1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. nrghor@gmail.com : Nr Gh : Nr Gh
  3. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
জীবনবেদ - দৈনিক শ্যামল বাংলা
সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০৮:৫৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:

জীবনবেদ

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ৮১ বার

ড. এমদাদুল হক :

যতক্ষণ জীবন আছে ততক্ষণ মস্তিষ্ক বিশ্রাম নেয় না। মনও থেমে থাকে না।
মন কি করে? স্বপ্ন দেখে। দুঃখের স্বপ্ন- সুখের স্বপ্ন। জয়ের স্বপ্ন-পরাজয়ের স্বপ্ন। মানুষ স্বপ্ন দেখতে ভালোবাসে এবং স্বপ্নের মধ্যে বাস করে। ঘুমিয়েও স্বপ্ন দেখে, জেগেও স্বপ্ন দেখে। জেগে স্বপ্ন দেখাকে আমরা দিবাস্বপ্ন বলি। সব স্বপ্নের গভীরে রয়েছে বিশ্বাস।
জীবনের পথপ্রদর্শক বলে যদি কিছু থাকে, তবে তা বিশ্বাস। মনের অজান্তে বিশ্বাসই চালনা করে আমাদের চিন্তা, আমাদের কর্ম ও স্বপ্ন। আমাদের সুখ এবং দুঃখগুলো বেড়ে উঠে বিশ্বাসের মাটিতে।
প্রতিটি ইন্দ্রিয় দ্বারে রয়েছে বিশ্বাসের ছাঁকুনি। আমরা কতোকিছুই না দেখি কিন্তু ধারণ করি শুধু সেইগুলো যা বিশ্বাসের ছাঁকুনি দ্বারা পরিস্রাবিত হয়।
যা যেমন, তা তেমন আমরা দেখি না। যার বিশ্বাস যেমন সে তেমনি দেখে। আমরা বাস করছি বিশ্বাসের ভার্চুয়াল জগতে। আমাদের দেখা, শোনা, ভালোবাসা সবই ভার্চুয়াল।
কেউ সন্তানের মতো কুকুর পালন করে, কেউ বা বলে, ‘যে গৃহে কুকুর থাকে সে গৃহে দেবদূত প্রবেশ করে না’। মানুষে মানুষে এই যে পার্থক্য, তা বিশ্বাসেরই পার্থক্য। একজন বিশ্বাস করে কুকুরের বিশ্বস্ততায়। আরেকজন বিশ্বাস করে আসমানি বচনে। একই কুকুরকে একজন ভয় পায়, আরেকজন জড়িয়ে ধরে। দুটিই ভার্চুয়াল রিয়েলিটি। বিশ্বাসের সফ্টওয়্যার মনে একটি কল্পনার জগৎ তৈরী করে। এই কাল্পানিক জগৎটিই আমাদের কাছে বাস্তব জগৎ হিসেবে প্রতিভাত হয়। ভয় এবং ভালোবাসার অভিজ্ঞতা নিয়ে আসে জীবনে।
একই ব্যক্তি কারো কাছে বীরশ্রেষ্ঠ, কারো কাছে গাদ্দার। একই লেখা একজন পছন্দ করে- আরেকজন অপছন্দ করে। এই পছন্দ কিংবা অপছন্দ লেখার মধ্যে থাকে না। থাকে পাঠকের বিশ্বাসে। পাঠক লেখককে পড়ে না- পড়ে নিজেরই বিশ্বাস, লেখকের শব্দে।
কিছু বিশ্বাস সত্য- কারণ আমরা বিশ্বাস করি যে, এইগুলো সত্য। জীবনের পথে হাঁটতে হাঁটতে আমাদের মনে প্রত্যয় তৈরী হয়- সত্য হলো তাই যা আমরা বিশ্বাস করি। আমরা মানতেই পারি না, এগুলো বিশ্বাস নয়- মনুষ্য তৈরী মতবাদ।
বাস্তবে বিশ্বাসের সঙ্গে মতবাদের সম্বন্ধ নেই। বিশ্বাসের সঙ্গে সম্বন্ধ রয়েছে অভিজ্ঞতার। শাস্ত্র বিশ্বাসের দলিল নয়। বিশ্বাসের মধ্যে শব্দই নাই, দলিল থাকবে কেমন করে?
সাপের কামড়ে মৃত্যু দেখেছি। তাই বিশ্বাস জন্মেছে- সাপের কামড়ে মৃত্যু হয়। এই বিশ্বাস থেকে জন্ম নিয়েছে সর্প ভয়। এখানে শব্দ কোথায়?

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2022 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম