1. nerobtuner@gmail.com : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
  2. info@shamolbangla.net : শ্যামল বাংলা : শ্যামল বাংলা
রাজশাহীর পদ্মা নদীতে প্রথমবারের মতো দেখা মিলেছে দুর্লভ পাখি মার্গেঞ্জারের - দৈনিক শ্যামল বাংলা
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০৮:৫৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম:
বর্তমান এবং  ভবিষ্যৎ প্রজন্ম একটি সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশের গর্বিত নাগরিক হবে – মো. তাজুল ইসলাম, (এলজিইডি মন্ত্রী) পোকখালী’র ইউপি চেয়ারম্যান জামিনে মুক্ত চৌদ্দগ্রামে ইউনাইটেড ফর হিউমিনিটি’র অভিষেক ও দুর্ঘটনায় আহত শিক্ষকের মাঝে অর্থ হস্তান্তর ভিসির নির্দেশে বন্ধ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজন, মানেনি কুবি শিক্ষকরা ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিলের সাথে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের মতবিনিময় ফুলবাড়িতে ত্রিমুখী লড়াইয়ে এগিয়ে জামায়াত সমর্থিত প্রার্থী ঘূর্ণিঝড়ে রাউজানে দুইটি ঘর বিধ্বস্ত, বিচ্ছিন্ন  বিদ্যুৎ সংযোগ  রাশিয়া তালেবানকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে বৃহত্তর বার্ষিক অর্থনৈতিক ফোরামে উদাহরণ দিয়ে বলতে পারবেন না, কোথাও আমরা মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছি – সেনা প্রধান  ঠাকুরগাঁওয়ে পীরগঞ্জের রেজিয়া হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন বিষয়ে – পুলিশের প্রেস ব্রিফিং !

রাজশাহীর পদ্মা নদীতে প্রথমবারের মতো দেখা মিলেছে দুর্লভ পাখি মার্গেঞ্জারের

রিপোর্টার নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৩ জানুয়ারি, ২০২০
  • ১৬৪ বার

মঈন উদ্দীন: বাংলাদেশে খুবই অনিয়মিত দেখা যায়, এ জন্য এর বাংলা নামই রাখা হয়নি। ইংরেজি নাম ‘কমন মার্গেঞ্জার’। যাঁরা পাখি চেনেন, তাঁরা মার্গেঞ্জার নামেই একে চেনেন। বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষ–এও একে ‘পাতি মার্গেঞ্জার’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। চোখ, পা ও পায়ের পাতা লাল এবং উজ্জ্বল লাল-কমলা রঙের এই হাঁসের বৈজ্ঞানিক নামের অর্থ রাজহংসী। পাহাড়ি খরস্রোতা নদীর এই হাঁসকে রাজশাহীর পদ্মা নদীতে প্রথমবারের মতো দেখা গেছে। তবে পাখি বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সাম্প্রতিক কালে বাংলাদেশে এই হাঁসকে তৃতীয়বারের মতো দেখা গেল।
গত ২৯ ডিসেম্বর বিকেলের রোদটা পড়ে আসছিল। অধ্যাপক এম মনিরুল এইচ খান রাজশাহীতে এসেছিলেন ‘বৈকাল টিল’ নামের আরেক জাতের দুর্লভ হাঁসের ছবির সন্ধানে। ৭ ডিসেম্বর রাজশাহীর পাখিপ্রেমী নূর-এ-সাউদ পদ্মা নদীতে বৈকাল টিল বা বাংলায় ‘বৈকাল তিলিহাঁস’-এর দেখা পেয়েছেন। এই খবর শুনে ঢাকা থেকে আসেন মনিরুল এইচ খান। সঙ্গে রয়েছেন নূর-এ-সাউদ ও পাখিপ্রেমী চিকিৎসক মঈনুল আহসান। বিকেল ফুরিয়ে আসছে কিন্তু তাঁরা বৈকাল তিলিহাঁসের দেখা পাচ্ছেন না। এমন সময় নূর-এ-সাউদের চোখে পড়ে নতুন জাতের এক জোড়া হাঁস। রাজশাহীতে আগে এই হাঁস দেখা যায়নি। মনিরুল এইচ খান বলেন, বাংলাদেশে এই পরিযায়ী পাখি অনিয়মিত। সাম্প্রতিক কালে এটিকে তৃতীয়বারের মতো দেখা গেল। এর আগে দুবার ঠাকুরগাঁওয়ে দেখা গেছে। বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি প্রকাশিত বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষ, পাখি খ—২৬-এ বলা হয়েছে, পাতি মার্গেঞ্জার বাংলাদেশে অনিয়মিত পাখি। শীতকালে ঢাকা বিভাগের যমুনা নদীতে দেখা গেছে। সিলেট বিভাগে থাকার একটি পুরোনো তথ্যও রয়েছে। উত্তর আমেরিকা, ইউরোপ ও এশিয়ায় এর বৈশ্বিক বিস্তৃতি। এশিয়ার মধ্যে পাকিস্তান, ভারত, নেপাল ও ভুটানে দেখা যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
© All rights reserved © 2023 TechPeon.Com
ডেভলপ ও কারিগরী সহায়তায় টেকপিয়ন.কম