শিক্ষানীতি যুগপযোগী করতে নিরলস কাজ করছে সরকার : শিক্ষা মন্ত্রী

মো. বশির উদ্দিন/ ডেমরা প্রতিনিধিঃ
শিক্ষানীতি যুগপযোগী করতে সরকার নিরলস কাজ করছেন বলে জানিয়েছেন শিক্ষা মন্ত্রী ডা. দিপু মনি (এমপি)। জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হল রুমে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ মাদরাসা জেনারেল টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিএমজিটিএ) এর উদ্যোগে অনুষ্ঠিত এক আলোচনা সভায় মন্ত্রী এ কথা বলেন। এ সময় ওই সংগঠনের সভাপতি মো. হারুন অর রশিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালী যুক্ত থেকে বাংলাদেশ মাদ্রাসা জেনারেল টিচার্স এসোসিয়েশন এর যৌক্তিক দাবিগুলো দ্রুত তম সময়ের মধ্যে সমাধান করা হবে বলেও জানান ডা. দিপু মনি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষা মন্ত্রী ডা. দিপু মনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মানে শিক্ষকরাই মূল কারিগর। আর বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজগুলো সমাপ্ত করছেন তারই কন্যা সফল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এদিকে মাদরাসায় শিক্ষার্থীদের নির্যাতন বেআইনি ও অমানবিক। এটা কোন ভাবেই সমর্থনযোগ্য নয়।
তিনি বলেন, শিক্ষকদের মর্যাদা ও সামাজিক নিরাপত্তা না থাকলে শিক্ষার মানোন্নয়ন সম্ভব নয়। তাই শিক্ষা ব্যবস্থা জাতীয়করণের বিষয়টি আরও গুরুত্ব সহকারে ভেবে দেখছে সরকার। এ লক্ষ্যে প্রচুর গবেষণার প্রয়োজন। এ সময় তিনি মাদরাসা শিক্ষার উন্নয়নে বর্তমান সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পটুয়াখালী-৩ আসনের সংসদ সদস্য এস এম শাহজাদা, প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের (স্বাশিপ) সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মো. শাহজাহান আলম সাজু। বিএমজিটিএ এর মহাসচিব মো. শান্ত ইসলামের সঞ্চালনায় উক্ত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন স্বাশিপের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা সাইদুর রহমান পান্না, বিএমজিটিএ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সিনিয়র সহসভাপতি সুলতান মাহমুদ, অর্থ সম্পাদক মেহেদী হাসান সরকার, নোয়াখালী জেলা সভাপতি ফখরুল ইসলাম, লক্ষ্মীপুর জেলা সভাপতি মো. আলী, পটুয়াখালী জেলা সভাপতি সোহরাব হোসেন, টাঙ্গাইল জেলার আহবায়ক কে,এম শামীম, ঝালকাঠি জেলা সভাপতি শাহ মাহমুদ কবির, পিরোজপুর জেলা কমিটির আহ্বায়ক আব্দুল বারেক,এলিন তালুকদার ও কামরুন্নাহার প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা মাদ্রাসা শিক্ষকদের বেতন ইলেকট্রনিক ফান্ড ট্রান্সফার (ইএফটি) মাধ্যমে প্রদান, পূর্ণাঙ্গ উৎসব ভাতা, বাড়ি ভাড়া ও মাদ্রাসাসহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবি জানান ।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.