1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
ঠাকুরগাঁওয়ে কালো জাম বিলুপ্তির পথে । - দৈনিক শ্যামল বাংলা
শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১২:৫৬ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
শিক্ষক হেনস্তায় নিন্দা, প্রতিবাদ ও শাস্তির দাবি কুবি শিক্ষক সমিতির তিতাসে সাংবাদিক শামসুদ্দিন আহমেদ সাগরের জন্মদিন পালন মীরসরাইয়ে অপরিকল্পিত রাস্তা নির্মাণের কারণে পানি বন্দি কয়েক হাজার মানুষ মীরসরাইয়ে প্রথমদিনে ৫ ইউনিয়নে টিসিবির পণ্য বিতরণ সাতকানিয়া পৌরসভায় ৫৮ কোটি ৪৩ লাখ টাকার বাজেট ঘোষণা বাবা-মায়ের কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শা‌য়িত ডাঃ মুমিনুল হক চৌধুরী নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে কাভার্ড ভ্যানের চাপায় নিহত ৫, আহত ৪ সৈয়দপুর পৌরসভার ১৭১ কোটি ২৮ লাখ টাকার বাজেট ঘোষণা করলেন মেয়র রাফিকা আকতার জাহান চন্দনাইশে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আটক-৪ মান্দায় যুবলীগ নেতার ওপর হামলা, গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

ঠাকুরগাঁওয়ে কালো জাম বিলুপ্তির পথে ।

মোঃ মজিবর রহমান শেখ,,
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৩ জুন, ২০২২
  • ৯ বার

ছয় ঋতুর দেশ বাংলাদেশ। তাই ঋতুর পালাবদলে চলছে মধুমাস। মধুমাসে ঠাকুরগাঁও জেলার বিভিন্ন বাজারে দেখা মিলছে আম, কাঁঠাল, লিচু, পেয়ারা সহ হরেক রকম দেশি-বিদেশি ফলের। আর এই অসংখ্য ফলে ভিড়ে হারিয়ে যেতে বসেছে কালো জাম। পল্লী কবি জসীম উদ্দীনের তার ‘মামার বাড়ি’ কবিতায় লিখেছেন ″পাকা জামের মধুর রসে রঙিন করি মুখ″।

আমরা ছোট বেলায় এই কবিতার লাইনটার সঙ্গে সকলেই পরিচিত। কিন্তু মধুমাস চললেও এখন আর খোকা-খুকিদের মুখে রঙ্গীন রসের চিহ্ন দেখা যায় না। তাই কবির কাব্যের সাথে বিলুপ্তের পথে আজ এই ফলটি। সরেজমিনে ঠাকুরগাঁও জেলার বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে দেখা যায়, কয়েক বছর আগে বিভিন্ন রাস্তায়,পুকুর ঘাটে, বাড়ির আঙ্গিনায় সহ বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানে জাম গাছ চোখে পড়লেও এখন তা প্রায় বিলুপ্তির পথে। সালন্দর ইউনিয়নের সাদেকুল ইসলাম ও শায়ের আলী জানায়, আধুনিক চাষাবাদের পরিক্রমায় জাম গাছ রোপণ না করায়, দিনে দিনে কমছে যাচ্ছে এই গাছের সংখ্যা। ফলে বাজারে মিলছেনা কালো জাম । ভাগ্যক্রমে মিললেও কিনতে হচ্ছে ১৫০-২০০শত টাকা কেজি দরে। এছাড়াও বালিয়াডাঙ্গী মানিক আলী বলেন,কালো জাম গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী সুপরিচিত একটি ফল। শিশু ও বৃদ্ধরা খেতে পারে সুস্বাদু এই ফলটি। নতুন প্রজন্মের জন্য প্রাচীন এ ফলটি টিকিয়ে রক্ষা করা খুব জরুরি।

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ কৃষ্ণ চন্দ্র রায়, বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা কৃষিবিদ সুবোধ চন্দ্র রায়, জানায়,কালো জাম নিসন্দেহে একটি পুষ্টিকর ফল। অন্যান্য ফলের নেয় এ ফলটি বাণিজ্যিক ভাবে আমাদের ঠাকুরগাঁও জেলায় চাষাবাদ হচ্ছে না। তবে আমাদের কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে আমরা প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে আমা,জাম,কাঠাল সহ বিভিন্ন ফলজ বৃক্ষ রোপনের পরামর্শ প্রদান করে আসছি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম