1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
ডিএমই অফিস গিলে খাচ্ছে প্রভাবশালী ঠিকাদার সিন্ডিকেট! - দৈনিক শ্যামল বাংলা
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১০:০২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
রাউজানে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু আনোয়ারা প্রেস ক্লাবের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত রাউজানে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে শেষ হলো শারদীয় দুর্গাপূজা অসুর শক্তিকে ধ্বংস করে করে আওয়ামীলীগ আজ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় : এমপি হানিফ ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীর শাকিল হত্যা মামলার আসামি এক মাস ধরে পলাতক, ইউপি চেয়ারম্যানকে খুঁজছে পুলিশ ! উন্নয়নের সুষম বণ্টনই আমার প্রধান লক্ষ্য : নিবাচনী প্রচারণায় ভার্ড কামাল বিএসএফ’র গুলিতে বাংলাদেশী যুবক আহত । ঠাকুরগাঁওয়ে রাণীশংকৈলে বৈদ্যুতিক স্পর্শে প্রাণ গেল যুবকের! ঠাকুরগাঁও থেকে অপহৃত স্কুল ছাত্রী গাজীপুর থেকে উদ্ধার —আসামীরা পলাতক ! ১০ বছরেও সংস্কারের মুখ দেখেনি শীলকূপ-গন্ডামারা সড়ক, খানাখন্দে বেহাল জনদুর্ভোগ

ডিএমই অফিস গিলে খাচ্ছে প্রভাবশালী ঠিকাদার সিন্ডিকেট!

এম আর আমিন
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৯ জানুয়ারী, ২০২২
  • ১৫৭ বার

বাংলাদেশ রেলওয়ে পুর্বাঞ্চলের চট্টগ্রাম বিভাগের দায়িত্বে নিয়োজিত ডিভিশনাল মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার/লোকো (ডিএমই) মো. ওয়াহিদুর রহমান নিজ কার্যালয়ে পছন্দের ঠিকাদারদের নিয়ে একটি প্রভাবশালী সিন্ডিকেট গঠন করে এলটিএম পদ্ধতিতে রেলের মালামাল সরবরাহে কমিশনের মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বাজারের সবচেয়ে উচ্চ মুল্য দিয়ে কেনা হয় নিম্নমানের মালামাল যা ধরা পরার ভয়ে ল্যাবে পরীক্ষা ছাড়াই ব্যবহার করা হয়। তার এই সিন্ডিকেটের ফলে প্রতি বছরই মোটা অংকের টাকা গচ্ছা যাচ্ছে সরকারি এই সেবামুলক প্রতিষ্ঠানটির। নাম প্রকাশ না করার শর্তে এমন অভিযোগ তুলছেন সংশ্লিষ্ট দফতরেরই একাধিক ব্যক্তি। তবে সিন্ডিকেট এবং কমিশন বাণিজ্যটা একটা সিস্টেম আমি চাইলেও এটা বন্ধ করতে পারবনা। কোন দফতরে অনিয়ম নেই জানতে পাল্টা প্রশ্ন করেন ডিএমই।

ডিএমই অফিসের বিশ্বস্ত একটি সুত্রে জানা গেছে এখানে যারা মালামাল সরবরাহ করে থাকেন তাদের মধ্যে শক্তিশালী একটি সিন্ডিকেট রয়েছে এই সিন্ডিকেটের বাইরে এখানে কেউ ব্যবসা করতে পারেনা। ঠিকাদারদের এই সিন্ডিকেটের সদস্যদের মাঝে রয়েছে গণি, মোর্শেদ,নুরে আজম বাচ্চু, সুভাষ, মাহফুজ, মোস্তফা, জাহাঙ্গীর ও হালিম। সম্প্রতি ওই দফতরের ১ বছরের একটি কাজের তালিকা এই প্রতিবেদকের হাতে এসে পৌছেছে। যেখানে দেখা গেছে পুরো বছরের চাহিদার মালামালগুলো সরবরাহের জন্য উল্লেখিত ঠিকাদারদের একেজনকে ২০ থেকে ২৫ টি আইটেম সরবরাহের জন্য আদেশ দেওয়া হয়েছে। তবে কোন মালামালই ল্যাবে পরীক্ষা করা হয়নি বলে অপর একটি বিশ্বস্ত সুত্র জানিয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ওই দফতরের একাধিক ঠিকাদার জানান মালামাল সরবরাহ করতে হলে ১০ খেকে ১৫ শতাংশ কমিশন দিতে হয় আবার বিল নেওয়ার সময়ও আরেক দফা ঘুষ প্রদান করতে হয় তার উপর ভ্যাট ট্যাক্স। অফিসারদের চাহিদা মোতাবেক কমিশনের টাকা না দিয়ে ব্যবসা করার সুযোগ নাই আবার কমিশন দেওয়ার পর ভাল মানের মালামাল দিয়ে লাভতো দুরের কথা গুনতে হবে লোকসান। তাই যারা মোটা অংকের কমিশন দিতে পারবে তারাই ব্যবসা করতে পারবে বাজারের নিকৃষ্টমানের মালামাল সরবরাহ করবে। ভাল মানের মাল কিনলে যেখানে ৫/১০ বছর টিকবে সেখানে তারা নিম্নমানের মাল দিলে বছর না যেতেই তা আবার কিনতে হয় এর ফলে কমিশন খেকোদের সাময়িক লাভ হলেও পথে বসছে সেবামুলক এই সরকারি প্রতিষ্ঠানটি।

এব্যপারে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম পুর্বাঞ্চলের বিভাগীয় যন্ত্র প্রকৌশলী / লোকো (ডিএমই) মো. ওয়াহিদুর রহমান বলেন সিন্ডিকেট এবং কমিশন বাণিজ্যটা একটা সিস্টেম, আমি চাইলেও এটা পুরোপুরি বন্ধ করা সম্ভব নয় তবে আমি চেষ্টা করছি অনিয়ম আস্তে আস্তে কমিয়ে আনার জন্য। আপনি আমার সম্পর্কে খবর নিয়ে দেখতে পারেন আমার অনিয়ম তুলনামুলকভাবে অনেক কম। সিন্ডিকেট আগে আরো স্ট্রং ছিল আমি কিছু সংযোজন বিয়োজন করেছি। আমার উপর বিভিন্ন চাপ আছে আমি চাইলেও সমস্ত অনিয়ম বন্ধ করতে পারবনা।

এব্যপারে রেলওয়ে পুর্বাঞ্চলের প্রধান যন্ত্র প্রকৌশলী মো. বোরহান উদ্দীন বলেন আমিতো এসেছি কিছুদিন হলো বিষয়টি একটু খোজ নিয়ে দেখি যদি এমনটি হয়ে থাকে তবে সত্যিই দুঃখজনক। তবে আমি যতদিন আছি এসব ব্যপারে সজাগ থাকব।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম