1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
লন্ডন বিবিসি অফিসের সামনে নিরাপদ বাংলাদেশ চাই ইউকের মানববন্ধন - দৈনিক শ্যামল বাংলা
শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৬:০৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন দুর্বার’র নবনির্বাচিত সভাপতি মির্জা মিশকাতের রহমান ও সাধারণ সম্পাদক সৈকত চৌধুরী ৩নং বাঃহাঃ ইউনিয়নবাসী পক্ষ হতে জননেতা বীর বাহাদুর মন্ত্রী কে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। নির্বাচন কমিশনার মোঃ আনিসুর রহমান কে শরীয়তপুরে গণসংবর্ধনা। নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে নবম শ্রেণির ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু নবীনগরে নারীসহ ৪ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ইনাতগঞ্জে শালিস বৈঠকে পরিকল্পিত হামলা নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতিসহ আহত ৫ :: ২ জনকে ওসমানীতে প্রেরণ রাজবাড়ীতেপ্রাইমারি নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস। যাত্রীদের বাঁচানো সেই এসআই হেলাল উদ্দিন পুরস্কৃত সৈয়দপুরে নদীতে টিকটক করতে গিয়ে যুবকের মৃত্যু জমিজমা নিয়ে পূর্বের জেরে, বৈদ্যুতিক শক দিয়ে যুবককে হত্যার অভিযোগ

লন্ডন বিবিসি অফিসের সামনে নিরাপদ বাংলাদেশ চাই ইউকের মানববন্ধন

আমিনুল ইসলাম মুকুল, লন্ডন:
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৭ মার্চ, ২০২২
  • ৫৮ বার

সম্প্রতি ১৪ই মার্চ সোমবার নিরাপদ বাংলাদেশ চাই ইউকে’র আয়োজনে বাংলাদেশে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ফিরিয়ে দেওয়ার দাবিতে পূর্ব লন্ডনের আলতাব আলী পার্ক থেকে মৌন মিছিল নিয়ে লন্ডন বিবিসি অফিসের সামনে গিয়ে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।সংগঠনের সভাপতি মুসলিম খানের সভাপতিত্বে সেক্রেটারী তাহমিদ হোসেন খান ও সহ সেক্রেটারী আরিফ আহমদ এর যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন আসাদুল আহমদ, কালো বেইস পড়ে মৌন মিছিল উদ্বোধন করেন বিশিষ্ট রাজনৈতিক নেতা সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপি সহ সভাপতি আশিকুর রহমান আশিক।

মানববন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন বিগত জোট সরকারের রাষ্ট্রপতির উপ প্রেস সচিব ও সাপ্তাহিক সুরমা পত্রিকার সম্পাদক শামসুল আলম লিটন, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন দৈনিক আমারদেশ পত্রিকার সাবেক নির্বাহী সম্পাদক অলি উল্লাহ নোমান, এনবিসি ইউকের সহ-সভাপতি আমিনুল ইসলাম মুকুল, মো: তরিকুল ইসলাম ও মো: আসয়াদুল হক।এতে আরো বক্তব্য রাখেন আলী হোসাইন, সৈয়দ মোজাক্কির আহমদ, করিম মিয়া, মো: আবু তাহের, মোর্শেদ আহমদ খান, ইস্ট লন্ডন বিএনপি নেতা আশিকুর রহমান, নওশিন মোস্তারি মিয়া সাহেব, মো: সাইফুর রহমান রাজু, আব্দুস সামাদ খান, হাবিবুর রহমান, মো: ফরহাদ আলী, মো: ইকবাল হোসেন, আবু জাফর আব্দুল্যাহ, মোহাম্মদ মাসুদুল হাসান, শেখ আবুল ফাত্তাহ , কাওছার আহমেদ চৌধুরী , আলম আহমদ, মো:শাহরিয়ার ওয়াহেদ, আমিনুল ইসলাম, ইউসুফ আল আজাদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শামসুল আলম লিটন বলেন, আওয়ামী লীগ ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন তৈরি করে বাক স্বাধীনতা হরণ করেছে।তিনি শেখ হাসিনাকে লেডি হিটলার ও পুতিনের মানস কন্যা হিসেবে উল্লেখ করে তার ফ্যাসিবাদী শাসনের কবল থেকে ১৮০ মিলিয়ন মানুষকে রক্ষায় এগিয়ে আসতে বিশ্ববিবেকের প্রতি আহবান জানান।

তিনি বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ ও ৯০-এর গণঅভুত্থানে বিবিসি’র ঐতিহাসিক ভূমিকার কথা উল্লেখ করে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ব্যাপক মানবাধিকার লংঘন, সরকারি বাহিনী ও দলীয় সন্ত্রাসীদের হাতে গুম খুন ও ডিজিটাল সিকিউরিটি কালো আইনের মাধ্যমে দমন পীড়ন নিয়ে খবর প্রকাশ ও প্রচারের জোর আহবান জানান। তিনি আরও বলেন, যুক্তরাজ্যের মানুষের ট্যাক্সের অর্থে পরিচালিত গণমাধ্যম হিসেবে তারা এই বিষয়গুলোকে পাশ কাটাতে পারে না। যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি যেখানে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে সেখানে যুক্তরাজ্য সরকার ও বিবিসি কোনো কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণে ব্যর্থ হয়েছে।তিনি ইউক্রেন সংকটে যুক্তরাজ্য সরকার ও বিবিসি’র ভূমিকায় সন্তোষ প্রকাশ করে বাংলাদেশে মানবাধিকার ও গণতন্ত্রের প্রশ্নে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণের আহবান জানান।তিনি অবিলম্বে বাংলাদেশে ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনে আটক সকল রাজবন্দী ও বিবেকবন্দির মুক্তি, গুমের সকল ঘটনার বিচারবিভাগীয় তদন্ত ও বিচারের দাবি জানান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ওলীউল্লাহ নোমান বলেন, এই কালো আইন তৈরি করে ফ্যাসিবাদী সরকার ক্ষমতায় টিকে আছে।সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে এই সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনের গড়ে তুলতে হবে।সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম মুকুল বলেন, বর্তমান অনির্বাচিত সরকার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মাধ্যমে বিরোধী দল ও মতের মানুষের কণ্ঠ রোধ করেছে, লেখার স্বাধীনতা কেড়ে নিয়েছে।সাংবাদিক নির্যাতনের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে এই কালো আইন।দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণেও ব্যর্থ এই দুর্নীতিগ্রস্ত সরকার।তিনি অবিলম্বে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করার আহবান জানান।মো: তরিকুল ইসলাম বলেন, সরকার ভিন্নমতের কাউকে সহ্য করছে না।গুম, খুন, হামলা, মামলা ও গ্রেফতারের মাধ্যমে বিরোধীদল দমন করছে।মোঃআসয়াদুল হক বলেন, ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন নিকৃষ্ট কালো আইন।সভাপতির বক্তব্যে মুসলিম খান বলেন, কালো আইন বাতিল ও বন্ধ গণমাধ্যমের খুলে দেওয়ার আহবান জানান।

মানব বন্ধনে আরো উপস্হিত ছিলেন শফিউল আরফিন জুনেদ,মো: আমিনুর রহমান, মো: সৈয়দুল ইসলাম, রফিক আহমদ,ইসলাম উদ্দীন, সাহেল আহমদ, মঈনুল ইসলাম, সায়েম আহমদ, মো: আক্তার হোসেন, আজমল আলী, এহসানুল হক,শাহিন আহমদ, আজিজ আহমদ চৌধুরী, মো: জাহাংগীর আহমেদ, মো: আবুল কালাম আজাদ, জসিম উদ্দীন, মো: ফান্টু ,বিলাল আহমদ,মো: জাবেদ চৌধুরী, ছাবের আহমদ, তুহিন আহমদ, সালেহ আকরাম, মুসিবুর রহমান, ওমর সানি, মোছা: নিপা বেগম, মাজেদা আক্তার, আবুল কালাম আজাদ লস্কর, মির্জা সাইফুল, মির্জা মহি উদ্দীন, মির্জা এনামুল হক, মোহাম্মদ আনিছুর রহমান, মোহাম্মদ আলীম উদ্দীন, আবুল কালাম আজাদ লস্কর,সোহেল আহমেদ, ফারিয়া আক্তার সুমি,রেজাউল করিম,আহমদ আলী, শহিদুর রহমান, নুরুল ইসলাম মাসুদ, সাইদ আহমদ, মামুন মিয়া, মাহফুজ আহমদ চৌধুরী, ইকবাল হোসাইন, শারমিন আহমেদ, মো: নজমুল হাসান খান, তারেক হাছান, খন্দকার শামছুল আরিফিন, আকবর হোসাইন, আছাদ আহমদ, নাইমুল ইসলাম হিমেল, সাইদুজ্জামান, মো: হিফজুর রহমান, আব্দুল ওয়ালী শামীম,সফিউল আলম,জামিল উদ্দীন,রাহেল আহমদ,মোহাম্মদ মাহফুজুর রহমান, তাজ উদ্দীন,তামজিদুর রহমান,সালমান উদ্দীন,ইমরান আহমদ নাঈম,আব্দুল্লাহ মো: রায়হান,তানিম আহমদ,নুমান আহমদ,আহমদ আলী, সুমেনা বেগম ।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম