1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
বিট কর্মকর্তা নিরব বনের খালে বিষ দিয়ে মাছ শিকার | দৈনিক শ্যামল বাংলা
সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ০৩:০৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
হাটহাজারীতে আশ্রয়ণ প্রকল্পে বসবাসকারীদের মাঝে ত্রাণ বিতরণে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক দৈনিক ডাক প্রতিদিনের সম্পাদক আর নেই। বনানীতে টিবিএল ফুডের প্রথম সাধারন সভা অনুষ্ঠিত খুলল শিল্পকারখানা চাপে শ্রমিকরা __ দ্রুত শ্রমিকদের টিকা দিতে হবে শ্রীনগরে মসজিদের টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ সভাপতি’র বিরুদ্ধে সাংবাদিক হাবিব আল জালালের ইন্তেকাল শ্রীনগরে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মসিউর রহমান মামুন আশুরোগ মুক্তি কামনায় বিশেষ দোয়া মাহফিল চৌদ্দগ্রামে সাংবাদিক সিরাজুল ইসলাম ফরায়েজীর ভাই রফিকুল ইসলামের ইন্তেকাল চৌদ্দগ্রামে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে অসহায়দের মাঝে ঢেউটিন ও নগদ অর্থ প্রদান হাটহাজারী গুমানমর্দ্দন ইউনিয়নে নজরুল সংঘ কমিটি গঠন

বিট কর্মকর্তা নিরব বনের খালে বিষ দিয়ে মাছ শিকার

পটুয়াখালী প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১০ জুলাই, ২০২১
  • ৩২ বার

পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার মৌডুবি ইউনিয়নে আশাবাড়িয়া বনের খালে বিষ দিয়ে মাছ শিকার করেছে দুর্বৃত্তরা। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে উপজেলার মাতবরকান্দা গ্রামের আশাবাড়িয়া বাগানের খালে বিষ প্রয়োগ করে মাছ শিকার করে চার জেলে। সন্দেহভাজন খালে বিষ প্রয়োগের চারজন জেলের বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাকে জানালে গত শুক্রবার মৌডুবি বাজারে স্থানীয়দের উপস্থিতিতে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে ছেড়ে দেয়া হয়। এবং পরবর্তীতে তদন্তে প্রমাণ হলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

স্থানীয় এক জন জানান, এক মাস আগে বিট কর্মকর্তার থেকে ১৫ হাজার টাকায় দুইটি খাল লিছ নেই। খালে মাছ ধরার আগেই দিপু,আতিক,রাসেল ও ইয়াকুব চারজন মিলে আমার লিছ নেয়া খালে বিষ দিয়ে মাছ শিকার করে। বিষয়টি জাহিদ স্যারকে জানাই। প্রমাণ থাকা সত্বেও কোন অ্যাকশন নেয়নি। যদি না পারেন আমার টাকা দিয়ে দেন নয়তো আমারটা আমার মতো ছেড়ে দেন দু’এক টাকা খরচ হলে আমার মতো ব্যবস্থা করে নিবো। যেহেতু আমার কাছে ওদের জবানবন্দির প্রমাণ আছে। বিট কর্মকর্তা বিষ প্রয়োগকারীদের থেকে টাকা খেতে চেয়ে বলেই নিরব আছে। কোন ব্যবস্থা নেয়নি।
মৌডুবি ইউনিয়নের করিম বলেন, ঝাঁকি জাল দিয়ে মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করি। বিট কর্মকর্তা খাল লিছ দেয়ায় এখন আর দিয়ে মাছ ধরতে পারি না। অনেকে বিষ দিয়ে মাছ শিকার করে। নিজ চোখে দেখি। দেখা ছাড়া কিছুই করার নেই। বিষ দিয়ে মাছ শিকারের বিষয়টি বিট কর্মকর্তাকে জানালে কোন লাভ হয়নি। সে লোক ধরে আবার ছেড়ে দেয়।

মৌডুবি ফরেস্ট ক্যাম্পের বিট কর্মকর্তা জাহিদ প্রামানিক বলেন, বিষ প্রয়োগ করে মাছ শিকারের অভিযোগ পেয়েছি। বিষ প্রয়োগকারীদের বিরুদ্ধে খোঁজখবর নেয়া হবে। খাল লিছ দেয়ার বিষয়টি সত্য বলে জানান তিনি।
এ ব্যপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাশফাকুর রহমান বলেন, বিষ প্রয়োগ করে মাছ শিকারের অভিযোগ পেলে খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম