1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
বিয়ের পরও রক্ষা পায়নি কিশোরী শামিরা, প্রেমিক রাকিব অপ্রচার চালাচ্ছে কিশোরীর মায়ের বিরুদ্ধে - দৈনিক শ্যামল বাংলা
রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ০৪:০২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
মানিকছড়িতে ইউপিডিএফ (মূল) এর প্রতিবাদ ধর্মঘট ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীতে প্রকল্পে সঞ্চয়ের টাকা পেলেন ৮০ জন নারী শ্রমিক ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীতে নির্মাণের ২ বছরের মাথায় ধসে গেল সাড়ে ৩ কোটি টাকার ব্রিজ ! চৌদ্দগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত ঠাকুরগাঁওয়ে পুলিশের উদ্যোগে মাদকদ্রব্য উদ্ধার সহ ১১ জন গ্রেপ্তার সৈয়দপুরে ৪ হাজার গছের চারা বিতরণ দায়িত্ব পালন না করেও বেতন নিচ্ছেন মৈশকরম প্রাইমারি স্কুলের দপ্তরি শফি মাগুরায় রাতের আঁধারে বীর মুক্তিযোদ্ধার ঘর পোঁড়ানোর অভিযোগ!!! রাজবাড়ী থেকে কুচাঁ যাচ্ছে দেশের বাইরে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জাপানি ভাষা শ্রেণিকক্ষ উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন

বিয়ের পরও রক্ষা পায়নি কিশোরী শামিরা, প্রেমিক রাকিব অপ্রচার চালাচ্ছে কিশোরীর মায়ের বিরুদ্ধে

রাউজান (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১২ জানুয়ারি, ২০২৩
  • ১০২ বার

রাউজান উপজেলার পশ্চিম গুজরা ইউনিয়নের মগদাই আবুল হোসেন বাড়ীর প্রবাসী মোঃ রফিকের কন্যা শামিরা আকাতার ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী । প্রবাসী মোহাম্মদ রফিকের স্ত্রী জোহরা বেগম তার কন্যা শামিরা আকতারকে নিয়ে হটহাজারী উপজেলার বুশ্চিম নজুমিয়া হাটে হারুন বিল্ডিং এর ২তলায় ভাড়া বাসায় থাকেন। গত ২০২২ সালের ৩১ অক্টোবর প্রবাসী মোঃ রফিকের কন্যা শামিরা আকতারকে রাউজান উপজেলার পশ্চিম গুজরা ইউনিয়নের মগদাই মঙ্গল চাদের বাড়ীর মরহুম ছালেহ আহম্মদের বখাটে রাকিব তার পরিবারের সদস্যরা অপহরন করে নিয়ে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে আটক করে রাখে । এঘটনার কিশোরী শামিরা আকতারের মাতা জোহরা বেগম বাদী হয়ে গত ৭ নভেম্বর আদালতে মামলা দায়ের করেন । মামলায় রাকিব, তার ভাই আবদুল্লাহ আলাউদ্দিন সহ অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামী করা হয়। মামলা দায়ের করার পর শামিরা আকতারকে স্থানীয় চেয়ারম্যানের কাছে রাকিব ও তার পরিবারের সদস্যরা হাজির করে। স্থানীয় চেয়ারম্যান সাহাবুউদ্দিন শামিরা আকতারকে তার মাতা জোহরা বেগমের কাছে হস্তান্তর করে। পরবর্তী রাকিব ও তার সহয়োগীরা শামিরা আকতারকে আবারো অপহরন করার প্রচেষ্টায় মেতে উঠে । এতে শামিরার মাতা জোহরা বেগম বাধ্য হয়ে তার কন্যা শামিরা আকতারকে পটিয়া উপজেলার ভাটিখাইন নবী সওদাগরের বাড়ীর আমানত উল্লাহর পুত্র প্রবাসী আলাউদ্দিনের সাথে হলফনামা মুলে বিয়ে দেয় । বিয়ের পর শামিরার শ্বাশুর বাড়ী পটিয়া থেকে জোহরা বেগমের ভাড়া বাসায় বেড়াতে আসলে রাকিব আবারো ফুসলিয়ে শামিরাকে নিয়ে যায় । এর পর রাউজানের কদলপুর রাকিবের আত্বীয়ের বাড়ী থেকে খোজে বের করে শ্বশুর বাড়ীতে পাঠানো হয় । গত ১২ দিন পুর্বে শামিরা আকতারকে তার শ্বাশুর বাড়ী থেকে তার মাতা জোহরা বেগম হাটহাজারীর নজু মিয়ার হাটের বাসায় বেড়াতে আসলে রাকিব আবারো শামিরা আকতারকে ফুসলিয়ে নিয়ে অজ্ঞাত স্থানে আটক করে রাখেন । রাকিব শামিরা আকতারকে ভয় ভীতি প্রর্দশন করে আপন মাতা জোহরা বেগম আত্বীয় স্বজনদের বিরুদ্ধে একটি অনলাইন পোষ্টালের মাধ্যমে অপ্রচার চালিয়ে আসছে বলে শামিরা আকতারের মাতা জোহরা বেগম গতকাল ১২ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার বিকালে রাউজান প্রেস ক্লাবে উপস্থিত হয়ে সংবাদ সম্মেলনে তার বক্তব্যে এ কথা বলেন।জোহরা বেগম তার কন্যা শামিরা আকতারকে বিয়ে দিয়ে বখাটে রাকিবের হাত থেকে রক্ষা পেলনা বলে দাবী করে আরো বলেন, আমি ও আমার পরিবারের সদস্যরা এই নির্মম ঘটনার সুষ্ট বিচার চাই সংশ্লিষ্ট মহলের কাছে ।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম