1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
বন কর্তাদের মাসোহারা দিয়ে চলছে বালু উত্তোলন খুটাখালী বালি ইজারাদারদের ব্যাখা - দৈনিক শ্যামল বাংলা
রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ০৪:০০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
নবীনগরে কোটাপদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল রাউজানে তিনদিন ব্যাপী বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন রাউজানে ৬০ প্রজাতির ১ লাখ ৮০ হাজার ফলজ ও ঔষধি গাছের চারা রোপন কর্মসূচি উদ্বোধন মাগুরায় নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান শরিয়াতউল্লাহ হোসেন রাজনকে গণসংবর্ধনা প্রদান  *জরুরী রক্ত প্রয়োজন*রক্তের গ্রুপ: AB+ (এবি পজেটিভ) ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে চৌদ্দগ্রামে তিন ছাত্রলীগ নেতার পদত্যাগ কক্সবাজারে সাংবাদিকদের উপর আ’লীগ-ছাত্রলীগের হামলা সারাদেশে ছাত্রসমাজের উপর মর্মান্তিক হামলার প্রতিবাদ ও কোটা সংস্কারের এক দফা দাবিতে দোহাজারীতে বিক্ষোভ মিছিল  এমএসআর’র ১ কোটি ২৬ লক্ষ টাকা লুটপাট সমস্যায় জর্জরিত চট্টগ্রামের চন্দনাইশ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স-অধিকাংশ চিকিৎসক অনুপস্থিত থাকেন নবীনগরে কুতুবিয়া দরবার শরীফে শাহাদাতে কারবালা মাহফিল অনুষ্ঠিত

বন কর্তাদের মাসোহারা দিয়ে চলছে বালু উত্তোলন খুটাখালী বালি ইজারাদারদের ব্যাখা

কক্সবাজার প্রতিনিধি।
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২২
  • ১৬০ বার

গত ১৩ এপ্রিল জাতীয় দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশ পত্রিকায় প্রকাশিত” বনকর্তাদের মাসোহারা দিয়ে চলছে বালু উত্তোলন” শীর্ষক সংবাদটি আমার দৃষ্টি গোচর হয়েছে।
সংবাদে আনিত অভিযোগ সম্পুর্ন বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। প্রকাশিত সংবাদের সাথে বালি মহালকে সম্পৃক্ত করে একটি মহল অপপ্রচার চালিয়ে নিজেদের ভিলিজারি সম্পত্তির দখল বাণিজ্য অব্যহত রাখতে বনকর্মকর্তাদের কাছে ধোয়া তুলসী পাতা বনেছে। যার চিত্র সরজমিন পরিদর্শন করা হলে থলের বিড়াল বের হয়ে আসবে।

সংবাদে উল্লেখ করা হয়েছে কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের ফুলছড়ি রেঞ্জের খুটাখালী সংরক্ষিত বন যেন কর্তৃপক্ষহীন।
বিস্তীর্ণ বনভূমিতে রাজত্ব করছে বনখেকো ও বালুদস্যুচক্র।
এমনতর অপ্প্রচারে রীতিমত বালি ইজারা ব্যবসায়ী বিস্ময় প্রকাশ করেছেন।

ইজারাদার সাইফুল ইসলাম দাবী করছেন প্রায় কোটি টাকা রাজস্ব দিয়ে সরকারী ভাবে খুটাখালী ছড়াখাল ইজারা নিয়ে ভোগ করে আসছি।
সরকারী সব নির্দেশনা মেনে এবং বনবিভাগের সংরক্ষিত বনে ইজারাদারদের কোন ভুমিকা এমনকি পাহাড় কাটা ও বন ধ্বংসত্বক কাজে কেহ জড়িত নই।

সম্প্রতি উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নের মৃত ইছমাইলের পুত্র আমির সোলতান তার বড় ভাই হাবিবুর রহমানের ভিলিজারি জমি দখল-বেদখলে চলে যায়।
আর্থিক সমস্যায় জর্জরিত হয়ে বড় ভাই মালেয়েশিয়া চলে গেলে আমির সোলতান রাতারাতি বনে যান ভিলিজার ও জমির মালিক।

এসব জমি তার ভাই বিভিন্ন সময়ে বন্ধক দিয়ে লাখ লাখ টাকা নিয়ে লাপাত্তা হন।
অপরদিকে তার ছোট ভাই ফজলুর সাথে ইজারাদার সাইফুলের পারিবারিক একটি বিরোধ চলে আসছিল। ঐ বিরোধকে পুঁজি করে আমির সোলতান গং বনবিভাগ ও সাংবাদিকদের ভুলবাল বুঝিয়ে সংবাদ প্রচার করে অভিযান চালায়।

এসময় বনবিভাগ বালি ইজারাদারদের কোন সম্পৃক্ততা না পেয়ে ফিরে আসেন।
সংবাদে যে সব নামে অভিযুক্ত করা হয়েছে তারা দীর্ঘদিন ধরে সাইফুলের সাথে বালি ইজারা ব্যবসার সাথে জড়িত।
পারিবারিক ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে মুলতঃ আমির সোলতান ইজারাদারদের নিয়ে একটি মঞ্চ নাটক সাজিয়েছে।
তার এসব অপকর্মের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে সরকারী বিভিন্ন দপ্তরে নালিশী অভিযোগ দেয়া আছে।

আমি প্রকাশিত সংবাদে বনবিভাগসহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে বিব্রত না হওয়ার আহবান জানিয়ে মিথ্যা ভুয়া সংবাদের জোর প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
প্রতিবাদকারী,সাইফুল ইসলাম
(মেসার্স সাইফুল এন্ড ব্রাদার্স)
ইজারাদার,খুটাখালী ছড়াখাল বালি মহাল।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম