1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
শীতকালীন সবজি চাষে ব্যস্ত কৃষকেরা, সারের দাম বাড়ায় বিপাকে কৃষক - দৈনিক শ্যামল বাংলা
সোমবার, ০২ অক্টোবর ২০২৩, ১১:২৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
এডিস মশা নিরোধক বিটিআই পণ্যের উদ্বোধন অস্বচ্ছল প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের অনুদান প্রদান – সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী বিনামূল্যের সরকারি বই কেজি দরে বিক্রি। কোটি টাকার বিনিময়ে নাঙ্গলকোট উপজেলা সমিতির কমিটি শ্রীপুর পৌরসভার পৌর নির্বাহী কর্মকর্তার অর্থ-আত্মসাৎ,দুর্নীতি ও স্বেচ্ছারিতার অভিযোগ উঠেছে শ্রীপুরে ৩দিনব্যাপী জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবসে উন্নয়ন মেলা’র উদ্বোধন দিনাজপুরে দিনব্যাপী উৎসবমুখর পরিবেশে পুষ্টি উৎসব অনুষ্ঠিত তিতাসে জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস উপলক্ষে উন্নয়ন মেলা উদ্বোধন ঠাকুরগাঁওয়ে জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা কৃষক লীগের ৩ মাসের কমিটির দীর্ঘ ৩বছর ধরে পদ বানিজ্যের অভিযোগ থাকলেও দেখার কেউ নেই!

শীতকালীন সবজি চাষে ব্যস্ত কৃষকেরা, সারের দাম বাড়ায় বিপাকে কৃষক

মোঃ জুয়েল রানা, তিতাস প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২২
  • ১৯৮ বার

শীত সামনে রেখে আগাম শাক-সবজি চাষে ব্যস্ত কুমিল্লার তিতাস উপজেলার কৃষকেরা। ইতিমধ্যে উপজেলার বাজারগুলোতে উঠতে শুরু করেছে শীতকালীন সবজি। তবে বাজারে শাক-সবজির দাম ভালো পাওয়ায় খুশি কৃষকেরা। ফলে চড়া দামে বিভিন্ন সবজির চারা ও সার কিনলেও বেশি দাম পাওয়ার আশায় স্বস্তি প্রকাশ করেছেন তাঁরা।

উপজেলা কৃষি অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, চলতি রবি মৌসুমে উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে ৪৫০ হেক্টর জমিতে টমেটো, ফুলকপি, বাঁধাকপি, মুলা, পালংশাক, বেগুন, শিম, বরবটিসহ বিভিন্ন শাক-সবজির আবাদ হয়েছে।

উপজেলার ইউসুফপুর, গাজীপুর, ঐচাররচর ও কদমতলী গ্রাম ঘুরে দেখা গেছে, কৃষকেরা শীতের সবজিখেতে কেউ আগাছা পরিষ্কার করছেন, কেউ কীটনাশক দিচ্ছেন। বেড়ে উঠছে শাক-সবজির চারা। অনেকেই ইতিমধ্যে মুলা, মুলা শাক, লাউ ও লালশাক বিক্রি শুরু করেছেন।

কদমতলী গ্রামের বাসিন্দা কৃষক আলমগীর হোসেন বলেন, ‘গত বছর ৪ হাজার ফুলকপির চারা কিনেছি ১ হাজার ৪০০ টাকায়। এ বছর এক হাজার চারার দাম ১ হাজার ৮০০ টাকা। ৪ হাজার চারা কিনেছি ৭ হাজার ২০০ টাকা দিয়ে।’

আলমগীর আরও বলেন, ‘প্রতিবছর তিন-চার কানি জমিতে সবজি চাষ করতাম। এ বছর সার ও বীজের দাম বেশি হওয়ায় ৩১ শতক জমিতে ফুলকপি চাষ করেছি। তবে বাজারে এ বছর সবজির দাম অনেক বেশি। আশা করি চাষাবাদের খরচ উঠবে।’

কৃষক সিরু মিয়া বলেন, সারের দামের কারনে বেশি ফসল ফলাতে পারছি না। এছাড়াও সরকার যদি আমাদের সরিষা ও ভুট্টার বীজ না দেয় তাহলে আমার বিপাকে পরতে হবে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সালাহ উদ্দিন বলেন, এ বছর শীতের শাকসবজি আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৪৫০ হেক্টর জমিতে। এর মধ্যে টমেটো ৫৬ হেক্টর, লাউ ৪৬ হেক্টর, লালশাক ৪৬ হেক্টর, মুলা ৩৭ হেক্টর, বেগুন ২৮ হেক্টর ও শিম ৪৫ হেক্টর। এ ছাড়া ১৯২ হেক্টর জমিতে অন্যান্য শাকসবজির আবাদ করা হয়েছে। তবে মাঠ পর্যায়ে শাক-সবজি চাষের ওপর কৃষকদের পরামর্শ দিয়ে আমরা সহযোগিতা করে আসছি। যাঁরা বসতবাড়িতে শাক-সবজি চাষ করেন, তাঁদেরকে আমরা সার, বীজসহ আনুষঙ্গিক সহযোগিতা দিচ্ছি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম