1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
সিইউএফএল সার কারখানার বিষাক্ত পানি খেয়ে গবাদি পশুর মৃত্যু - দৈনিক শ্যামল বাংলা
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ১২:১৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
নবীনগরে কোটাপদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল রাউজানে তিনদিন ব্যাপী বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন রাউজানে ৬০ প্রজাতির ১ লাখ ৮০ হাজার ফলজ ও ঔষধি গাছের চারা রোপন কর্মসূচি উদ্বোধন মাগুরায় নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান শরিয়াতউল্লাহ হোসেন রাজনকে গণসংবর্ধনা প্রদান  *জরুরী রক্ত প্রয়োজন*রক্তের গ্রুপ: AB+ (এবি পজেটিভ) ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে চৌদ্দগ্রামে তিন ছাত্রলীগ নেতার পদত্যাগ কক্সবাজারে সাংবাদিকদের উপর আ’লীগ-ছাত্রলীগের হামলা সারাদেশে ছাত্রসমাজের উপর মর্মান্তিক হামলার প্রতিবাদ ও কোটা সংস্কারের এক দফা দাবিতে দোহাজারীতে বিক্ষোভ মিছিল  এমএসআর’র ১ কোটি ২৬ লক্ষ টাকা লুটপাট সমস্যায় জর্জরিত চট্টগ্রামের চন্দনাইশ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স-অধিকাংশ চিকিৎসক অনুপস্থিত থাকেন নবীনগরে কুতুবিয়া দরবার শরীফে শাহাদাতে কারবালা মাহফিল অনুষ্ঠিত

সিইউএফএল সার কারখানার বিষাক্ত পানি খেয়ে গবাদি পশুর মৃত্যু

আনোয়ারা সংবাদ দাতা:
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২২
  • ৯৬ বার

আনোয়ারায় সার কারখানার বিষাক্ত বর্জ্য পানি খেয়ে তিন গবাদিপশুর মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। আনোয়ারা উপজেলার রাঙ্গাদিয়া মাঝেরচর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিয়ম অনুসারে বিষাক্ত পানি মিষ্টি করে ছাড়া তবে কতৃপক্ষ বরাবরই নিয়ম নিতি মানছে না। শুক্রবার (১৫ এপ্রিল) সকাল ১০ টায় সিইউএফএল ও ডি এ পি সার কারখানার জিএম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। অন্যদিকে সংঘটিত ঘটনা সি ইউ এফএল ও ডিএপি সার কারখানা কর্মকর্তারা বিষাক্ত বর্জ্য পানির খালে ছাড়া বিষয়টি দায় নিচ্ছে না। আনোয়ারা উপজেলার রাঙ্গাদিয়া মাঝের চর গত বৃহস্পতিবার বিকেলে সার কারখানা বিষাক্ত বর্জ্য পানি খেয়ে ৩ গবাদিপশুর মৃত্যু হয়েছে। রাত দশটায় ডিএপি সার কারখানার গেটের সামনে দুইটি মরা গরু রেখে মালিকেরা প্রতিবাদ জানান।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের ক্ষতিপূরণের আশ্বাসে গবাদিপশুর মালিকেরা স্বস্তির নি:শ্বাস ফেলে। শুক্রবার সকাল দশটায় সি ইউ এফ এল এর জিএম মাইনুল ইসলাম ও ডিএপি সার কারখানা জিএম আব্দুল জলিল এলাকায় পরিদর্শন যান। পরিদর্শনকালে দুটি গরুর মৃত্যু নিশ্চিত করেন। তবে আরো গবাদিপশুর মৃত্যু হলে জানানোর জন্য মালিকদেরকে বলা হয়েছে।

এ ব্যাপারে বারশত ইউপি চেয়ারম্যান এমএ কাইয়ুম শাহ বলেন, সি ইউ এফ এল কতৃপক্ষকে বারবার বলার পরও বিষাক্ত বর্জ্য পানি খালে ছাড়া হচ্ছে। এসব পানি খেয়ে গবাদিপশুর মৃত্যু হচ্ছে। এ পর্যন্ত তিনটি গরু মারা গেছে গবাদিপশুর মালিক মোহাম্মদ হোসেন জানান সিইউএফএলের বিষাক্ত বর্জ্য পানি খেয়ে গরুর মৃত্যু হয়েছে। আমরা ক্ষতিপূরণের দাবি জানিয়েছে।

সি ইউ এফ এলের জি এম মাইনুল ইসলাম জানান, কারখানা থেকে কোন ধরনের বর্জ্য পানি ছাড়া হয়নি। যেখানে গরু মারা গেছে সেদিক দিয়ে সিইউএফএল এর বর্জ্য সাগরে যায় না। ডিএপি সার কারখানার জিএম আব্দুল জলিল জানান সিইউএফএলের ড্রেনের পানি খেয়ে গরুর মৃত্যু হয়েছে। এদিকে গবাদিপশুর মালিকেরা বিপাকে পড়েছে। রাঙ্গাদিয়া মাঝেরচর গোচারণ ভূমি হিসেবে পরিচিত। গবাদিপশুর মালিকেরা গোচারণ ভূমিতে গরু ও মহিষ নিচ্ছে না। গতবছরও গরু মারা গিয়েছিল।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম