1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
বাঁশখালীতে জলদস্যু সেলিম সহ ৪জন অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার - দৈনিক শ্যামল বাংলা
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৪:২৭ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
এখনো প্রত্যন্ত চর অঞ্চলে মহিষের পাল ছাড়িয়ে রাঁখাল ওকি গাড়িয়াল ভাই এর গানের সুর তুলেন তার বাঁশিতে!!! চৌদ্দগ্রামে দৈনিক দেশ রূপান্তর এর ৫ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত শ্রীপুরে মহাসড়ক অবরোধ করে শ্রমিকদের বিক্ষোভ সৈয়দপুরে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ বদলে গেছে লালমনিরহাটের তিন বিঘা করিডোর ও দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা ছিটমহল চৌদ্দগ্রাম প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ৩ দিন ব্যাপী বার্ষিক আনন্দ ভ্রমণ সম্পন্ন চৌদ্দগ্রামে শুভ সংঘের উদ্যোগে অস্বচ্ছল নারীদের সেলাই প্রশিক্ষণের উদ্বোধন ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চললে কেউ অপরাধ করতে পারে না নবীগঞ্জে ঠাকু অনুকূল চন্দ্রের জন্মোৎসবে এসপিআর কালী চরন মন্ডল Pilot video game in Kenya ঠাকুরগাঁওয়ের বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ বীর মুক্তিযোদ্ধা তৈমুর রহমানের ইন্তেকাল !

বাঁশখালীতে জলদস্যু সেলিম সহ ৪জন অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার

বাঁশখালী প্রতিনিধি, চট্টগ্রামঃ
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩
  • ৬৭ বার

র‌্যাব-৭ ও র‌্যাব সদর দপ্তরের গোয়েন্দা শাখার একটি যৌথ আভিযানিক দল গোপন সংবাদে খবর পেয়ে চট্টগ্রামের বাঁশখালী থেকে জলদস্যুতার সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত ৪ জলদস্যুকে গ্রেপ্তার করেছে। এ সময় ৪টি দেশীয় তৈরি আগ্নেয়াস্ত্র, গোলাবারুদ, ২টি হাতুড়ি, ৩টি দা, ১ টি কিরিচ, ২টি শাবল, জাল এবং দস্যুতাবৃত্তিতে ব্যবহৃত বোট জব্দ করা হয়েছে।

গত মঙ্গলবার (২১ ফেব্রুয়ারী) দিবাগতরাতে উপজেলার গন্ডামারা, বড়ঘোনা, বাংলাবাজার, শীলকূপে অভিযান পরিচালনা করে আসামীদের গ্রেপ্তার করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেন র‌্যাব-৭ চট্টগ্রামের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মো. মাহবুব আলম।

গ্রেপ্তারকৃত আসামীরা হলেন- বাঁশখালী উপজেলার গন্ডামারা ইউনিয়নের পশ্চিম বড়ঘোনার মো. কাইছার প্রকাশ কালু (২৫), মো. সেলিম প্রকাশ ডাকাত সেলিম (৪০), মো. ইকবাল হোসেন (১৫) ও পূর্ব বড়ঘোনার মো. জাহিদ (২৫)।

গত ১৭ ফেব্রুয়ারি তারিখে বরগুনার পাথরঘাটার গভীর বঙ্গোপসাগরের বয়া নামক এলাকায় দুর্ধর্ষ জলদস্যুদের আক্রমনে ৯ জন জেলে নিখোঁজ ও বোট ডাকাতির ঘটনার সংশ্লিষ্টতার খবর পেয়ে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

র‌্যাব-৭ সূত্রে জানা যায়, আসামীরা ১০ ফেব্রুয়ারি বোট নিয়ে সমুদ্রে গমণ করে এবং কক্সবাজার কুতুবদিয়া চ্যানেল এলাকায় একটি ডাকাতি সংঘটিত করে, পরবর্তীতে পুনরায় ডাকাতির উদ্দেশ্যে বরগুনা- পটুয়াখালি চ্যানেলের দিকে গমন করে ২য় ডাকাতিটি সংঘটিত করে। আটককৃত আসামীগণকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জলদস্যুতার সাথে তাদের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করে এবং আসামীগণের নিজহাতে দেখিয়ে দেওয়া স্থান হতে ৪টি দেশীয় তৈরি আগ্নেয়াস্ত্র সহ ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত সরাঞ্জামাধি উদ্ধার করা হয়। এছাড়াও গত ১৭ ফেব্রুয়ারি ১৮ জন জেলেকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম, ৯ জন জেলে নিখোঁজ এবং প্রায় ২০ লাখ টাকার রসদ সামগ্রী লুটে নিয়ে যাওয়ার ঘটনার সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত ছিলো বলে অকপটে স্বীকার করে আসামীরা।

উল্লেখ্য, আসামী মো. কাইছারের নামে বাঁশখালী থানায় ২টি চুরির মামলা, মো. সেলিমের নামে ৫টি মামলা রয়েছে, যার মধ্যে ১ টি অবৈধ অস্ত্র আইনে মামলা এবং বাকি ৪টি সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের মামলা পাওয়া যায়।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে বাঁশখালী থানায় হস্তান্তরের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান র‌্যাব-৭।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম