1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
রামগড় কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের স্টাফের মৃত্যুর খবর মসজিদ মাইকে প্রচার করায় ইমামকে লাঞ্ছিত করলো বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা - দৈনিক শ্যামল বাংলা
শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৪০ পূর্বাহ্ন

রামগড় কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের স্টাফের মৃত্যুর খবর মসজিদ মাইকে প্রচার করায় ইমামকে লাঞ্ছিত করলো বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা

মো: নিজাম উদ্দিন, রামগড় (খাগড়াছড়ি):
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৫৮ বার

রামগড় পাহাড়াঞ্চল কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের অফিস স্টাফ মুজিবুর রহমানের মৃত্যুর খবর কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের মসজিদের মাইকে প্রচার করায় গবেষণা কেন্দ্রের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. এসএম ফয়সাল এর হাতে মসজিদের ইমাম মাওলানা এমদাদুর রহমান (মামুন) লাঞ্ছিত হয়েছেন।

মাওলানা ইমদাদুর রহমান মামুন বলেন, গত কয়েক মাস পূর্বে কৃষি গবেষনায় কর্মরত বৈজ্ঞানিক সহকারী মোহাম্মদ করিম মন্ডল মারা যাওয়ার পর তাকে আমি গোসল ও জানাজা ব্যবস্থা করি এবং তার গ্রামের বাড়িতে লাশ নেওয়ার ব্যবস্থা করে দেওয়ার কারণে গবেষণা কেন্দ্রের প্রধান ড. এসএম ফয়সাল আমাকে প্রকাশ্যে অর্কথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে বলেন, কেন আমি করিম মন্ডলকে গোসল করালাম কেন এম্বুলেন্স ঠিক করলাম। এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার পাহাড়াঞ্চল কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের আরেকজন অফিস স্টাফ মুজিবুর রহমান মৃত্যুবরণ করলে আমি তার মৃত্যুর সংবাদটি মসজিদের মাইকে প্রচার করি। কেন্দ্রের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও মসজিদ কমিটির সভাপতি ড. এসএম ফয়সাল আমাকে মসজিদ থেকে ডেকে নিয়ে বৈজ্ঞানিক সহকারী হাসান, গাড়ির ড্রাইভার মোস্তাফা ও ক্যাশিয়ার সেলিম এর উপস্থিতিতে বিভিন্ন খারাপ ভাষায় গালমন্দ করেন, আমি কেন মুজিবুরের মৃত্যুর খবর মাইকে প্রচার করলাম, আমি এবিষয়ে ভুলক্রটি হলে তার কাছে মাফ চাইলাম, তবুও তিনি আমার সাথে খারাপ আচারণ করেই যাচ্ছেন, তিনি আমার মুখের দাঁড়ি নিয়েও কটাক্ষ করেন। যে ভাষায় তিনি আমাকে গালিগালাজ করেছেন তা ভাষায় প্রকাশ করার মত না, এত বড় অফিসারের মুখে এসব ভাষা মানায় না। ড.এসএম ফয়সাল মসজিদের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে যোগদানের পর থেকেই আমাকে অপমান অপদস্ত করে আসছেন, বার বার হুমকি দিচ্ছে আমাকে মসজিদ থেকে চাকুরীচ্যুত করবেন। অফিসের সবাইকে তিনি সব সময় আতঙ্কে রাখেন, অফিসের কোন লোকের কাছে মসজিদের কোন বিষয়ে সহযোগিতা পাওয়া যায় না, সবাই ফয়সাল সাহেবের ভয়ে মুখ বন্ধ রাখেন।

কমপাড়া সমাজ পরিচালনা কমিটি সুত্রে জানা গেছে রামগড় কমপাড়াস্থ পাহাড়াঞ্চল কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের এই মসজিদ দীর্ঘ পঞ্চাশ বছর সমাজ এবং কেন্দ্রের প্রধানের সহযোগিতায় চলে আসতেছে কিন্তু বর্তমান কেন্দ্র প্রধান ও মসজিদ কমিটির সভাপতি (পদাধিকারবলে) যোগদানের পর থেকে মসজিদ এবং ইমাম মোয়াজ্জেম নিয়ে নানান তালবাহনা শুরু করেন, তিনি যোগদান করেই মুয়াজ্জিনকে চাকুরীচ্যুত করেন। ইমামের সন্মানী ৫হাজার থেকে ৩হাজার টাকা করেন। এরপরও সমাজের মুসল্লিদের সহযোগিতায় ইমাম তাঁর দায়িত্ব সঠিকভাবে চালিয়ে যাচ্ছেন। উপজেলার প্রাচীনতম ২য় জামে মসজিদ হিসেবে পরিচিত সয়েল বাগান জামে মসজিদ গবেষণা কেন্দ্রের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. এসএম ফয়সালের কারণে বন্ধ হয়ে যাবার পথে। ইমামকে লাঞ্ছিত করায় মুসল্লি ও সমাজের লোকজনের মধ্যে দেখা দিয়েছে ক্ষোভ। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক, অতি দ্রুত এবিষয়ে একটি সুষ্ঠু সমাধানের প্রয়োজন মনে করছেন সমাজ পরিচালনা কমিটি।

জানা যায়, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার রামগড়ের ঐতিহ্যবাহী সুনামধন্য সরকারি প্রতিষ্ঠান পাহাড়াঞ্চল কৃষি গবেষণা কেন্দ্রটি ১৯২০ সালের মহুকুমা শহরের শুরু থেকেই রামগড়কে আলোকিত করে রেখেছে। ইতিমধ্যে রামগড় পাহাড়াঞ্চল কৃষি গবেষণায় সরকারি নিয়মকানুন কে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে মূল্যবান গাছ কর্তন সহ অফিসিয়াল বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ ওঠে গবেষণার দপ্তর প্রধান ড. এসএম ফয়সাল অশ্রু’র বিরুদ্ধে। এসব অনিয়মের কারণে তার বিরুদ্ধে যুগান্তরসহ বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হবার পর ড. বাবুল চন্দ্র সরকার এর নেতৃত্বে ৩ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছিল, তদন্ত কমিটি ঘটনার সত্যতা পেয়েছে এবং দাপ্তরিক আইন অনুযায়ী তদন্তের কাজ এখনও চলমান আছে।

এবিষয়ে জানতে রামগড় পাহাড়াঞ্চল কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও মসজিদ কমিটির সভাপতি ড. এসএম ফয়সাল অশ্রুর মুঠোফোনে একাধিক বার কল করলেও রিসিভ না করায় বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম