1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
আশুলিয়ায় ডক্টরস হাসপাতালের ভূয়া ডাক্তারসহ ৩ জন গ্রেফতার - দৈনিক শ্যামল বাংলা
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৯:০৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
রাউজানে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু আনোয়ারা প্রেস ক্লাবের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত রাউজানে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে শেষ হলো শারদীয় দুর্গাপূজা অসুর শক্তিকে ধ্বংস করে করে আওয়ামীলীগ আজ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় : এমপি হানিফ ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীর শাকিল হত্যা মামলার আসামি এক মাস ধরে পলাতক, ইউপি চেয়ারম্যানকে খুঁজছে পুলিশ ! উন্নয়নের সুষম বণ্টনই আমার প্রধান লক্ষ্য : নিবাচনী প্রচারণায় ভার্ড কামাল বিএসএফ’র গুলিতে বাংলাদেশী যুবক আহত । ঠাকুরগাঁওয়ে রাণীশংকৈলে বৈদ্যুতিক স্পর্শে প্রাণ গেল যুবকের! ঠাকুরগাঁও থেকে অপহৃত স্কুল ছাত্রী গাজীপুর থেকে উদ্ধার —আসামীরা পলাতক ! ১০ বছরেও সংস্কারের মুখ দেখেনি শীলকূপ-গন্ডামারা সড়ক, খানাখন্দে বেহাল জনদুর্ভোগ

আশুলিয়ায় ডক্টরস হাসপাতালের ভূয়া ডাক্তারসহ ৩ জন গ্রেফতার

মোহাম্মদ নুর আলম সিদ্দিকী মানু,স্টাফ রিপোর্টারঃ
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৬ জুলাই, ২০২১
  • ১০৯ বার

ঢাকা জেলা সাভারের আশুলিয়ায় প্রতারণার অভিযোগে ভু’য়া ডাক্তার সহ ডক্টরস জেনারেল হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ৩ জনকে আটক করেছে র‌্যাব-৪।

এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে প্রতারণার শিকার এক নারী ভু’ক্তভোগী।

সোমবার (৫ জুলাই) সন্ধ্যার দিকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেন ওই হাসপাতালের পরিচালক ডা. এ.কে.এস লতিফুল বারী।

এর আগে রবিবার (৪ জুলাই) দিবাগত রাতে ঢাকা জেলা সাভার উপজেলার আশুলিয়ার জামগড়া এলাকার ডক্টরস জেনারেল হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটকৃতরা হলেন, কিশোরগঞ্জ জেলার হোসেনপুর থানার গলাচিপা গ্রামের সামছুল হকের ছেলে মনিরুল আলম সোহেল (৪০), নওগা জেলার বদলগাছী থানার গোয়ালভিটা গ্রামের আফজাল হোসেনের ছেলে মুনসুর রহমান (৩৭) ও ঠাকুরগাঁও জেলার হরিপুর থানার কাঠালডাঙ্গী বাজার এলাকার মকবুল ইসলামের মেয়ে মেরিনা আক্তার মেরি (২২)(ভুয়া ডাক্তার)।

মামলার সূত্রে জানা যায়, গত ৪ জুলাই কোমড়ে ব্যাথা নিয়ে আশুলিয়ার ওই হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে যান এক নারী (২২)। তিনি হাসপাতালের যাওয়ার পরে রিসিপশনে কথা বললে তারা মনিরুল আলম সোহেল কে ডাক্তার পরিচয় দিয়ে তার সাথে সমস্যার কথা খুলে বলতে বলেন। পরে ওই নারী সোহেলের কাছে সকল বিষয় খুলে বলে। পরে ডাক্তার পরিচয়দানকারী সোহেল তাকে ডক্টরস জেনারেল হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার লেখা একটি প্যাডে কিছু ওষুধ লিখে সীল ছাড়াই স্বাক্ষর করে দেন। সীল ব্যতীত প্রেসক্রিপশন দেখে ওই নারীর সন্দেহ হলে তিনি হাসপাতালের বাহিরে গিয়ে সাধারণ মানুষের সাথে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেন।
পরবর্তীতে র‌্যাবের টহলটিম দেখে তাদেরকে বিষয়টি জানান ওই নারী। এক পর্যায়ে র‌্যাবের টহল টিম ওই নারীকে নিয়ে হাসপাতালে গিয়ে ওই ডাক্তারের কাগজপত্র দেখতে চাইলে কাগজ পত্র দেখাতে ব্যার্থ হওয়ায় র‌্যাব তাদেরকে গ্রেফতার করে।

গ্রেপ্তারের সময় তাদের নিকট থেকে ভুয়া কাগজ পত্র উদ্ধার করা হয়।

এ ব্যাপারে হাসপাতালের পরিচালক ডা. এ.কে.এস লতিফুল বারী বলেন, আমি এ বিষয়ে কিছু জানিনা, শুনেছি গতরাতে আমার হাসপাতালের তিনজনকে র‌্যবা ধরে নিয়ে গেছে। কেন নিয়েছে? তাও জানি না। আমি এ ব্যাপারে কোনো কাগজপত্র পাইনি।

এ বিষয়ে র‌্যাব-৪ (সিপিসি-২) শাখার কোম্পানী অধিনায়ক লে. কমান্ডার রাকিব মাহমুদ খানের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোনটি রিসিভ করেননি।

এ হাসপাতালটির নামে একাধিক কর্মচারী কর্মকর্তার অভিযোগও ইতিপূর্বে উঠেছে এবং আজকেও ডক্টরস জেনারেল হসপিটালের সাবেক এক কর্মকর্তা মোহাম্মদ নুর আলম সিদ্দিকী মানু’কে বলেন, আমি সহ একাধিক সাবেক কর্মকর্তা বকেয়া বেতন আদায়ের জন্য হাসপাতালে গেলে তার বড় ভাই ডিসি তার পরিচয়ে পুলিশ দিয়ে একাধিকবার হয়রানি করেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম