1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : naga5000 : naga5000 naga5000
তিতাসে জায়গা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রবাসীর উপর হামলা, থানায় অভিযোগ - দৈনিক শ্যামল বাংলা
সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৩:০০ পূর্বাহ্ন

তিতাসে জায়গা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রবাসীর উপর হামলা, থানায় অভিযোগ

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৮ জুন, ২০২৪
  • ১৮ বার

মোঃ জুয়েল রানা, তিতাস প্রতিনিধি:

কুমিল্লার তিতাস উপজেলায় জায়গা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মো: মোহন মিয়া নামে এক সাউথ আফ্রিকা প্রবাসীর উপর হামলার অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। হামলার সময় মোহন মিয়ার স্ত্রী ও ছেলে ঠেকাতে এলে তাদেরকেও বেধড়ক মারপিট করে হামলাকারীরা। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার মজিদপুর ইউনিয়নের মৌটুপী সিকদার রোড প্রবাসী মোহন মিয়ার বাড়িতে। এ ঘটনায় ৭ জনের নাম উল্লেখ্য করে এবং ৩/৪ জন অজ্ঞত নামা আসামী করে তিতাস থানায় অভিযোগ করেছেন ভূক্তভোগী প্রবাসী মোহন মিয়া।

অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রবাসী মোহন মিয়ার চাচাতো ভাই-ভাতিজাদের সাথে দীর্ঘদিন যাবত জায়গা জমি সংক্রান্ত বিষয়ে বিরোধ চলিয়া আসিতেছে। উক্ত বিরোধের জের ধরে গত ৩ জুন সোমবার সকাল আনুমানিক সাড়ে ৮টায় বিবাদী রফিকুল ইসলাম এর ছেলে সেকান্দর আলী ও আবু কালাম এর নেতৃত্বে শোলাকান্দি গ্রামের মৃত আমির আলীর ছেলে রানু মিয়া, শিবপুর গ্রামের তমিজ উদ্দিনের ছেলে আক্তার হোসেন, মোহন মিয়ার ছেলে কাউসারসহ ৭/৮জন পূর্ব পরিকল্পিতভাবে লাঠিসোটা, লোহার বড় নিয়ে মোহন মিয়ার বসত বাড়িতে এসে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকিলে মোহন মিয়া গালিগালাজ করতে নিষেধ করলে বিবাদীগন মোহন মিয়াকে মারধর করে রক্তাক্ত জখম করে। এ সময় তার স্ত্রী শিল্পী বেগম ও ছেলে আল-আমিনসহ প্রতিবেশীরা ঘটনাস্থলে আসিলে তাদেরকেও মারপিট করে গুরুতর আহত করে।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী মোহন মিয়া ও তার স্ত্রী শিল্পী বেগম বলেন, বিবাদীগন তাদের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দ্বারা আমাদের দীর্ঘদিন যাবৎ অন্যায়, অত্যাচার ও হামলা মামলা করে আসছে। তারা যে কোনো সময় আমাদের পরিবারের বড় ধরনের ক্ষতি করতে পারে। তাই আমরা প্রশাসনের নিকট ন্যায় বিচারের দাবি জানাই।

অন্যদিকে অভিযুক্ত সেকান্দর আলীর বড় ভাই সেলিম বলেন, আমাদের প্রতিপক্ষ মোহন মিয়ার সাথে বিগত ২০ বছর ধরে একটি জায়গা নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। ঐজায়গাতে আমরা ঘর উঠাইলে সে কয়েকবার ভাংচুর করে এবং একটি লোহার গেইট নিয়ে যায়। মোহন মিয়া যেকোন সময় আমাদের ক্ষতি করতে পারে। আমাদের কোন কিছু হলে এর জন্য দায়ি থাকবে মোহনের পরিবার।

এবিষয়ে তিতাস থানার এসআই ওবাইদুল হক বলেন, উভয় পক্ষের লিখিত অভিযোগ পেয়েছি এবং ওসি স্যারকে অবগত করছি। বিষয়টি নিয়ে আইনগত প্রক্রিয়া চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম