1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
পিরোজপুরের নেছারাবাদে বিধবা নারীকে জুতা পিটার অভিযোগ - দৈনিক শ্যামল বাংলা
রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০৫:০৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
আজ রোববার লালমনিরহাট ও কালীগঞ্জ উপজেলার ১৭টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন নবীগঞ্জ উপজেলায় ১৩ টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন।। আজ নির্বাচন ৪৮ টি ঝুকিপূর্ন আশুলিয়ায় শাহাবুদ্দিন মাদবরের নির্বাচনী আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত চট্টগ্রাম জেলা প‌রিষ‌দ টাওয়ারের মূল ভবন নির্মাণ কা‌জের উদ্বোধন রাউজানের সীমান্তবর্তী রাঙ্গামাটি জেলার কাউখালী উপজেলার ডাক্তার ছোলা এলাকায় পাহাড় কাটা হচ্ছে হাটহাজারীর ১৩ ইউনিয়ন পরিষদে ভোট কাল ধর্মপাশায় ৫ম ধাপে ১০টি ইউপিতে হবে নির্বাচন শ্রীনগরে জমি লিখে নিতে সাবেক ইউপি সদস্যের হুমকি” দেশের কোন আইন এই এলাকায় কিছু করতে পারবে না নাছির উদ্দীন এর জনমতে ঈর্ষান্বিত হয়ে তার পরিবারের উপর প্রতিপক্ষের হামলা মোবাইল চুরির অপবাদে বিবস্ত্র করে যুবককে নির্যাতন

পিরোজপুরের নেছারাবাদে বিধবা নারীকে জুতা পিটার অভিযোগ

পিরোজপুর প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২১
  • ২৫ বার

পিরোজপুরের নেছারাবাদে জেবুন্নেছা (৫০) নামে এক বিধবা নারীকে তিনটি জেুতার পিটান দিয়েছেন আব্দুল লতিফ ওরফে লতিফ সেক্রেরারি নামে এলাকার এক প্রভাবশালি নেতা। আব্দুল লতিফ উপজেলার গুয়ারেখা ইউনিয়নের ভরতকাঠি গ্রামের বাসিন্দা। আর ওই অসহায় নারী জেবুন্নেছা একই গ্রামের মৃত হালিম তালুকদারের স্ত্রী। রোববার সকালে ইউনিয়নের চাদকাঠি খেয়াঘাট বসে ওই মহিলা তার কাছে একটি সরকারি ঘর চাওয়ার কথা বলায় লতিফ মিয়ি ক্ষিপ্ত তাকে তিনটি জুতার পিটান দিয়েছেন। তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অভিযুক্ত লতিফ। এলাকার ইউপি নির্বাচনে বিধবা নারী জেবুন্নেছা নৌকা প্রার্থীর নির্বাচন করার অপরাধে লতিফ সেক্রেটারি তাকে জুতার পিটান দিয়েছেন বলে অভিযোগ ওই মহিলার। লতিফ মিয়ার জুতার পিটানের আঘাতে ওই নারী জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় তিনি নেছারাবাদ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসে সরকারি চিকিৎসা নিয়েছেন।

জেবুন্নেছা অভিযোগ করে বলেন, আব্দুল লতিফ ওই ইউনিয়নের একজন প্রভাবশালী নেতা। বিএনপি,জাতিয়পার্টি আমলেও সে এলাকার প্রভাবশালী লোক ছিলেন। আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় আসার পর থেকেও এলাকায় তার অনেক প্রভাব। যেকারনে গেল মাস পাচেক আগে লতিফ মিয়ার কাছে একটি সরকারি ঘর চেয়েছিলেন। পরে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তিনি(লতিফ মিয়া) স্বতন্ত্র প্রার্থী রব বিশ্বাসের নির্বাচন করেছেন। তিনি চেয়ারম্যানের খাস লোক। আর আমি(জেবুন্নেছা) নৌকা প্রার্থী সুব্রত ঠাকুরের নির্বাচন করেছি। সুব্রত চেয়ারম্যান হতে পারেনি। রোববার সকালে চাদকাঠি খেয়াঘাট বসে লতিফ মিয়ার সাথে আমার দেখা হয়। এসময় তার কাছে আবারও ঘরের কথা বললে তিনি বলেন, তুই সুব্রত ঠাকুরের নৌকার নির্বাচন করেছ। তোকে কেন ঘর দেব। এসময় জেবুন্নেছা তাকে বলেন বিএনপি জাতিয়পার্টি আমলে এলাকায় নেতৃত্ব দিয়েছেন। এখন আবার নৌকার নেতা হইছেন। একথা বলার সাথে সাথেই লতিফ মিয়া তাকে জনসম্মুখে সজোরে তিনটা জুটার পিটান দেন।

অভিযুক্ত লতিফ সিকদার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, জেবুন্নেছা তাকে ঘর পাইয়ে দেয়ার জন্য আমাকে তদবির করতে বলেছিল। তাই তাকে একটু গাল মন্দ করেছি।

এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান মো: রব সিকদার জানান, আমি পিরোজপুরে একটা কাজে আছি। ওই মহিলাকে লতিফ জুতার পিটান দিয়েছে কিনা তা আমি এখন পর্যন্ত শুনিনি। না জেনে বলতে পারবোনা।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম