বৃহস্পতিবার, ১৭ Jun ২০২১, ১২:০৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
হত্যাকান্ডের ৯ দিন পর খুনিকে গ্রেপ্তার করেছে র্্যাব মাগুরা শ্রীপুরের জনপ্রিয় শিক্ষক আমিরুজ্জামান সেলিমের ইন্তেকাল বাকলিয়ার সন্ত্রাসী এয়াকুবসহ চিহ্নিত অস্ত্রধারীদের গ্রেফতার দাবি চট্টগ্রামে বায়েজিদ লিংক রোডে ঝুঁকিপূর্ণ ভাবে পাহাড়ের বসতিদের উচ্ছেদ অভিযান শুরু পরীমণিকে ধর্ষণচেষ্টায় নাসির উদ্দিন গ্রেফতার রাউজানের গণি পাড়ার মেয়ে কিংবদন্তি শাবানার গ্রামের বাড়িতে বছরে পর বছর ঝুলছে তালা র‌্যাব ক্যাম্পের অভিযান : দুই মাদক কারবারি আটক সদ্য নবনির্বাচিত দিনাজপুর চেম্বারের রেজা হুমায়ুন ফারুক চৌধুরী (শামীম) পরিষদের বিজয়ীদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানালো পরিবেশক সমিতি দিনাজপুর কোম্পানীগঞ্জে সিএনজি ধর্মঘটের ঘোষণা পৌর মেয়র কাদের মির্জা’র চট্টগ্রামের বাকলিয়ার এয়াকুব আলী বাহিনীর চিহ্নিত অস্ত্রধারীদের অস্ত্র উদ্ধারের দাবিতে সাংবাদিক সম্মেলন

লাকসামে স্কুল মাঠ শহীদমিনার দখল করে কাজ করছে ঠিকাদার

কুমিল্লা বিশেষ প্রতিনিধি

কুমিল্লা লাকসামে রেলওয়ে জংশন এলাকায় অবস্থিত রেলওয়ে আইডিয়াল স্কুল, রেলওয়ে ক্লাব মাঠে ও শহীদমিনার ঘিরে দখল করে রাখা হয়েছে ঠিকাদারি মালামাল। মাঠ ও শহিদ মিনার দখল করে গত এক মাস ধরে গ্রীন বিল্ডার্স নামে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সড়ক নির্মাণের সামগ্রী কার্যক্রম চালিয়ে আসছে। ২৬ এপ্রিল সোমবার দুপুরে ওই এলাকায় এমন দৃশ্য দেখা যায়। মিক্সার মেশিন চলায় এই এলাকার বসবাসকারীদের থাকার অসম্ভব হয়ে পড়েছে। এছাড়া এলাকার সতেচন ব্যক্তিরা এই কাজে ভাষা শহীদের অবমাননা করা হয়েছে বলে মনে করেন তারা। কিন্তু সকল স্তরের প্রসাশনের সামনেও এই কর্মযজ্ঞ দীর্ঘদিন ধরে চলতে থাকলেও এই বিষয়ে কোন ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়নি।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, লাকসাম পৌরশহরে জংশন এলাকায় রেলওয়ে ক্লাব ও স্কুল মাঠে শহীদ মিনারের সামনে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের সড়ক নির্মানের সামগ্রী বিশালাকারে স্তুপ। চারপাশ ঘিরে রাখা হয়েছে পাথর, বিটুমিনের ড্রাম ও বিটুমিন গলানোর জন্য জ্বালানী হিসেবে স্তুপাকারে টুকরা কাপড়। শহীদমিনারের সামনে নির্মিত সৌধের মাঝখানে বিশালাকার মেশিনে চলছে গলানো হচ্ছে বিটুমিন। অন্য পাশে বিটুমিন পোড়ানোর চুলা রাখা হয়েছে। ধোঁয়ায় চারদিক আচ্ছাদিত হয়ে পড়ছে। শত শত লেবার এখান থেকে বিটুমিনসহ রাস্তা সংস্কারের মালামাল তৈরি করে, ৩-৪ কিলোমিটার দূরে রাস্তার কাজে গাড়িভরে নিয়ে যাচ্ছে। মেশিন থেকে বের হওয়া ধুলা ও বিটুমিন গলানোর উৎকট গন্ধের কারনে আশেপাশের বসবাসকারীদের ক্ষতি হচ্ছে তাদের। ঠিকাদার প্রভাবশালী হওয়ায় কেউ তাদের বিরুদ্ধে কিছু বলতে পারে না।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকার বাসিন্দা বলেন, যখন মিক্সার মেশিন চলে তখন কোন বাসায় থাকতে পারছিনা। মেশিনের শব্দের আর কালো ধোঁয়া নিশ্বাস বন্ধ হয়ে যায়। আমি ছোট মানুষ আর কি বলব ওখানে যারা কাজ করে তারা বড় মানুষ। বিষয়টা লজ্জার হোক আর কষ্টের হোক আমি কিছু বলতে পারব না।

স্হানীয় জাকির হোসেন বলেন, এলাকায় স্কুলের এই মাঠটিই একমাত্র খেলার মাঠ। সারা বছরই এ মাঠে ক্রিকেট-ফুটবলসহ নানা খেলাধুলা চলে। প্রতি শীত গ্রীষ্মে এখানে একাধিক জমজমাট টুর্নামেন্ট চলে। কিন্তু মাঠটি প্রায় দেড় বছর ধরে ঠিকাদারদের কাজের জন্য আটকে থাকায় সকল ধরনের খেলাধুলা বন্ধ রয়েছে। আমরা দ্রুত এর প্রতিকার চাই।

গ্রীন বিল্ডার্স ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের কর্মরত কর্মকর্তা আরুঙ্গ জেব বলেন, আশেপাশে জায়গা না পেয়ে আমরা পৌর মেয়র ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সাথে কথা বলেই মূলত শহীদমিনার চত্বরে মালামাল রাখতে বাধ্য হয়েছি। তবে আগামী তিনদিনের মধ্যেই আমরা কাজ শেষ করে ফেলব।

লাকসাম পৌরসভার মেয়র অধ্যাপক আবুল খায়ের বলেন, সড়কের কাজের জন্য মালামাল রাখা হয়েছে তবে দুই একদিনের মধ্যেই শেষ হয়ে যাবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
Design & Developed BY TechPeon.Com