নোয়াখালীতে শিক্ষককে লাঞ্চিত করার অভিযোগে ইউএনও প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মাহবুবুর রহমান : নোয়াখালীর হাতিয়া দ্বীপ সরকারী কলেজের এক শিক্ষককে লাঞ্চিত করার অভিযোগে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার প্রত্যাহারের দাবিতে উপজেলা পরিষদ চত্তরে বিক্ষোভ করেছে শিক্ষকরা।

এর আগে গত বুধবার থেকে একই দাবীতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করে আসতেছে ছাত্ররা।
জানাযায়, গত মঙ্গলবার বিকালে একটি জন্ম সনদের আবেদনে সত্যায়িত করার অপরাধে হাতিয়া দ্বীপ সরকারী কলেজের এক শিক্ষকে নিজ কার্যালয়ে ডেকে নিয়ে লাঞ্চিত করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: ইমরান হোসেন। এর প্রতিবাদে সাধারন ছাত্র-ছাত্রীরা ইউএনওর অপসারন দাবী করে আন্দোলনে নামে।

আন্দোলনের তৃতীয় দিন আজ তাদের সাথে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করেছে শিক্ষকরা।
সকালে মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতি, মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতি ও কলেজ শিক্ষক সমিতি ভিন্ন ভিন্ন ব্যানারে মিছিল নিয়ে উপজেলা পরিষদ চত্তরে একত্রিত হন। পরে একটি বিশাল মিছিল উপজেলার প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে পুনরায় পরিষদ চত্তরে এসে শেষ হয়।

মিছিল শেষে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা বলেন, এই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: ইমরান হোসেন হাতিয়া আসার পর থেকে বিভিন্ন সময় সাধারন মানুষের সাথে অশোভন আচারন করে আসতেছে। এর মধ্যে বাদ পড়েনি শিক্ষক, সরকারী কর্মকর্তা, ইন্টারনেট ব্যবসায়ী ও আবাসিক হোটেল বয়ও। তাঁর এই অশোভন আচারনে শুধু শিক্ষক সমাজ নয় হাতিয়ার বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ আজ ক্ষুদ্ধ। তাঁর এই আচারনের জন্য তাকে অপসারনও বিচার দাবী করেন া। অন্যথায় আরো কঠোর কর্মসূচী দেওয়া হবে বলে জানান তারা।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.