1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
মাওয়া ফেরীঘাট থেকে নিখোঁজ খাগড়াছড়িতে কর্মরত পুলিশ সদস্য তৌদুজ্জামান - দৈনিক শ্যামল বাংলা
শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০১:৫২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
মোটরসাইকেল শোডাউনের মাধ্যমে আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী হারুনুর রশিদ রঙ্গু’র পূজামন্ডপ পরিদর্শন মাগুরায় নির্বাচনী সহিংসতায় দু পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ!! নিহত -৪ আহত -২০ লাকসামে রাজনীতির প্রতিহিংসায় গাছের সাথে শত্রুতা! রাউজানে সুষ্ঠ ও শান্তিপুর্ণ ভাবে সনাতনী ধর্মীয় অনুসারীদের শারদীয় দুর্গোৎসব সম্পন্ন নবীনগরে উপজেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াতের ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ) উদযাপন কুবির দত্ত হলে জুনিয়র ছাত্রলীগ কর্মীরা মারধর করে সিনয়রকে সাঈদ হাসান,কুবি রাউজানে সব ধর্মের মানুষ অসম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী-পূজা মণ্ডপ পরিদর্শনে এমপি ফজলে করিম নবীগঞ্জে শেখ রাসেল দিবস পালন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত আমিলাইষের পূজামণ্ডপে আলহাজ্ব মোজাম্মেল হক চৌধুরীর আর্থিক অনুদান ও কাপড় বিতরণ রিদওয়ান খালিদ চোধুরীর জন্মদিন আজ

মাওয়া ফেরীঘাট থেকে নিখোঁজ খাগড়াছড়িতে কর্মরত পুলিশ সদস্য তৌদুজ্জামান

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৪ নভেম্বর, ২০১৯
  • ৩৬ বার

নইন আবু নাঈম, বাগেরহাট :
ছুটি নিয়ে বাগেরহাটে ফেরার পথে মাওয়া ফেরী ঘাট থেকে তৌহিদুজ্জামান (৩৫) নামে এক পুলিশ সদস্য নিখেঁাজ হয়েছেন। গত ২০ নভেম্বর খাগড়াছড়িতে কর্মরত তৌহিদুজ্জামান ১৫ দিনের ছুটি নিয়ে বাগেরহাটের বাসায় আসার পথে ঢাকার মাওয়া ঘাট থেকে নিখেঁাজ হন বলে তার স্ত্রী মোসলেমা খাতুন দাবি করেছেন। গত ৪ দিনেও তার সন্ধান মেলেনি। নিখেঁাজের বিষয়টি পুলিশকে জানিয়ে বাগেরহাট সদর মডেল থানায় ও খাগড়াছড়িতে পৃথক দুটি সাধারণ ডায়েরি করেছে তার পরিবার।
তৌহিদুজ্জামান সাতক্ষীরা জেলা সদরের গোবরদঁাড়ি গ্রামের শেখ শামসুল মাস্টারের ছেলে। তিনি খাগড়াছড়ি জেলার সদর পুলিশ ফঁাড়িতে কর্মরত ছিলেন। তিনি এরআগে বাগেরহাটে প্রায় দশ বছর চাকরি করেছেন। বর্তমানে তার স্ত্রী মোসলেমা খাতুন দুই সন্তানকে নিয়ে বাগেরহাট শহরের পুরাতন পুলিশ লাইনের পাশে হাবিবুর রহমানের বাড়িতে ভাড়া থাকেন। তার মেয়ে মিফতাহুল জান্নাত শহরের সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীতে পড়ালেখা করছে এবং মুসফিক জামান হোসাইন নামে আড়াই বছর বয়সী একটি ছেলে রয়েছে।
নিখেঁাজ পুলিশ সদস্যের স্ত্রী মোসলেমা খাতুন বলেন, গত ২০ নভেম্বর দুপুরে ১৫ দিনের ছুটি নিয়ে তৌহিদুজ্জামান বাগেরহাটের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। পথে তিনি আমাকে বেশ কয়েকবার ফোন করেন। ওই দিন রাত ১১ টা ২০ মিনিটের সময় আমাকে ফোন দিয়ে বলে আমি এখন মাওয়া ঘাটে। এই ছিল তার সাথে আমার শেষ কথা। এরপর আর কোন কথা হয়নি। এরপর থেকে তার ফোন বন্ধ রয়েছে। আমি তার নিখেঁাজ হওয়ার ঘটনাটি পুলিশকে জানিয়েছি এবং থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছি। আমার স্বামী সঁাতার জানেন, মাওয়া ঘাট থেকে তিনি কেন কিভাবে নিখেঁাজ হলেন কিছু বুঝে উঠতে পারছি না। আমার দুটি দুধের বাচ্চা রয়েছে আমি এখন কার কাছে যাব কি করব বুঝে উঠতে পারছিনা। আমার স্বামীকে উদ্ধার করতে পুলিশসহ প্রশাসনের কাছে দাবী জানাচ্ছি।
বাগেরহাটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. মিজানুর রহমান বলেন, খাগড়াছড়িতে কর্মরত পুলিশ সদস্য তৌহিদুজ্জামান ১৫ দিনের ছুটি নিয়ে বাগেরহাটের আসার পথে নিখেঁাজ হওয়ার ঘটনায় তার পরিবার খাগড়াছড়ি ও বাগেরহাট মডেল থানায় পৃথক দুটি সাধারণ করেছেন। আমরা তার মুঠোফোনের অবস্থান নিশ্চিত হতে কাজ শুরু করেছি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম