1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
তিতাসে ময়লার ভাগাড় থেকে পাওয়া শিশুটি সুস্থ আছে, দত্তক নিতে চায় অনেক দম্পতি - দৈনিক শ্যামল বাংলা
শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ০৪:২৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
অ্যাডভোকেট রহমত আলীর চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী পালিত! সন্তানকে ভালো মানুষ হিসাবে তৈরি করুন,তাহলেই দেশটা ভালো হয়ে যাবে-ডঃ তাপস সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারী ট্রাস্ট ৪৫৭ জন শিক্ষার্থীকে ২৬ লক্ষ টাকার বৃত্তির অর্থ প্রদান নদী গুলো খনন করা হলে বদলে যাবে দৃশ্যপট লালমনিরহাটসহ বৃহত্তর রংপুর অঞ্চল দিয়ে বয়ে যাওয়া নদীর চর গুলো সবুজে ঢাকা শোক সংবাদ মানবিকতার অনন্য নির্দশন চন্দনাইশে ২ জুটির বিয়ে দিলেন জেসিকা গ্রুপের জসিম। নবীগঞ্জ শহরে ভয়াবহ সংঘর্ষের ঘটনায় ৩০ জনের নাম উল্লেখ করে ২০০/২৫০জনকে অজ্ঞাত করে পুলিশ এসল্ট মামলা দায়ের মীরসরাইয়ে হরিহরপুর গ্রামে ২৮ তম অষ্টপ্রহর ব্যাপী মহোৎসব শ্রীপুরে বেতন বাড়ানোর দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ করে শ্রমিকদের বিক্ষোভ শ্রীপুরে পুলিশী বাধায় বিএনপি’র অনুষ্ঠান পন্ড বন্ধ হওয়া রেল ষ্ট্রেশন দ্রুততম সময়ে চালু করা হবে। রেল মন্ত্রী

তিতাসে ময়লার ভাগাড় থেকে পাওয়া শিশুটি সুস্থ আছে, দত্তক নিতে চায় অনেক দম্পতি

মোঃ জুয়েল রানা, তিতাস প্রতিনিধি:
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
  • ৪০ বার

কুমিল্লার তিতাসে ময়লার ভাগাড় থেকে পাওয়া ১দিনের কন্যাশিশুটি সুস্থ আছে, দত্তক নিতে চায় অনেক নি:সন্তান দম্পতি। ইতোমধ্যেই তারা শিশুটিকে দত্তক নিতে তিতাস উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সমাজসেবা অফিসে যোগাযোগ শুরু করেছেন। এবং লিখিত ভাবে আবেদন করেছেন ৫ দম্পতি।

কুড়িয়ে পাওয়া শিশুটি বর্তমানে তিতাস উপজেলার উত্তর আকালিয়া গ্রামের আয়েশা বেগমের হেফাজতে রয়েছে। শিশুটি সুস্থ রয়েছে বলে জানিয়েছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ড. সরফরাজ হোসেন খান।

শনিবার (৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে উপজেলার বাতাকান্দি বাজারের উত্তরে গৌরীপুর টু হোমনা সড়কের পূর্ব পাশে উত্তর আকালিয়া এলাকার ময়লার ভাগাড় থেকে এই নবজাতক শিশুটিকে উদ্ধার করে তিন তরুন বন্ধু। উদ্ধারকারী তিন বন্ধুরা হলেন- উত্তর আকালিয়া গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে মো. সাব্বির মিয়া, মো. শেখ ফরিদের ছেলে মো. সজিব ও মো. হাসান মিয়ার ছেলে মো. ফয়সাল।

এ বিষয়ে তিন তরুণের একজন মো. ফয়সাল বলেন, আমরা তিন বন্ধু মিলে সন্ধ্যার পর উবদি ব্রিজে যাচ্ছিলাম হাটতে। রাস্তার পাশে ময়লার ভাগাড় অতিক্রম করার সময় হঠাৎ এক শিশুর কান্না শুনতে পাই। প্রথমে মনে করেছি বিড়াল, পরে টর্চলাইট মেরে দেখি নবজাতক শিশু। পরে শিশুটিকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে গিয়ে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিসহ পুলিশকে অবহিত করি। বর্তমানে শিশুটি বন্ধু সাব্বিরের জেটি আয়েশা বেগমের কাছে আছে এবং ভালো ও সুস্থ আছে।

তিতাস থানার অফিসার ইনচার্জ কাঞ্চন কান্তি দাশ বলেন, এখনও শিশুটির কোনো অভিভাবক পাওয়া যায়নি। শিশুর পরিবারের সন্ধানে পুলিশ কাজ করছে। অভিভাবক না পেলে উপজেলা সমাজসেবা অফিসের মাধ্যমে শিশুটির পরবর্তী অবস্থান কোথায় হবে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

এবিষয়ে উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা সেতারুজ্জামান বলেন, ময়লার ভাগাড়ে পাওয়া শিশুটিকে দত্তক নিতে অনেক নি:সন্তান দম্পতি আগ্রহ প্রকাশ করে আমার সাথে যোগাযোগ করেছেন। ইতিমধ্যে ৫ দম্পতি লিখিতভাবে আবেদন করেছেন এবং অনেকে এখনও মোবাইলে যোগাযোগ করছেন। আমার আবেদনকারীদের তদন্ত করে আইন অনুয়ায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

এদিকে শিশুটিকে দেখাশুনা করা এবং বুকের দুধসহ যত্ন নেওয়ায় আয়েশা বেগম বলেন, শিশুটিকে আমরা ময়লা থেকে পেয়ে এনে বুকের দুধ খাওয়াচ্ছি। এবং সব ধরনের যত্ন নিচ্ছি। শিশুটির দায়িত্ব আমরাই নিতে চাচ্ছি। যদি আমাদের দেওয়া হয় তাহলে নিজের সন্তানের মতোই মানুষ করার চেষ্টা করবো।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম