1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
ঠাকুরগাঁওয়ে সীমান্ত হত্যা ও বিদেশী আগ্রাসন বন্ধের দাবীতে লাশের মিছিল ! - দৈনিক শ্যামল বাংলা
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৮ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
ফাঁসিয়াখালী-মেদাকচ্ছপিয়া পিপলস ফোরাম (পিএফ) সাধারণ কমিটির সভা সম্পন্ন চৌদ্দগ্রামে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উদযাপন চৌদ্দগ্রামে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা ফের ৩দিন ক্লাস বর্জনের ঘোষণা কুবি শিক্ষক সমিতির নবীনগরে পৃথক মোবাইল কোর্ট অভিযানে সাড়ে ৪ লাখ টাকা জরিমানা দৈনিক আমাদের চট্টগ্রামের সম্পাদক মিজানুর রহমান চৌধুরী উপর হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী ঠাকুরগাঁওয়ে রানীশংকৈলে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মাঠে নেমেছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা তিতাসে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা শেরপুরে আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত ঘুমন্ত স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে নিয়ে স্ত্রীর পলায়ন

ঠাকুরগাঁওয়ে সীমান্ত হত্যা ও বিদেশী আগ্রাসন বন্ধের দাবীতে লাশের মিছিল !

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
  • ৩৮ বার

মোঃ মজিবর রহমান শেখ

সীমান্ত হত্যা বন্ধের দাবীতে ঠাকুরগাঁও জেলায় এসেছে প্রতীকী লাশের মিছিল। ২৪ ফেব্রুয়ারি শনিবার সকালে হানিফ বাংলাদেশীর নেতৃত্বে লাশের মিছিলটি ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসকের কার্যালয় হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে চৌরাস্তায় এসে এক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। এ সময় হানিফ বাংলাদেশী বলেন, বাংলাদেশের প্রতিবেশি ২টা দেশ ভারত ও মিয়ানমার সব সময় বাংলাদেশের উপর আগ্রাসন চালিয়ে যাচ্ছে, ভারত সব সময় সীমান্তে নিরিহ মানুষকে পাখির মত গুলি করে হত্যা করছে, কিছুদিন আগে বাংলাদেশের ১ জন বিজিবি সদস্যকে বিএসএফ গুলি করে হত্যা করেছে, গত ৪ মাসে ভারত সীমান্তে ২১ জন বাংলাদেশী বি এস এফ এর গুলিতে নিহত হয়েছে। বিভিন্ন মানবাধিকারের অধিকারের হিসেবে ২০১০ সাল থেকে প্রায় ১২৭৬ জন বাংলাদেশীকে বি এস এফ হত্যা করেছে, ১১৮৩ জন আহত হয়েছে। আরেক প্রতিবেশি দেশ মিয়ানমার তাদের ১২ লাখ রহিঙ্গাকে অত্যাচার করে বাংলাদেশে পাঠিয়েছে। গত ৫ ফেব্রুয়ারী মিয়ানমারের আভ্যন্তরিন যুদ্ধে মর্টারসেলে ২ জন বাংলাদেশী নাগরিক নিহত হয়েছে। সীমান্ত আগ্রসনের বিরুদ্ধে ২০২০ সালেও আমরা প্রতিকী লাশ কাঁধে নিয়ে ঢাকা থেকে কুড়িগ্রাম ফেলানীদের বাড়ী পর্যন্ত পদযাত্রা করেছি।
হানিফ বাংলাদেশী আরো বলেন, বাংলদেশের জনগন সব সময় প্রতিবেশি ও বন্ধু দেশ গুলোর সাথে ভালো সম্পর্ক রাখতে চায় কিন্তু প্রতিবেশী দেশ ২টি বাংলাদেশের সাথে সব সময় বৈরি আচরণ করে। সীমান্তে বাংলাদেশিদের হত্যার পরে বলা হয় এরা গরু চোর চোরাকারবারি, হতে পারে এরা গরু চোর চোরাকারবারি এদের আইনের আওতায় এনে বিচার করা হোক গুলি করে হত্যা করবে কেন? ভারত যদি তাদের দেশের পাচারকারিদের দমন করে তাহলে বাংলাদেশের পাচারকারিরা এমনিতে বন্ধ হয়ে যাবে।
৩০ লক্ষ শহিদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীন দেশের মানুষ কখনও কোন দেশের আগ্রাসন দাদাগিরি মেনে নেয়নি নতুন প্রজন্ম ও কোন দেশের আগ্রাসন মেনে নেবেনা। বাংলাদেশের মানুষ আর্ত মর্যাদা নিয়ে বিশ্বের দরবারে মাথা উচ্ছু করে বাঁচতে চায়।
প্রতীকি এই লাশের মিছিলটি কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে শুরু হয়ে বাংলাদেশের সাথে ভারত ও মিয়ানমার সাথে সীমান্ত আছে এমন সব জেলা ও উপজেলা প্রদক্ষিণ করে যশোরের বেনাপোল উপজেলায় গিয়ে শেষ হবে। হানিফ বাংলাদেশীর নেতৃত্বে লাশের মিছিলের এ কর্মসূচিতে আছেন এন ইউ আহম্মেদ, সৌরভ বেলাল সহ অন্যান্যরা।

মোঃ মজিবর রহমান শেখ
ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম