সোমবার, ১৪ Jun ২০২১, ০২:৪৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
বিএফইউজে-ডিইউজে বিক্ষোভ সমাবেশে নেতৃবৃন্দ গণতন্ত্র ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতা রক্ষায় বিচার বিভাগের নিরপেক্ষ ভূমিকা জরুরি আশুলিয়া শিল্পাঞ্চলে পুলিশের ধাওয়ায় এক নারী শ্রমিকের মৃত্যু তিতাস তাকওয়া ফাউন্ডেশনের সভাপতি শাহজালাল, সম্পাদক ফারুক ও সাংগঠনিক সজীব থানায় সাধারণ ডায়েরি বা মামলা গ্রহণ করেনি মাগুরায় ১৭ জন নতুন করোনা রোগী শনাক্ত! জেলা শহরে ও মহম্মদপুরে লকডাউন ঘোষনা উত্তরা আধুনিক মেডিকেলে ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারিদের ইনজেকটিং ড্রাগ্সের রমরমা ব্যবসা স্বাস্থ্যবিধি মেনে কুবিতে সশরীরে পরীক্ষা শুরু খুটাখালীতে ইজিবাইক উল্টে গৃহবধুর মৃত্যু রংপুরে ঘাঘট নদীতে দুই ভাইবোনের মৃত্যু বাঁচতে চায় কাজল রেখা, কিন্তু পরিবারের সাধ্য নেই

ইনাতগঞ্জ ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী শহীদ পরিবারের সন্তান সাংবাদিক রাকিল

নিজস্ব প্রতিনিধি :: হবিগঞ্জ ।।

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার ৩নং ইনাতগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের আসন্ন নির্বাচনে নৌকার মাঝি হয়ে মানুষের সেবা করতে চান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ পরিবারের সন্তান সাংবাদিক রাকিল হোসেন। তিনি ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের প্রজাতপুর গ্রামের বাসিন্দা।

তাঁর সমর্থকরা জানান, ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নে তিনি ছাত্রজীবন থেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক হিসেবে মাঠে-ময়দানে কাজ করে আসছেন। তিনি ইনাতগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের প্রতিষ্টাতা যুগ্ন সাধারন সম্পাদক ছিলেন। পরবর্তীতে ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক ও ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন। পরে তিনি যুবলীগের আহবায়কের দায়িত্ব পালন করেন।

রাকিল হোসেন বর্তমানে ৩নং ইনাতগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের নির্বাহী সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

তাছাড়া তিনি নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারন সম্পাদক ছিলেন। বর্তমানে দৈনিক সিলেটের ডাক ও চ্যানেল এস ইউকে টিভি নবীগঞ্জ প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

এলাকাবাসী জানান রাকিল হোসেন মুক্তিযোদ্ধা শহীদ পরিবারের সন্তান। তার পিতা শহীদ সান উল্লা ছিলেন ১৯৭১ সালে একজন মুক্তিযোদ্ধের সংঘটক এবং ইউনিয়ন কাউন্সিলের নির্বাচিত ইউপি সদস্য। এছাড়াও তিনি পেশায় ছিলেন চিকিৎসক।

মহান স্বাধীনতা যোদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাদের সংগঠিত করার অপরাধে ইনাতগঞ্জ এলাকার রাজাকার, আল বদর, আল সামসদের সহযোগিতায় পাক হানাদার বাহিনী সান উল্লাকে গুলি করে হত্যা করে।

সরেজমিনে এলাকায় নানা পেশার মানুষের সাথে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তারা আরো জানান, রাকিল হোসেন নিজেকে মানুষের সেবায় উৎসর্গ করে দিতে চান। এমন কি তিনি অসহায় মানুষের বিপদে
আপদে এগিয়ে আসেন। আমরা ৩নং
ইনাতগঞ্জ ইউনিয়ন নির্বাচনে দলমত নির্বিশেষে উন্নয়নের স্বার্থে সমাজসেবক মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান রাকিল হোসেনকে চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চাই। সকল শ্রেণি-পেশার মানুষ তার আচার-ব্যবহারে মুগ্ধ। তাছাড়া তিনি বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডে স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে নিবেদিত প্রান।

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী রাকিল হোসেন বলেন, আমি আজীবন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের একজন নিবেদিত কর্মী হিসেবে দলের কাজ করে আসছি। বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আমি দলীয় মনোনয়ন চেয়েও পাইনি। পরবর্তীতে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেছি।

তিনি বলেন, আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে ৩নং ইনাতগঞ্জ ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করতে চাই। আমি ইউনিয়নবাসীর পাশে থেকে সাধারণ মানুষের কল্যাণে ও সুখ দুঃখের সাথী হয়ে রয়েছি।

আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দল আমাকে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন দিলে, ৩নং ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নবাসী আমাকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করবেন।

তিনি বলেন, উন্নয়নের ধারা গতিশীল করতে হলে নৌকা প্রতীকের বিকল্প নেই। আমি একজন শহীদ পরিবারের সন্তান হিসাবে আজীবন ৩নং ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নবাসীর সেবা করে যেতে চাই।

নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
Design & Developed BY TechPeon.Com