বুধবার, ১৬ Jun ২০২১, ০৩:৩৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
হত্যাকান্ডের ৯ দিন পর খুনিকে গ্রেপ্তার করেছে র্্যাব মাগুরা শ্রীপুরের জনপ্রিয় শিক্ষক আমিরুজ্জামান সেলিমের ইন্তেকাল বাকলিয়ার সন্ত্রাসী এয়াকুবসহ চিহ্নিত অস্ত্রধারীদের গ্রেফতার দাবি চট্টগ্রামে বায়েজিদ লিংক রোডে ঝুঁকিপূর্ণ ভাবে পাহাড়ের বসতিদের উচ্ছেদ অভিযান শুরু পরীমণিকে ধর্ষণচেষ্টায় নাসির উদ্দিন গ্রেফতার রাউজানের গণি পাড়ার মেয়ে কিংবদন্তি শাবানার গ্রামের বাড়িতে বছরে পর বছর ঝুলছে তালা র‌্যাব ক্যাম্পের অভিযান : দুই মাদক কারবারি আটক সদ্য নবনির্বাচিত দিনাজপুর চেম্বারের রেজা হুমায়ুন ফারুক চৌধুরী (শামীম) পরিষদের বিজয়ীদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানালো পরিবেশক সমিতি দিনাজপুর কোম্পানীগঞ্জে সিএনজি ধর্মঘটের ঘোষণা পৌর মেয়র কাদের মির্জা’র চট্টগ্রামের বাকলিয়ার এয়াকুব আলী বাহিনীর চিহ্নিত অস্ত্রধারীদের অস্ত্র উদ্ধারের দাবিতে সাংবাদিক সম্মেলন

মামুনুলের দ্বিতীয় জান্নাতকেও স্ত্রী হিসেবে স্বীকার , দাবি জান্নাতের ভাইয়ের

নিজস্ব প্রতিবেদক

গত শনিবার রাতে বাংলাদেশ প্রতিদিন অনলাইনে ‘‘মামুনুল হকের আরেক জান্নাতের সন্ধান’’ এই শিরোনামে এবং প্রিন্ট ভার্সনে ‘আরেক জান্নাতের সন্ধান’-গোয়েন্দাদের কাছে চাঞ্চল্যকর তথ্য’’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হয়। এরপর আজই বিষয়টি নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকার করে নিলেন ওই নারীর ভাই শাহজাহান।

দ্বিতীয় জান্নাতও হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হকের স্ত্রী বলে দাবি করেছেন জান্নাতুল ফেরদৌসের ভাই শাহজাহান সাজু। গাজীপুরের কাপাসিয়ার বাসিন্দা জান্নাতুল ফেরদৌস নামের এই নারীর সঙ্গে গত এক বছর আগে মাওলানা মামুনুলের বিয়ে হয়েছে বলে জানিয়েছেন শাহজাহান। এ হিসেবে মাওলানা মামনুলের কথিত স্ত্রী’র সংখ্যা হবে দু’জন। জান্নাতুল ফেরদৌস হবে মামুনুলের তৃতীয় স্ত্রী।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ২০১৩ সালে এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশে মাস্টার্স করার সময় এই নারীর সঙ্গে পরিচয় হয় মামুনুল হকের। ওই পরিচয়ের সূত্রে তাদের মধ্যে কথাবার্তা হতো। আড়াই বছর আগে ওই নারীর ডিভোর্স হয়। এরপর ওই নারীকে কেরানীগঞ্জের একটি মহিলা মাদ্রাসায় শিক্ষক হিসেবে চাকরি দেন মামুনুল হক। এরপর থেকেই তাদের মধ্যে সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শাজাহান সাজু বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, মামুনুল সাহেব শনিবার (১০ এপ্রিল) মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসায় আমাকে ডেকে নিয়ে যান। সেখানেই তিনি আমার বোনকে বিয়ের কথা জানিয়েছন। বলেছেন, ২০২০ সালে তিনি আমার বোনকে বিয়ে করেন। এ সংক্রান্ত একটি স্ট্যাম্প দেখিয়েছেন।
এদিকে, তৃতীয় বিয়ের বিষয়ের মন্তব্য জানতে একাধিকবার মামুনুল হকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তার মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

জানা গেছে, মামুনুল হকের রিসোর্টকাণ্ডের এই নারীকে মামুনুল হক তার বড় বোন দিলরুবার মোহাম্দপুরের বাসায় রেখেছেন। ওই ঘটনার পর থেকে বোনের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেননি বলে জানান আত্মীয়-স্বজনরা।

নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
Design & Developed BY TechPeon.Com