বুধবার, ১৬ Jun ২০২১, ০৫:০৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
হত্যাকান্ডের ৯ দিন পর খুনিকে গ্রেপ্তার করেছে র্্যাব মাগুরা শ্রীপুরের জনপ্রিয় শিক্ষক আমিরুজ্জামান সেলিমের ইন্তেকাল বাকলিয়ার সন্ত্রাসী এয়াকুবসহ চিহ্নিত অস্ত্রধারীদের গ্রেফতার দাবি চট্টগ্রামে বায়েজিদ লিংক রোডে ঝুঁকিপূর্ণ ভাবে পাহাড়ের বসতিদের উচ্ছেদ অভিযান শুরু পরীমণিকে ধর্ষণচেষ্টায় নাসির উদ্দিন গ্রেফতার রাউজানের গণি পাড়ার মেয়ে কিংবদন্তি শাবানার গ্রামের বাড়িতে বছরে পর বছর ঝুলছে তালা র‌্যাব ক্যাম্পের অভিযান : দুই মাদক কারবারি আটক সদ্য নবনির্বাচিত দিনাজপুর চেম্বারের রেজা হুমায়ুন ফারুক চৌধুরী (শামীম) পরিষদের বিজয়ীদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানালো পরিবেশক সমিতি দিনাজপুর কোম্পানীগঞ্জে সিএনজি ধর্মঘটের ঘোষণা পৌর মেয়র কাদের মির্জা’র চট্টগ্রামের বাকলিয়ার এয়াকুব আলী বাহিনীর চিহ্নিত অস্ত্রধারীদের অস্ত্র উদ্ধারের দাবিতে সাংবাদিক সম্মেলন

করোনায় কোনো কিছুই থেমে নেই, থেমে আছে শুধু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

জেসমিন নাহারঃ

বিশ্ববিদ্যালয় হল ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো গেলো বছর ১৭ মার্চ থেকে সরকার ঘোষিত লকডাউনের কারনে বন্ধ হয়ে আছে।করোনা মহামারীর এ দুঃসময়ে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে ২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ আছে।লকডাউনের কারনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও অফিস,আদালত,কল-কারখানা,শপিংমল সহ পাবলিক জমায়েত বৃদ্ধি পেয়েছে।
দীর্ঘ এই লক ডাউনে তরুণ সমাজ বিশেষ করে ছাত্রছাত্রীরা শিক্ষা জীবন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাচ্ছে।বাড়ছে বাল্য বিবাহ ,মাত্রাতিরিক্ত ইন্টারনেট আসক্তি সহ নানারকম অপরাধ প্রবণতা।

অবিলম্বে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবিতে চট্টগ্রামের সাধারণ শিক্ষার্থীবৃন্দের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত।

শিক্ষাজীবন বাঁচাতে অবিলম্বে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবিতে ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বৃদ্ধির সিদ্ধান্তকে প্রত্যাখ্যান করে আজ সোমবার বেলা ১১ টায় চট্টগ্রামের বিভিন্ন কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে সারাদেশের মতো চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের শিক্ষার্থী জহিরুল ইসলামের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, সরকারি হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজের ছাত্র প্রতিনিধি রুবেল মাহমুদ রাফসান, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রাজেশ্বর দাশ গুপ্ত, নাসরিন আক্তার, ঋজু, সুখী কুমার, ধ্রুব, ওসমান ও ইমন, বিজিসি ট্রাস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাইফুর রুদ্র, চট্টগ্রাম সিটি কলেজের শিক্ষার্থী প্রান্ত বড়ুয়া ও শাহেদুল ইসলাম, সরকারি কমার্স কলেজের শিক্ষার্থী রকেট দাশ রকি, আগ্রাবাদ মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী আবিধা ফাইরুজ, মেডিকেল কলেজ পরীক্ষার্থী ইমন সহ আরো অনেকে।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, “দীর্ঘদিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থীদের শিক্ষাজীবন আজ বিপন্ন, ভবিষ্যত জীবন অনিশ্চিয়তার মুখে। তারা দীর্ঘ সেশনজট সহ নানা রকম সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন। সরকার করোনার দোহায় দিয়ে বারবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বৃদ্ধি করছে। গত মার্চ মাসে যখন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার দাবীতে আন্দোলন শুরু হয়,তখন সরকার ঘোষণা করেন সবাইকে টিকার আওতায় এনে ১৭ মার্চ হল ও ২৪ মার্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দিবেন। কিন্তু আমরা দেখলাম দীর্ঘ দুইমাস সময় পেয়েও সরকার শিক্ষার্থীদের টিকা দিতে পারেনি।

শিক্ষার্থীরা আরো বলেন, “করোনায় কোনো কিছুই থেমে নেই, থেমে আছে শুধু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, রাজনৈতিক কর্মসূচি, হাটবাজার-মার্কেট থেকে শুরু করে গণপরিবহন, সবকিছুই চলমান আছে। সরকারের সারা দেশের কোটি কোটি শিক্ষার্থীদেও শিক্ষাজীবন বাঁচানো ও করোনাকালের ক্ষতি কাটিয়ে তোলার ব্যাপারে সরকারের উদাসীনতা গোটা দেশের ভবিষ্যতকেই অনিশ্চিত করে তুলবে।” মানববন্ধন থেকে শিক্ষার্থীরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ২৯ মে পর্যন্ত বন্ধ রাখার শিক্ষামন্ত্রীর ঘোষণাকে প্রত্যাখ্যান করেন। এবং অতিদ্রæত সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবী জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
Design & Developed BY TechPeon.Com