মহান ঈদে মেরাজ শরীফ উপলক্ষে মীরসরাইয়ে বিশ্ব সুন্নী আন্দোলনের বিশাল সমাবেশ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মীরসরাই প্রতিনিধি:
আলোকময় ঈদে মেরাজ শরীফ উদযাপন উপলক্ষে সৈয়দ আল্লামা ইমাম হায়াত আলাইহি রাহমার দিক নির্দেশনায়- বিশ্ব সুন্নী আন্দোলন, বাংলাদেশ, মিরসরাই উপজেলা শাখার উদ্যােগে আজ ১৩ মার্চ শনিবার জমেয়া রহমানিয়া ফাজিল মাদ্রাসা অডটরিয়াম হলে এক বিশাল সমাবেশ ও সালাতু সালাম মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতা আল্লামা আরেফ সারতাজের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতা আল্লামা শেখ নঈমুদ্দীন, আল্লামা হাফেজ ইলিয়াস শাহ, আল্লামা মফিজুর রহমান, আল্লামা রেজাউল কায়সার, আরো বক্তব্য রাখেন, রেজাউল করিম, জনাব নাফিস মোবারক, কামরুল ইসলাম নকিব, মাওলানা জামশেদ আলম, আব্দুর রহমান সুমন, নাসির উদ্দীন, সাইদুল ইসলাম সজিব, শরীফুল আলম, ছাইফুর রহমান আজাদ, ফজলুল কাদের, হানিফ মিয়া, আনোয়ার হোসেন, আব্দুল আওয়াল, আক্তারুজ্জামান, নাসির উদ্দীন, প্রমুখ।

সৈয়দ আল্লামা ইমাম হায়াত এর দিক নির্দেশনায়-
বক্তাগ বলেন, সমগ্র সৃষ্টির জন্য প্রাণাধিক প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ই দয়াময় আল্লাহতাআলার প্রত্যক্ষ নূর ও মূল বন্ধন হিসেবে উপলব্ধি ই মেরাজ শরীফের শিক্ষা। সকল গুণ-জ্ঞান-কল্যাণের উৎস মহান রেসালাতে ইলাহীর আলো ও রহমতের ধারায় আলোকিত জীবন ও মানবতার দুনিয়া গড়ে তোলা ই মেরাজ শরীফের দিশা।

বক্তাগ বলেন, দয়াময় আল্লাহতাআলা তাঁর অসীম মহিমায় তাঁর প্রিয়তম হাবীব প্রাণাধিক প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া আলিহী ওয়া সাল্লামকে স্থান ও কালের উর্ধ্বে তাঁর পরম সান্নিধ্যে দূরত্বহীন সর্বোচ্চ নৈকট্যে উপনীত করে প্রত্যক্ষ দর্শন ও সরাসরি সাক্ষাৎ দান মহান মেরাজ শরীফ। প্রকৃতপক্ষে স্বয়ং দয়াময় আল্লাহতায়ালার প্রত্যক্ষ প্রকাশ মহান মেরাজ শরীফ।

বক্তাগ বলেন, দয়াময় আল্লাহতাআলা ও তাঁর মহান রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া আলিহী ওয়া সাল্লামের এ মহামিলন মানবজ্ঞানের অতীত অচিন্তনীয় এ প্রত্যক্ষ দর্শন সকল সৃষ্টি ও সমগ্র মানবমন্ডলী এবং বিশেষভাবে সকল মুমিনের জন্য অসীম রহমত, অবর্ণনীয় দান, অতুলনীয় গৌরব, অনন্ত খুশি ও সর্বোচ্চ শোকরিয়ার বিষয়।

বক্তাগ বলেন, আমরা মুমিনদের জন্য জীবনের পরম পাওয়া পরম উৎসব এ মহান মেরাজ শরীফ। প্রাণাধিক প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া আলিহী ওয়া সাল্লামের এ প্রত্যক্ষ সাক্ষাত আমাদের সবারই পরোক্ষ সাক্ষাত। আমরা মুমিনগণ সবাই এ মহান মেরাজ শরীফে জড়িত এবং মহান মেরাজ শরীফের রহমত, বরকত ও আলোকধারায় যুক্ত।

বক্তাগ বলেন, ঈদে আজম তথা প্রাণাধিক প্রিয়নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া আলিহী ওয়া সাল্লামকে পাওয়ার মাধ্যমে দয়াময় আল্লাহতাআলাকে পাওয়ার পর মহান মেরাজ শরীফ তথা মহান প্রিয়নবীর দয়াময় আল্লাহতাআলাকে প্রত্যক্ষ দর্শন ও দয়াময় আল্লাহতাআলার প্রত্যক্ষ প্রকাশের চেয়ে বড় গুরুত্বপূর্ণ কোন বিষয়, মহিমান্বিত ঘটনা ও রহমতময় তাৎপর্যপূর্ণ উদ্যাপন উৎসব আর কোন কিছুই হতে পারে না।

বক্তাগ বলেন, ঈমানী ঈদ, ঈমানী হৃদয়ের ঈদ, দয়াময় আল্লাহতাআলা ও তাঁর হাবীব সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া আলিহী ওয়া সাল্লামের প্রেমের ঈদ, নৈকট্য সাধনার ঈদ হিসেবে আমরা ঈমানদারদের অবশ্যই এ অতুলনীয় মহাগৌরবময় মহা তাৎপর্যময় মহান ঈদে মেরাজ শরীফ সঠিক দিশা ও লক্ষ্যে উদ্যাপন করতে হবে।

বক্তাগ বলেন,ঈদে মেরাজ শরীফ উদ্যাপন যেমন দয়াময় আল্লাহতাআলা ও তাঁর প্রিয়তম হাবীব সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া আলিহী ওয়া সাল্লামের সাথে আত্মার বন্ধন, ঈমানী হৃদয়ের প্রেমের সাধনা ও জীবনের ঠিকানার সন্ধান, তেমনি মানবজীবনের সকল পর্যায়, জীবনব্যবস্থার সকল দিক তথা রাষ্ট্রব্যবস্থা ও বিশ্বব্যবস্থার সব দিকে সত্য ও কল্যাণের দিশা, মুক্তির দিকদর্শন। আমাদের সমগ্র মানবমন্ডলীর মুক্তি ও জীবনসত্যের উপলব্ধি নিহিত মহান মেরাজ শরীফের মর্ম ও তাৎপর্য উপলব্ধির মধ্যে।

বক্তাগ বলেন, মহান মেরাজ শরীফে বিশ্বাস ঈমানের অবিচ্ছেদ্য বিষয়। ঈদে মেরাজ শরীফ উদ্যাপন ঈমানী দায়িত্ব এবং সত্যের দিকদর্শনকে নিয়ে এগিয়ে চলা, জীবন ও জগতকে আলোর দিকে নিয়ে চলা। ঈমানী বিষয় ও দায়িত্ব উপেক্ষা করে অন্য সব আমল প্রাণহীন হয়ে যায়, কবুল হয় না, জীবনই আঁধার হয়ে যায়, ঈমান ও দ্বীনের প্রকৃত রূপরেখা বিলুপ্ত হয়ে যায়।

বক্তাগ বলেন, মহান মেরাজ শরীফ দয়াময় আল্লাহতাআলা ও তাঁর রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে ঈমানের ভিত্তিতে জানা ও বুঝার সর্বোচ্চ দিকদর্শন এবং নিজেদের জীবনের সত্য উপলব্ধি ও নিজের জীবনের কেন্দ্র, দিক ও লক্ষ্য উপলব্ধির অপরিহার্য বিষয়। দয়াময় আল্লাহতাআলার হাবীব সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ও আল্লাহতাআলার প্রত্যক্ষ সাক্ষাৎ হিসেবে মেরাজ শরীফে ঈমান রাখা ব্যতীত ঈমানী আকিদা ও ঈমানী আত্মা কখনো হবেনা।

বক্তাগ বলেন, মহান মেরাজ শরীফ আমাদেরকে সত্যের যে কেন্দ্র, আলোর যে উৎস, জীবনের যে দিক এবং মুক্তির যে পথ দেখিয়ে দিয়েছে তা ভুলিয়ে দিয়ে সত্য ও মানবতাকে উৎখাতের বহুমূখী অপচেষ্টা চলছে। আমাদের আত্মা মিথ্যা আঁধারে নিয়ে যাওয়ার সর্বাত্মক প্রয়াস চলছে। জীবন ও সমগ্র দুনিয়াকে মিথ্যা-আঁধার- মূর্খতা-রূদ্ধ-আচ্ছন্ন করে ফেলেছে এবং তা থেকে উদ্ভূত অন্যায়- অবিচার- শোষণ- দস্যুতা- সন্ত্রাস- বর্বরতা দুনিয়াকে গ্রাস করে ফেলেছে, এমনকি ইসলামের ছদ্মনামেও তা করা হচ্ছে।

বক্তাগ বলেন,মহান ঈদে আজমের আলোক দিশায় লক্ষ্য ধারায়, মহান ঈদে মেরাজ শরীফের শিক্ষা ও মর্মধারায় এবং মিল্লাতের মহান জাতীয় শহীদ দিবস পবিত্র শাহাদাতে কারবালা দিবসের চেতনা নির্দেশনায় দ্বীনের আধ্যাত্মিক-মানবিক পূর্ণাঙ্গ অভিযাত্রাই কেবল আমাদের সমগ্র মানবতাকে সকল বাতেল জালেম অপশক্তির বিনাশী গ্রাস থেকে উদ্ধার করে জীবন ও জগতকে সত্য ও আলোর সঠিক ধারায় দোজাহানে মুক্তির ধারায় এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে।

বক্তাগ বলেন, মহান মোবারক মেরাজ শরীফের রহমত ও আলোকধারায় যুক্ত থাকলে আমাদের অবশ্যই ঈদে মেরাজের কর্মসূচীতে যুক্ত থাকতে হবে এবং ঈদে মেরাজ শরীফের শিক্ষা ও মর্মধারা নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.