1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
জমি জবর দখল ও শতাধিক গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ - দৈনিক শ্যামল বাংলা
রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ০৩:৩৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
নবীনগরে কোটাপদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল রাউজানে তিনদিন ব্যাপী বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন রাউজানে ৬০ প্রজাতির ১ লাখ ৮০ হাজার ফলজ ও ঔষধি গাছের চারা রোপন কর্মসূচি উদ্বোধন মাগুরায় নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান শরিয়াতউল্লাহ হোসেন রাজনকে গণসংবর্ধনা প্রদান  *জরুরী রক্ত প্রয়োজন*রক্তের গ্রুপ: AB+ (এবি পজেটিভ) ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে চৌদ্দগ্রামে তিন ছাত্রলীগ নেতার পদত্যাগ কক্সবাজারে সাংবাদিকদের উপর আ’লীগ-ছাত্রলীগের হামলা সারাদেশে ছাত্রসমাজের উপর মর্মান্তিক হামলার প্রতিবাদ ও কোটা সংস্কারের এক দফা দাবিতে দোহাজারীতে বিক্ষোভ মিছিল  এমএসআর’র ১ কোটি ২৬ লক্ষ টাকা লুটপাট সমস্যায় জর্জরিত চট্টগ্রামের চন্দনাইশ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স-অধিকাংশ চিকিৎসক অনুপস্থিত থাকেন নবীনগরে কুতুবিয়া দরবার শরীফে শাহাদাতে কারবালা মাহফিল অনুষ্ঠিত

জমি জবর দখল ও শতাধিক গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৬ জুলাই, ২০২৪
  • ২১ বার

মো:জাকির হোসেন নীলফামারী প্রতিনিধি:

নীলফামারীর সৈয়দপুরে শুধু জনবলের দাপটে নিজের বিক্রিকৃত জমি পূণরায় জবরদখল করে শতাধিক গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ মিলেছে। জমি ক্রেতা নিরীহ ও একাকী হওয়ায় বিক্রেতা ও তার ছেলেরা দলবল নিয়ে প্রকাশ্যে এই ঘটনা ঘটিয়েছে। প্রতিবাদ করায় দেশীয় ধারালো অস্ত্র ও লাঠি সোটা নিয়ে হামলা চালিয়ে জমিক্রেতার বাড়িতে ঢুকে ঘর ভাঙ্চুর করেছে। এছাড়াও প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে বাড়ির সামনে অবস্থান করছে। ফলে পুরো পরিবার বাড়িতে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে। জীবনের নিরাপত্তা হীনতায় চরম দুশ্চিন্তার মধ্যে দিনাতিপাত করছে।

বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) সকালে উপজেলার কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়নের হাজারীহাট খিয়ারপাড়া এলাকায় ক্যানেলের পাড়ে এই ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে ৯৯৯ সার্ভিসের পুলিশ টিম ঘটনাস্থলে গেলে জবর দখলকারীরা তাদের উপরও চড়াও হয় এবং অসৌজন্যমূলক আচরণ করে। শুক্রবারও (৫ জুলাই) গাছ কাটা হচ্ছে জেনে বেলা ১২ টায় সংবাদ কর্মীরা ওই স্থানে গেলে তাদের সাথেও উদ্ধত আচরণ করে। এমনকি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এনিয়ে মিমাংসার উদ্যোগ নিলেও তাতে সাড়া না দিয়ে গাছ কাটা অব্যাহত রেখেছে। পুলিশ ও সাংবাদিক কেন এসেছে এজন্য আরও বেশী বেপরোয়াভাবে হুমকি ধামকি দিয়ে যাচ্ছে।

জানা যায়, হাজারীহাট স্কুল এন্ড কলেজের পিয়ন পদে কর্মরত মো. আমিনুর রহমান তাঁর নিজ বাড়ী সংলগ্ন ৫ শতক জমি ২০১৪ সালে আপন মামা নবি হোসেনের কাছ থেকে কিনে নিয়েছে। এরপর থেকে ওই জমিতে গাছ লাগিয়ে ও আবাদ করে ভোগদখল করে আসছে। সম্প্রতি মামাতো ভাই আদিব হোসেন জমিটি কিনে নিয়েছে বলে দাবি করছে। এরই সূত্র ধরে বৃহস্পতিবার দলবলে লাঠি সোটা ও অস্ত্রসহ জমির গাছ কেটে জোরপূর্বক নিজের দখলে নিয়েছে। প্রতিবাদ করায় বাড়িতে ঢুকে একটা ঘর ভাঙ্চুর করাসহ প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে চলেছে। ঘটনার প্রেক্ষিতে পুলিশ, চেয়ারম্যান ও সাংবাদিক কে জানানোর কারণে এখন অস্ত্রসহ পাহারা দিচ্ছে। বাড়ি থেকে বের হলেই কুপিয়ে জখম করা হবে বলে প্রকাশ্যে মোহড়া প্রদর্শন করছে। এতে পুরো পরিবার ভীতসন্ত্রস্ত ও অবরুদ্ধ হয়ে পড়ায় বাড়ি থেকে বের না হওয়ার সুযোগে বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার দুইদিনে প্রায় শতাধিক গাছ কেটে নিজদের বাড়িতে নিয়ে গেছে আদিব গংরা।

ভুক্তভোগী আমিনুর রহমান বলেন, আমি টাকা দিয়ে বৈধভাবে নিজের মামা নবি হোসেনের কাছ জমি কিনে নিয়েছি। এখন তিনি ও তার ছেলেরা বলছে এই জমিতে অন্যদেরও অংশ আছে। তাহলে আমার কেনা ৫ শতক জমি বুঝিয়ে দিক মামা। এখানে না পেলে অন্যখানে দিক। কিন্তু তারা জমি দিবেনা আবার এই জমিও জবরদখল করেছে। আমার লাগানো গাছগুলো চোখের সামনেই কেটে নিয়ে গেছে। এর আগে ওই জমিতে একটা টিনের চালার ঘর দিতে গেলে তা ভেঙে দিয়েছে। সম্পূর্ণ গায়ের জোরে অন্যায়ভাবে তারা এটা করছে। প্রতিবাদ করায় এখন আমার লাশ ফেলে রক্ত দিয়ে হুলি খেলার হুমকি দিচ্ছে। অস্ত্র নিয়ে পাহারা দিয়ে রেখেছে। ফলে বাড়ি থেকে বের হতে পারছিনা। সুবিচার পেতে চেয়ারম্যান, পুলিশ ও সাংবাদিক কে জানানোয় তারা আরও ক্ষিপ্ত। এথেকে পরিত্রাণ চাই। প্রশাসনের কাছে তদন্ত পূর্বক ন্যায়বিচার দাবি করছি।

এব্যাপারে অভিযুক্ত আদিব হোসেন বলেন, বাবার বিক্রি করা সঠিক হয়নি। কারণ ৫৮ নং দাগে মোট ৪৭ শতক জমি আছে। এর মধ্যে ২২ শতক ক্যানেলে আর ৭ শতক কবরস্থানে গেছে। বাকী ১৮ শতকে মোট ১১ জন শরিকের অংশ আছে। সে হিসেবে মাত্র দেড় শতক করে পায় প্রত্যেকে। সেখানে আমার বাবা ৫ শতক বিক্রি করতে পারেন না। করলেও তা গ্রহণযোগ্য হবেনা।

আর অন্যান্য শরিকদের কাছ থেকে আমিনুর লিখে নেয়নি। আমি সব শরিকদের কাছ থেকে সম্পূর্ণ জমি কিনে নিয়েছি। তাই দখলে নিয়েছি এবং গাছ কেটেছি। এখানে পুলিশ, চেয়ারম্যান বা সাংবাদিকের কি? এটা আমাদের পারিবারিক বিষয়। অন্য কারো মধ্যস্থতার প্রয়োজন নাই, কারো বিচারও মানিনা।
নিয়ম অনুযায়ী যে যতটুকু পাবে তাই নিতে হবে। এর বেশি চাইলেই কি পাবে? কোন প্রকার ভয়ভীতি দেখানো হয়নি। মিথ্যে অভিযোগ দিয়ে নিজের দিকে মানুষকে টানার অপচেষ্টা করছে আমিনুর।

এদিকে এলাকাবাসীরা বলেন, আমিনুর তার মামা নবি হোসেনের কাছ থেকে জমি কিনেছে এবং দখল বুঝে নিয়ে ভোগ করে আসছে। কিন্তু ওই জমিতে আরও অংশীদার আছে। এখন তারা দাবি করছে। এটা সবাই বসে একটা সুরাহা করা দরকার। কিন্তু নবি ও তার ছেলেরা তা মানছেনা। চেয়ারম্যান, পুলিশ ও সাংবাদিককেও তোয়াক্কা করছেনা। আমরা এলাকার লোকজন বলতে গেলে আবিদ গংরা নিজেদের পারিবারিক বিষয় বলে এড়িয়ে যাচ্ছে এবং আমাদের উপরও চড়াও হচ্ছে। তাই আমরা নিশ্চুপ। তবে আমিনুরের উপর অবিচার করা হচ্ছে বলেও মন্তব্য করেছেন তারা।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম