1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
রাউজানের শহীদ জাফর সড়কের নির্মাণ কাজ শেষ না হওয়ায় বেড়েছে চরম দূর্ভোগ- ঝুঁকি নিয়ে চলাচল - দৈনিক শ্যামল বাংলা
শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৩৫ পূর্বাহ্ন

রাউজানের শহীদ জাফর সড়কের নির্মাণ কাজ শেষ না হওয়ায় বেড়েছে চরম দূর্ভোগ- ঝুঁকি নিয়ে চলাচল

শাহাদাত হোসেন, রাউজান প্রতিনিধি:
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৪ আগস্ট, ২০২১
  • ৯৮ বার

রাউজানের জনগুরুত্বপূর্ণ শহীদ জাফর সড়কের নির্মাণ কাজ বিগত দুই বছরেও শেষ হয়নি। যার ফলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে স্থানীয় জনসাধারণ ও পার্বত্য অঞ্চলের মানুষদের। সড়ক ও জনপথ বিভাগের আওতায় ৩৫ কোটি টাকা ব্যয়ে শহীদ জাফর সড়কটি উন্নতকরণের জন্য বরাদ্দ দেয়া হয়। এই সড়কটির নির্মাণ কাজের টেন্ডার পায় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান চৌধুরী এন্টার প্রাইজ। গত২০১৯ সালের ৯ সেপ্টেম্বর শহীদ জাফর সড়কের উন্নয়নের কাজ শুরু হলেও এখনো কাজ শেষ করতে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান।রাউজান উপজেলা সদরের ডাক বাংলো থেকে শুরু হওয়া শহীদ জাফর সড়কটি পার্বত্য জেলার কাউখালী উপজেলার বর্মাছড়ির সাথে মিলিত হয়।সড়কটি দিয়ে প্রতিদিন স্থানীয় ও পার্বত্য অঞ্চলের হাজার হাজার মানুষ বিভিন্ন যানবাহন নিয়ে যাতায়াত করেন।বর্তমানে সড়কটি বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হয়েছে।এসব গর্তের মধ্যে বৃষ্টির পানি জমে সড়কটি খালে পরিণত হয়েছে। সৃষ্ট গর্তে কোথাও হাঁটু সমান পানি, আবার কোথাও কোমর সমান পানি জমে থাকে। সৃষ্ট গর্তে পানি জমে থাকায় সড়কের দু’পাশ দিয়ে পথচারীরা চলাচল করতে পারছে না কাদাপানির ছড়াছড়ি কারণে। প্রতিদিনই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করেছে স্থানীয় বান্দিসারা। এছাড়াও মারাত্মক ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করে যাত্রাবাহী সিএনজি অটোরিক্সা, ইট সহ অনান্য মালামাল বেঝাই ট্রাক ও চাঁদের গাড়ি জীপ।যে কোনো সময় ঘটতে পারে বড় ধরণে দুর্ঘটনা। তবে সড়কের নির্মান কাজ শুরু করার পর ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান চৌধুরী এন্টারপ্রাইজ সড়কের পুরাতন কালর্ভাট ভেঙ্গে নতুন করে কালভার্ট নির্মান করে রাউজান ডাকা বাংলো থেকে ডাবুয়ার হাসান খীল চেয়ারম্যান ঘাটা পর্যন্ত নির্মান কাজ করলেও অবশিষ্ট অংশের নির্মান কাজ শেষ করেনি। এই সড়কটির নির্মাণ কাজ কবে শেষ হবে এমন প্রশ্ন? স্থানীয় লোকজনের। সরেজমিনে দেখা যায়, সড়কে সৃষ্ট গর্তে বৃষ্টির পানি জমে থাকায় রাউজান উপজেলা সদর, রাউজান থানা, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন সেবামূলক প্রতিষ্ঠানে সেবা নিতে আসা এলাকার হাজারো মানুষ চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়। হলদিয়া ইউনিয়নের মেম্বার শাহজাহান নিজের টাকা দিয়ে কয়েকজন লোক দিয়ে সড়কে সৃষ্ট গর্তে জমে থাকা বৃষ্টির পানি সড়কের পাশে মাটি কেটে পানি সরিয়ে নেয়ার কাজ করতে দেখা যায়।স্থানীয় মেম্বার শাহজাহান বলেন, সড়কটির নির্মান কাজ কবে শেষ হবে জানিনা। সড়কের মধ্যে বড় বড় গর্ত হয়ে বিভিন্ন স্থানে পুকুর ডোবায় পরিণত হয়েছে। হলদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম বলেন,শহীদ জাফর সড়কের নির্মান কাজ শেষ হয়নি। সড়কের মধ্যে বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হয়ে যানবাহন চলাচল করছে মারাত্বক ঝুঁকি নিয়ে। এবিষয়ে বারবার এলাকার সাধারণ মানুষ আমাকে বলতেছেন।এবিষয়ে সড়ক ও জনপথ বিভাগ চট্টগ্রামের নির্বাহী প্রকৌশলী মিন্টু চাকমা বলেন, শহীদ জাফর সড়কটির নির্মাণ কাজের টেন্ডার পায় চৌধুরী এন্টার প্রাইজ নামে একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। আগামি ডিসেম্বর মাসের মধ্যে সড়কটির নির্মান কাজ শেষ করার সময়সীমা দেয়া হয়েছে ঠিকদারী প্রতিষ্ঠানকে।এরমধ্যে কাজ শেষ করতে না পারলে ঠিকদারী প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম