যাতায়াত করে। আর তাই টিকটিকির লেজ খসে গেলে ওই পুনর্ঘটন কোষ থাকায় আবার নতুন অঙ্গ গজিয়ে ওঠে। রুদ্র ভাবছে অন্যভাবে। লেজের ওপর শত্রুর আঘাত লাগলে লেজ খসে পড়া স্বাভাবিক। কিন্তু টিকটিকি কেন লেজ নিজে নিজে খসায়? এ নিয়ে শুরু হল রুদ্রের এক্সপেরিমেন্ট। যখনই আশে পাশে টিকটিকি দেখে, তখনই সেটাকে ধরতে চায়। কিন্তু প্রতিবারই টিকটিকি চোখ ফাঁকি দিয়ে লেজ খসিয়ে পালিয়ে যায়। মাঝে মাঝে স্কুল ও বাসায় প্রায় লেজ ছাড়া অনেক টিকটিকিই দেখা যায়। যার একমাত্র কারণ হল রুদ্রের এক্সপেরিমেন্ট।

✍️ তিন বন্ধুর ছাগল এক্সপেরিমেন্ট:

শুকনো পাতা চিবানোর শব্দে শফিক আর পলাশের হাসি থেমে গেল। এতক্ষণ যারা ছাগলের খাওয়া নিয়ে উপহাস করছিল তারা এখন বিস্ময়ে ছাগলের খাওয়া দেখছে। রবিন এইবার বুক ফুলিয়ে বলছে:

– কিরে? ছাগল নাকি শুকনো পাতা খাবে না। এখন দেখলি তো? খাচ্ছে নাকি খাচ্ছে না।
শফিক আর পলাশ চুপ করে আছে একদম। হঠাৎ শফিক কিছু না বলেই মাঠের পাশে পরে থাকা একটা শক্ত কাগজ নিয়ে বলল:
– এখন দেখব ছাগলে এই শক্ত কাগজ কেমনে খায়।
– ছাগল যখন শুকনো পাতা খেয়েছে তার মানে কাগজও খাবে।
পলাশ বলল, ‘দেখা যাবে সেটা। শফিক তুই আগে ছাগলটাকে কাগজটা খেতে দে’।

শফিক যেই কাগজটা ছাগলের মুখের কাছে নিল, ছাগলটা মুখে নিয়ে চিবানো শুরু করে দিল। একপর্যায়ে পুরো কাগজটায় খেয়ে ফেলল।

তিন বন্ধুর এই ছাগল এক্সপেরিমেন্টের আলাপ-আলোচনাগুলো প্রথম থেকেই পর্যবেক্ষণ করছিল এলাকার বড় ভাই রিফাত জাকির। তিনি দূর থেকেই সব দেখে যাচ্ছেন তিন বন্ধুর কা-কারখানা। শফিককে কাগজ কুঁড়িয়ে নিয়ে যেতে দেখে এবং সেই কাগজ ছাগলকে খেতে দিতে দেখে তিনি আর চুপ করে বসে রইলেন না। সোজা হাঁটা শুরু করলেন ওদের দিকে।

✍️ দোয়েলের পরীক্ষা ভীতি:

বার্ষিক পরীক্ষা দরজায় কড়া নাড়ছে। হঠাৎ পরীক্ষার আগের রাতে দোয়েলের বুক ব্যাথ্যা, বুক ধড়ফড় ও খিঁচুনি শুরু হল। তাড়াতাড়ি পাশের এক পরিচিত ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাওয়া হল। তিনি বললেন, “রোগীর হার্ট একটু দুর্বল, এবার পরীক্ষা দেওয়ার দরকার নেই।”
এরপর মোটামুটি ভালোই দোয়েলের সময় কাটতে লাগলো। এখন আবার মনোযোগ দিয়ে পড়াশুনাও করছে। মায়ের কথা মতোও চলছে। স্কুল এবং প্রাইভেট টিচারের সব পড়া সময়মত শেষ করে। কিন্তু যখনই পরীক্ষার সময় নিকটবর্তী হয় তখন আবার ঐ একই ধরণের লক্ষণ। এভাবে দু’বছর কেটে গেল দোয়েলের। পরীক্ষা দিতে পারে না।

✍️ লাশচুরি:

আমাদের মনে হয় প্রেত সাধনার জন্য বজ্জ্রপড়া কঙ্কাল লাগবে। হয় তো সে জন্য এখনো অলৌকিক ক্ষমতা অর্জন করতে পারি নি।
– ঠিক বলেছিস। বজ্জ্রপড়া মানুষের বডিতে যে প্রাকৃতিক ম্যাগনেট সৃষ্টি হয়, সেই ম্যাগনেট বডি দিয়ে প্রেত সাধনা চালিয়ে যাব। আমাদের লক্ষ্যে পৌছে যাব। হয়ে যাব পৃথিবীর শক্তিশালী এক কর্ণধর।
– তাহলে আমাদের সবাইকে বলে দিচ্ছি চারপাশে খোঁজ রাখার জন্য। যাতে বজ্জ্রপড়ে কেউ মারা গেলে, সবার অগোচরে সে বডি আমাদের এই তন্ত্রমন্ত্র সম্ভার কক্ষে নিয়ে আসা হয়।

এরকম আটটি বিজ্ঞানগল্প নিয়ে সাজানো হয়েছে “বিজ্ঞানী রুদ্র ও টিকটিকির লেজ” বিজ্ঞানগল্প গ্রন্থটি।
এখনি অর্ডার করুন => https://www.rokomari.com/book/158313/bigganir-rudro-o-tiktikir-lej
.
শিশুসাহিত্যিক ও বিজ্ঞানলেখক অনিক শুভ’র অন্যান্য বইগুলো অর্ডার করুন: www.rokomari.com/anik অথবা কল করুন 📞 16297 নম্বরে।


শেয়ার করুন
  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    4
    Shares
  •  
    4
    Shares
  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.