1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
ঠাকুরগাঁওয়ে রাতের আঁধারে ১৫ বিঘা ফসলের মাঠ ধ্বংসের অভিযোগ । - দৈনিক শ্যামল বাংলা
সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:২৭ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:

ঠাকুরগাঁওয়ে রাতের আঁধারে ১৫ বিঘা ফসলের মাঠ ধ্বংসের অভিযোগ ।

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১২ মার্চ, ২০২৪
  • ২৪ বার

মোঃ মজিবর রহমান শেখ

ঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলার রুহিয়ায় রবিবার ১০ মার্চ রাতের আঁধারে ১৫ বিঘা ফসলের মাঠ ধ্বংসের অভিযোগ খালেক ইসলামের(৪৫) বিরুদ্ধে উঠেছে । এ বিষয়ে রুহিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগে সুত্রে জানা যায়, নিম্ন স্বাক্ষরকারী মোঃ তৌহিদুল ইসলাম(২৯), পিতা-মোঃ হামিদুল ইসলাম ঘনিমহেষপুর এলাকায় ৯০ (নব্বই বিঘা) জমি বর্গা নিয়ে আলু, পিয়াজ, মরিচ ও মিষ্টি কুমড়া চাষাবাদ করে। জমি চাষাবাদ করা কালিন অবস্থায় খালেক ইসলামসহ অজ্ঞাতনামা কয়েকজন আমার নিকট হইতে জমি চাষাবাদের জন্য বিভিন্ন দিন চাঁদা দাবি করে এবং বলেন, যে ১লক্ষ টাকা না দিলে আমার আবাদীয় জমির আলু, পিয়াজ, মরিচ ও মিষ্টি কুমড়া ফসলের মাঠ নষ্ট করিয়া দিবে বলিয়া হুমকী প্রদর্শন করেন। ১নং– রুহিয়া ইউনিয়নের ঘনিমহেষপুর এলাকার মোঃ আব্দুল আজিজ এর ছেলে খালেক ইসলাম। গত ০৯ মার্চ অনুমান সন্ধ‌্যা ৬,৪৫ ঘটিকায় আমার ফসল দেখিয়া নিজ বাড়ীতে চলিয়া আসি এবং ১০ মার্চ সকাল অনুমান ৯,০০ ঘটিকার সময় আমি আমার ফসল দেখতে গেলে জমিতে গিয়া দেখিতে পাই যে, অনুমান ১৩/১৪ বিঘা জমির মিষ্টি কুমড়ার গাছ এবং ৩৫ শতক জমির পিয়াজ ক্ষেত কাটিয়া দেওয়া সহ ৪৫ শতক জমির আলু তুলিয়া নিয়ে যায়। যার ক্ষতিসাধন আনুমান (৭,৫০,০০০) সাড়ে সাত লক্ষ টাকা।
ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা সহকারী কৃষি অফিসার জানান, আমি মাঠ পরিদর্শন করেছি ও আমার উদ্ধেতন কর্মকর্তাকে জানিয়েছি। আমরা চাই যে এমন কাজটি করেছে তাকে আইনের আওয়াতায় এসে শাস্তির দাবি করছি এবং এর সাজার জন‌্য যতটুকু সাহায‌্য প্রয়োজন কৃষি বিভাগ তা সহযোগিয়তার করবে। রুহিয়া থানার ওসি গুলফামুল ইসলাম মন্ডল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম