হামলা ও মামলা থেকে বাঁচতে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন

খ.ম. নাজাকাত হোসেন সবুজ। বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাগেরহাট জেলাধীন মোরেলগঞ্জ উপজেলার পুটিখালী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে বিপাকে পড়েছেন সাবেক চেয়ারম্যান মাহবুবর রহমান শিকদার। শুধু তিনিই নয়, তার সমর্থক আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদেরও এলাকা ছেড়ে চলে যেতে হুমকী দেয়া হচ্ছে। মঙ্গলবার দুপুরে বাগেরহাট প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এমন অভিযোগ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে মাহবুবর রহমান শিকদার উল্লেখ করেন, তিনি ১৯৯৭ সাল থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত পুটিখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। ২০০১ সালে জামায়াত বিএনপির যেসব সন্ত্রাসীরা তিনি ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মারপিট করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে তারাই এখন নব্য আওয়ামীলীগার হয়ে আবারো তাদের নির্যাতন করছে। এবারের নির্বাচনে আ. রাজ্জাককে নৌকার মাঝি করা হয়েছে। তার আপন বড় ভাই মোশারেফ শেখ ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি, আরেক ভাই শাহ আলম জামায়াতের ইউনিয়ন সেক্রেটারী এবং অন্য এক ভাই আলী আজিম বাবুল মোরেলগঞ্জ উপজেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক। এরা কয় ভাই মিলে ২০০১ সালে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছিল। এখনও তাদের কাছে শান্তিপ্রিয় এলাকাবাসি জিম্মি। এমন একজন মানুষকে নৌকার প্রার্থী করায় এলাকাবাসির অনুরোধে তিনি প্রার্থী হয়েছে। কিন্তু এই প্রার্থী হওয়ার পর থেকে তাদের উপর প্রতিপক্ষরা হয়রানি করছে।

গত ২৮ মার্চ তিনি নির্বাচনী প্রচারনায় ভাটখালী বাজারে যাওয়ার সময় গজালিয়া এলাকায় পৌছালে তার প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী আ. রাজ্জাকের নেতৃত্বে তাদের উপর হামলা চালানো হয়। এতে তার দলের ১২/১৩ জন আহত হন। এঘটনায় তিনি মোরেলগঞ্জ থানায় মামলা করেন।

কিন্তু প্রতিপক্ষরা সুকৌশলে তার ভাই, ভাইপোসহ ৯ জনের নামে মিথ্যা মামলা দিয়েছে। এরপর থেকে স্থানীয় আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও শ্রমিক লীগের নেতাকর্মীদের এলাকা ছেড়ে চলে যাওয়ার হুমকী দিচ্ছেন তারা।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.