প্রতিমন্ত্রী ডাঃ এনামের জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানালেন আমজাদ হোসেন সরকার

বিশেষ প্রতিনিধি ঃ

শেয়ার করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

প্রতিমন্ত্রীর ৬৪তম জন্ম দিনের শুভেচ্ছা জানালেন আশুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আমজাদ হোসেন সরকার। ৮ই মার্চ সোমবার সকাল ৮টা ২২ মিনিটে মন্ত্রীর সাভারস্থ নিজ বাসভবনে তাজা গোলাপের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন জনাব আমজাদ হোসেন সরকার।

ডাঃ এনামুর রহমান বাংলাদেশের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের একজন রাজনীতিবিদ। তিনি দশম ও একাদশ জাতীয় সংসদে ঢাকা-১৯ আসন থেকে নির্বাচিত হন।ডাঃ এনামুর রহমান (জন্ম ৮ মার্চ ১৯৫৭) বাংলাদেশের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের একজন রাজনীতিবিদ। তিনি দশম ও একাদশ জাতীয় সংসদে ঢাকা-১৯ আসন থেকে নির্বাচিত হন। তিনি পেশায় চিকিৎসক এনাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান।
জনাব আমজাদ হোসেন সরকার এ প্রতিবেদকের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, আমি ভোর ছয়টায় ফুল বাগানে গিয়ে নিজের পছন্দমত ফুল নিয়ে এসেছি সবার আগেই যেনো মন্ত্রী মহোদয়ের ৬৪তম জন্ম দিনের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাতে পারি। জনাব আমজাদ হোসেন সরকার বলেন সকাল ৬টায় বাগান থেকে ফুল নিলেও মন্ত্রীর বাসার দূরত্ব প্রায় ২০কিলোমিটার যার জন্য একটু দেরিতে হলেও সবার আগেই ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানাতে পেরে খুবই আনন্দিত। তিনি বলেন মন্ত্রী মহোদয় অনেক রাতে ট্যুর থেকে আশার কারনে ঘুমিয়ে ছিলেন তিনি, নিচ থেকে ফোন দিলেন মন্ত্রী মহোদয়কে আমি শুভেচ্ছা জানানোর জন্য তাজা ফুল নিয়ে এসেছি মন্ত্রী তখন ঘুমাচ্ছিলেন। ফোন রিসিভ করে বললেন উপরে আসো, জনাব আমজাদ হোসেন সরকার বলেন আমরা একজন প্রকৃতমানব প্রেমিককে পেয়েছি যে তিনি সব সময় নেতা কর্মীদের সুখে দুঃখে পাশে পাওয়া যায়। তিনি মন্ত্রী হওয়ার পরেও কোনো অহংবোধ নেই পূর্বের মতই সকল নেতা কর্মীদের ভালো বাসেন। জনাব আমজাদ হোসেন সরকার মন্ত্রীর দীর্ঘায়ু ও সু স্বাস্থ্য কামনা করেন।

কর্মজীবন ঃ এনামুর ১৯৮২ সালে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে সরকারি চাকরিতে যোগদান করেন। চাকরিজীবনে তিনি সাভার ও গোপালগঞ্জ জেলায় দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯২ সালে তিনি সাভারে ফিরে আসেন এবং এনাম ক্লিনিক নামে ৬ শয্যা বিশিষ্ট একটি ক্লিনিক প্রতিষ্ঠা করেন। ২০০৩ সালে এনাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করেন। ২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিল সাভারের রানা প্লাজা ধ্বসে পড়ার পর এনাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল এবং এর প্রতিষ্ঠাতা এনামুর রহমান আহতদের তিন মাস বিভিন্ন পর্যায়ে চিকিৎসা সেবা দিয়ে দেশব্যাপী আলোচিত হন।

রাজনৈতিক জীবন ঃ এনামুর ছাত্র থাকাকালীন ছাত্র রাজনীতিতে যোগদান করে ১৯৬৯ সালের গণঅভ্যুত্থান ও ১৯৭০-এর সাধারণ নির্বাচনে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় তিনি পাকিস্তান বাহিনীর উর্দূতে লেখা চিঠিপত্র বাংলায় অনুবাদ করে মুক্তি বাহিনীকে সহায়তা করতেন। ২০১৪ সালের দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি ঢাকা-১৯ আসন থেকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হন। ২০১৮ সালের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও একই আসন থেকে জয় লাভ করেন। ২০১৯ সালের ৭ জানুয়ারি শেখ হাসিনার চতুর্থ মন্ত্রিসভায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন তিনি ।


শেয়ার করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares
  •  
    2
    Shares
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.